dstbt.bangla.gov.in 2022 Science and Technology and Biotechnology Department of West Bengal

West Bengal Science and Technology and Biotechnology Department: আধুনিক যুগে আমরা অনেক বেশি উন্নত। বিভিন্ন রকমের প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমাদের দৈনন্দিন কাজকর্ম কে অনেকটা সহজ করে তুলতে পেরেছি।

যার ফলে যেমন সময়টাও অনেক টাই কম লাগে, তার সাথে সাথে শারীরিক পরিশ্রম অনেকটাই কমে এসেছে। দিনবদলের সাথে সাথে প্রযুক্তিগত দিক থেকে মানুষ আরও বশি উন্নতি করে চলেছে।

প্রযুক্তি: Technology

সাধারণত বিজ্ঞানের আবিষ্কার কে মানুষের কাজে লাগানোর উপায় কে প্রযুক্তি বলা হয়। যেমন সাধারণত ধরা যাক, জলসেচ করার পাম্প একটা প্রযুক্তি বিজ্ঞানের আবিষ্কারের মাধ্যমে জমিতে সেচ দিয়ে ফসল উৎপাদন করা যায়।

Science and Technology and Biotechnology Department of West Bengal - dstbt.bangla.gov.in
Science and Technology and Biotechnology Department of West Bengal – dstbt.bangla.gov.in

যেখানে আগে শারীরিক পরিশ্রমের মধ্যে দিয়ে জল সেচের প্রক্রিয়া সম্পাদন করা হতো। যেখানে অনেকটাই সময় লাগে এবং শারীরিক পরিশ্রম তো আছেই।

প্রযুক্তি হলো জ্ঞানের এমন একটি শাখা, যেখানে ব্যবহারিক বিজ্ঞান বিষয় নিয়ে কাজ করা হয়। বর্তমানে মানুষের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সম্পদের তথ্য প্রায় সব ক্ষেত্রেই সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য আমাদের নির্ভরশীলতা তথ্য প্রাপ্তির উপর। শুধুমাত্র প্রযুক্তিই এই চাহিদা মেটাতে পারে।

বায়োটেকনোলজি অথবা জৈবপ্রযুক্তি: Biotechnology

জীববিজ্ঞান গুলি সমাজে দুর্দান্ত প্রযুক্তিগত অগ্রগতি সরবরাহ করছে। তার মধ্যে অন্যতম একটি হলো জৈবপ্রযুক্তি অথবা বায়োটেকনোলজি (Biotechnology)। বায়োটেকনোলজি এমন একটি বিজ্ঞান, যা কিছু জিনিস কিভাবে কাজ করে তা বোঝার জন্য একটি বহুমাত্রিক উপায়ে চেষ্টা করা হয়।

এটির সম্পর্কে একটি কংক্রিট এবং সর্বজনীন সংজ্ঞা পাওয়া শব্দটি কি, আরও সাধারণভাবে বলা যেতে পারে যে,  বায়োটেকনোলজি হল বিজ্ঞান যা কিছু জীবিত করে তুলতে সাহায্য করে এবং কৌশল গুলি কিভাবে পরিচালনা করতে পারে তা নিয়ে পড়াশোনা অথবা অনুশীলন করা।

Science and Technology and Biotechnology Department:

যেমন ধরুন ডিএনএ নিয়ে গবেষণা করা প্রজননের ধরন ইত্যাদি। এটি জীবিত কোষ গুলির সাথে জৈবিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে মানুষের জন্য দরকারি যে পরিষেবাগুলি উৎপাদন করতে সক্ষম হয় এই পরিষেবাগুলি ওষুধ শিল্প বা খাদ্য ক্ষেত্রগুলি একটি অংশকে কভার করতে পারে।

এই প্রযুক্তিটি ব্যবহার করে বিজ্ঞানী ও গবেষকরা জীবিত জিনিসের বিভিন্ন ক্রিয়া-কলাপ এর জন্য জৈব প্রযুক্তি ববহার করতে পারেন।

এটি সর্বদা বলা হয়ে থাকে যে, আমাদের শরীর এমন ভাবে কাজ করে যা এমন কোন মেশিন যেখানে সমস্ত কিছু প্রোগ্রাম এবং স্বয়ংক্রিয় হয়। খাদ্য হজম করার বিষয়ে এবং রক্তে পুষ্টি সরবরাহ করার বিষয়ে ভাবতে হবেনা। দেহ নিজেই এটি করে। এভাবে বায়োটেকনোলজি এবং প্রয়োগ গুলি মেডিসিন ফার্মেসি এবং কৃষির সাথে সম্পর্কিত করার চেষ্টা করে।

এছাড়া বলা যেতে পারে, কৃষিতে আরো কিছু উৎপাদনশীল ফসল, জিন গুলি সংশোধন করে প্রাপ্ত হতে পারে। বায়োটেকনোলজি ব্যবহার করে নিত্যনতুন গাছপালা উপর ও জীব বৈচিত্রের উপর রিসার্চ করা যায়।

Science and Technology and Biotechnology Department এর কাজ:

পশ্চিমবঙ্গের এই ডিপার্টমেন্ট দিনদিন উত্তরোত্তর আরো বেশি উন্নতি সাধন করে চলেছে এইসব রিসার্চের ক্ষেত্রে। বিজ্ঞান প্রযুক্তি এবং জৈব প্রযুক্তি অর্থাৎ বায়োটেকনোলজি মানুষটা আরো বেশি উন্নততর করতে সাহায্য করে।

বিজ্ঞান কে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন রকমের প্রযুক্তি এর উপর নির্ভর করে কৃষি কাজ থেকে নির্মাণকাজ সবকিছু আজ এতটাই উন্নত যে, মানুষকে শারীরিক পরিশ্রম অল্প করতে হয় এবং টেকনোলজির উপর নির্ভর করে খুব সহজেই উন্নত মানের জিনিসপত্র তৈরি করা যায়।

সেই সব ধরনের টেকনোলজি গুলো পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এই দপ্তর রাজ্যের উন্নতি সাধনের জন্য প্রদান করে থাকে। আজ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় টেকনোলজির ব্যবহারের ফলে সব কিছু তে বেশ আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে।

Science and Technology and Biotechnology Department এর ওয়েবসাইট:

এই ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটটি হল: dstbt.bangla.gov.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে এই ডিপার্টমেন্টের বিজ্ঞান-প্রযুক্তি এবং জৈব প্রযুক্তি সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানা যায়।

Science and Technology and Biotechnology Department এর ওয়েবসাইটের কাজ:

এই ডিপার্টমেন্টের dstbt.bangla.gov.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে বিভিন্ন রকমের তথ্য, প্রযুক্তি এবং জৈব প্রযুক্তি সম্পর্কে জানা যায় এবং রাজ্যের উন্নতি সাধনের জন্য কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলো সে সম্পর্কে বিভিন্ন রকমের তথ্য পাওয়া যেতে পারে।

Science and Technology and Biotechnology Department of West Bengal
Science and Technology and Biotechnology Department of West Bengal

জৈবপ্রযুক্তি এই সমস্ত উপকারিতার জন্য বিশেষভাবে দরকারি, আজকের ক্রিয়া-কলাপ গুলির কোন নির্মাণের প্রয়োজনীয়তা গুলি উন্নতি করতে কেবলমাত্র নতুন আউটলেট গুলি সমাধান করার চেষ্টা করা। উৎপাদন ভাল মানের জীবন এবং স্বাস্থ্য ঝুঁকি কম।

এই ডিপার্টমেন্ট অন্যদিকে খাদ্য শিল্পে বা পরিবেশগত সমস্যাগুলি তে পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির উৎস অর্জন করতে সক্ষম হয়। মানুষ নির্দিষ্ট যেমন কম্পোস্টিং এবং দূষণ দূরীকরণে চিকিৎসার জন্য কিছু সিস্টেম বিজ্ঞান এবং টেকনোলজি এবং জৈব প্রযুক্তি এর মধ্যে দিয়ে সম্পন্ন করা সম্ভব হয়।

বিজ্ঞানের যুগে অসম্ভবকে সম্ভব করে তুলতে সচেষ্ট হয়েছে। আজকে শিক্ষা জগতেও টেকনোলজির উপরের পড়াশোনার আগ্রহ বেড়ে চলেছে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে। কারণ যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য দিনবদলের সাথে সাথে বিজ্ঞান প্রযুক্তি এবং জৈবপ্রযুক্তি বিশেষভাবে কাজে আসবে আজকের দিনের সাথে সাথে ভবিষ্যতেও।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের এই ডিপার্টমেন্ট বিশেষভাবে ভূমিকা পালন করে। রাজ্যের সমস্ত রকমের প্রযুক্তিগত উন্নতির দিকে খেয়াল রেখে। আধুনিক আধুনিকীকরণের পাশাপাশি নাঙ্গল দিয়ে জমি চষার পরিবর্তে মাঠে নেমেছে ট্রাক্টর।

এটা সম্ভব হয়েছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির মাধ্যমে। ভবিষ্যতেও আরো উন্নততর প্রযুক্তির দেখা মিলবে, আশা করা যায়। তার জন্য গড়ে উঠেছে বিভিন্ন রকমের রিসার্চ কেন্দ্র, যেখানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে রিসার্চ করা হয়।

Science and Technology and Biotechnology Department এর কিছু তথ্য:

এই ডিপার্টমেন্টের মিনিস্টার অফ স্টেট:

শ্রীমতি রত্না দে নাগ

ঠিকানা: বিজ্ঞান চেতনা ভবন, 26/B, Block-DD, Sector l, সল্ট লেক সিটি, কলকাতা 700064

এই ডিপার্টমেন্টের অ্যাডিশনাল চিফ সেক্রেটারি:

শ্রী অনিল ভরমা, I.A.S.

ঠিকানা: বিজ্ঞান চেতনা ভবন, 26/B, Block-DD, Sector l, সল্ট লেক সিটি, কলকাতা 700064

ফোন নাম্বার: 2334 5809

ফ্যাক্স: 2334 5809

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

Official WebsiteClick here
HomeClick here

Leave a Comment

You cannot copy content of this page