জমি কেনার জন্য 70 লক্ষ টাকা লোন কিভাবে পাবেন? Land Loan Guide in Bangla

How Can I Get Rs70 Lakhs as Loan for Land Purchase | Every Land Loan Guide in Bangla

জমি কেনা নিয়ে আমাদের সবারই একটা স্বপ্ন থাকে। আমরা অনেকেই চাই ভালো জায়গায় নিজের কিছু জমি থাকুক, যাতে করে ভবিষ্যতে ঐ জমিতে কোন স্থাপনা তৈরি করে আবাসন বানানো অথবা কোন বানিজ্যিক কাজে  ব্যবহার করা।

আর ভারতে দিন দিন জমির মূল্য যেভাবে উর্ধমুখী তাতে আজ জমি কিনতে রাখতে পারলে ঐ জমির মূল্য কিছু দিন পরেই অনেক বেড়ে যাবে, তাতে করে আর্থিক লাভবান হবার সুযোগ থাকে।

কিন্তু জমির দাম অনেক বেশি হওয়া অনেক সময় আমরা ইচ্ছা থাকলেও জমি কিনতে পারি না। তাই আমাদের ইচ্ছা অনেক সময়ই পূরণ হয়না। 

How Can I Get Rs70 Lakhs as Loan for Land Purchase
How Can I Get Rs70 Lakhs as Loan for Land Purchase

এই সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে বর্তমানে সুখবর নিয়ে এসেছে ভারতের বিভিন্ন ব্যাংক । বিভিন্ন ব্যাংক এখন জমি কেনার জন্য ঋন দিয়ে থাকে।

যা আপনি কয়েক বছরের মাসিক কিস্তিতে পরিশোধ করতে পারেন। এভাবে আপনি ব্যাংক ঋন নিয়ে আপনার পছন্দের জায়গায় জমি কিনতে পারেন।

আমাদের মাঝে অনেকেরই ব্যাংক লোন নিয়ে ধারণা না থাকায় ব্যাংক লোন নিতে পারি না। আমরা জানিনা কিভাবে জমি কেনার লোনের আবেদন করতে হয়।

কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হয়। কতটাকা পর্যন্ত জমি কেনার ঋন দেয়া হয়। 

আমাদের সাইটে আমরা নিয়মিতভাবে আপনাদের সাথে জমি নিয়ে বিভিন্ন  আলোচনা করে থাকি।

এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আপনাদের সাথে জমি কেনার জন্য কিভাবে ৭০ লক্ষ টাকা ঋন পাওয়া যায় তার বিস্তারিত আলোচনা করবো।

আমরা দেখার চেষ্টা করবো যে, জমি কেনার ঋন পেতে কি কি কাগজপত্র দরকার হয়, কিভাবে এই জমি কেনার লোনের জন্য আবেদন করা যায়, কি কি বিষয়ের উপর জমি কেনার লোনের পরিমান নির্ভর করে থাকে। 

 

আসুন দেখে নি জমি কেনার জন্য লোনের বিস্তারিত কিছু তথ্য

নিচে আমরা জমি কেনার লোন নেয়ার কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে আলোচনা করছি।

 

জমি কেনার জন্য লোনের সুবিধাগুলি কি কি দেখে নিই 

আসুন দেখে নিই, জমি কেনার জন্য লোনের কি কি সুবিধা রয়েছে। 

১) নিন্ম সুদের হার- অন্যান্য লোনের তুলনায় জমি কেনার লোনে সুদের হার তুলনামূলক কম। 

২) নিম্ন প্রসেসিং ফি- জমি কেনার জন্য লোনের জন্য প্রসেসং ফি খুব কম হয়ে থাকে। 

৩) কোন হিডেন চার্জ নেই 

৪) জমি কেনার লোনের পরিশোধের সময় অনেক বেশি হয়ে থাকে। সাধারণত ১০-১৫ বছর পর্যন্ত এই লোনের মাসিক কিস্তি হিসেবে দেয়া যায়। 

 

কে কে জমি কেনার লোনের জন্য আবেদন করতে পারবে? 

আসুন দেখে নিই, কে কে জমি কেনার লোনের জন্য আবেদন করতে পারবে। 

১) আবেদনকারীকে ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

২) আবেদনকারীর বয়স ১৮ বছর হতে ৬৫ বছরের মাঝে হতে হবে। 

৩) আবেদনকারী চাকরীজীবি অথবা নিয়মিত আয় থাকতে হবে। 

৪) আবেদনকারীর ক্রেডিট স্কোর ৭৫০ বা তারচেয়ে বেশি হতে হবে। 

 

জমি কেনার লোনের জন্য কি কি কাগজপত্র দরকার হয়?

আসুন দেখে নি জমি কেনার লোনের জন্য কি কি কাগজপত্র দরকার হয়। 

১) ঋন আবেদনের ফর্ম 

২) পরিচয় প্রমাণের জন্য ভোটার আইডি কার্ড/ PAN কার্ড/ পাসপোর্ট বা ড্রাইভিং লাইসেন্স। 

৩) ৩ টি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।

৪) ঠিকানা প্রমানের জন্য বিদ্যুৎ বিলের কপি/ টেলিফোন বিলের কপি/ সম্পত্তির ট্যাক্স রশিদ।

৫) সর্বশেষ ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট। 

৬) চাকরীজীবিদের জন্য সেলারী স্টেটমেন্ট ।

৭) প্রতিষ্ঠানের আইডি কার্ড

৮) ব্যবসায়ী হলে ব্যবসার সকল কাগজপত্র। 

৯) আয়কর রিটার্ন জমা দেয়ার 

১০) আপনার সম্পদের বিবরনী। 

কি কি বিষয়ের উপর জমি কেনার লোনের পরিমান নির্ভর কতে থাকে 

আসুন দেখে নিই, কি কি বিষয়ের উপর জমি কেনার লোনের পরিমান নির্ভর করে থাকে। 

১) আবেদনকারীর কি পরিমান সম্পদ আছে।

২) আবেদনকারী বয়স কত। 

৩) আবেদনকারীর মাসিক আয় বা ঋন পরিশোধ করার ক্ষমতা কেমন। 

৪) আবেদনকারীর আয় নিয়মিত বা স্থায়ী কিনা। 

 

এভাবে আবেদন করলে আপনার সম্পদ ও মাসিক আয় বিবেচনা করে ৭০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন নেয়া যায়, যা ১০-১৫ বছরের মাসিক কিস্তিতে শোধ করা যায়। তাই জমি কেনার জন্য লোন নিয়ে অনেকেই জমি কিনে লাভবান হচ্ছে। সেই সাথে দীর্ঘসময়ের মাসিক কিস্তিতে এই লোন পরিশোধ করছে। 

 

আজ আমরা কিভাবে জমি কেনার জন্য ৭০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন পাওয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা করলাম।  আগামীতে এই জাতীয় আরো কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো, তাই আমাদের পেজে নিয়মিত চোখ রাখুন।


এই লেখাটি অনেকের কাজে লাগতে পারে তাই লেখাটি যতটুকু সম্ভব শেয়ার করুন, যাতে করে অনেকে এই লেখা থেকে শিক্ষা নিয়ে জমি থেকে আয় করার ব্যবস্থা করতে পারে।

Leave a Comment