গরমে চুলের যত্নের কিছু দুর্দান্ত টিপস

মৌসুম বদলের সাথে সাথে প্রকৃতির মত আমাদের চেহারা, ত্বক, চুলেরও পরিবর্তন আসে। গরমে চুলের উজ্জ্বল ভাব চলে গিয়ে যেমন রুক্ষ, শুষ্ক, নিষ্প্রাণ হয়ে যায়, তেমনি গরম পড়লেই চুলে তেল চিটচিটে ভাব চলে আসে। গরমে ঘেমে চুলে প্রচুর ময়লা জমে, ঘাম না শুকালে চুল পড়ার সমস্যা দেখা দেয়।

এজন্য গরম কালে চুল পরিষ্কার, সুন্দর ও স্বাস্থ্যেজ্জ্বল রাখতে প্রয়োজন বাড়তি যত্ন। ঋতুভেদে সঠিকভাবে পরিচর্যা করলে যেকোন ঋতুতেই আপনার ত্বক ও চুল সুন্দর ও ঝলমলে থাকবে। কিন্তু টিপস কিন্তু ঋতুভেদে পরিবর্তন হয়, সাথে উপাদানও।

আজ আমরা জানব গরমে সুন্দর ও স্বাস্থ্যজ্জ্বল চুল পেতে কি কি টিপস অনুসরণ করবেন। চলুন প্রিয় পাঠক আর দেরী না করে মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

গরমে চুলের যত্নের কিছু জাদুকরী টিপস

১. চুল ভেজা রাখবেন না

গরমকালে চুল পড়ার সমস্যা প্রকট আকারে দেখা দেয় কারণ আমরা এ সময় ভাবি যে, স্নানের পর বাতাসেই চুল শুকিয়ে যাবে। যাদের লম্বা চুল তাদের চুল এত সহজে শুকায় না, আর গরমকালে রোদে গিয়ে চুল শুকানোও সম্ভব নয়। তাই হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকিয়ে নিন।

হেয়ার ড্রায়ার চুলের খুব কাছে আনবেন না, এবং সপ্তাহে দুদিনের বেশী ব্যবহার করবেন না। হেয়ার ড্রায়ার না থাকলে ফ্যানের নিচে চুল ভালভাবে শুকিয়ে নিন। কাজ করতে গিয়ে ঘেমে গেলেও একইভাবে চুল শুকিয়ে নেবেন।

২. ঠিকমত ব্রাশ করুন

অনেকেই ব্যস্ততার জন্য চুলে ঠিকমত ব্রাশ করেন না বা আচড়ান না। এটা করবেন না। প্রতিদিন নিয়মিত ৪ বার হেয়ার ব্রাশ ব্যবহার করুন। ঘুমানোর আগে বেশ সময় নিয়ে হেয়ার ব্রাশ করুন।

এতে চুলে রক্ত সঞ্চালন ভাল হবে, চুলে কোন ময়লা জমবে না, চুল থাকবে ঝলমলে ও স্ট্রেট। এরকম চুলে তেল দেওয়া, বাধা, এবং শ্যাম্পু করাও খুব সহজ।

৩. নিয়মিত শ্যাম্পু করুন

শীতে আমরা চুলে নিয়মিত শ্যাম্পু করার কথা ভুলেই যাই। স্নান করাই তখন ঝামেলার বলে মনে হয়। কিন্তু গরমে এমনটা অবশ্যই করা যাবেনা। আপনাকে সপ্তাহে তিনদিন অবশ্যই চুলে শ্যাম্পু করতে হবে। চুলের ধরন বুঝে শ্যাম্পু নির্বাচন করুন। শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। এটা আপনার চুলকে সফট করবে, এলোমেলো ভাব থাকবে না।

তবে মাথার ত্বকে কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন না। এতে চুল পড়ার সম্ভাবনা থাকে। সময় নিয়ে শ্যাম্পু করলে চুলের অর্ধেক সমস্যা এমনিতেই দূর হয়ে যায়। কিন্তু আমরা তাড়াহুড়া করি বলেই শ্যাম্পু করার পর চুল ঘাসের মত এলোমেলো লাগে।

৪. গরম তেল ম্যাসাজ করুন

গরম তেল বা হট অয়েল ম্যাসাজ চুলের গোড়া শক্ত করে, আগা ফাটা রোধ করে, চুলের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। প্রতি সপ্তাহে নিয়ম করে ৩ দিন চুলে হট অয়েল ম্যাসাজ করলে চুল পড়ার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

হট অয়েলের সাথে লেবু মিশিয়ে ব্যবহার করলে চুলের খুশকির সমস্যাও দূর হয়ে যাবে। চুল এমনিতেই সফট ও ঝলমলে দেখাবে। শ্যাম্পু করার আগের দিন রাতে হট অয়েল ম্যাসাজ করুন।

৫. মেহেদীর রস ব্যবহার করুন

চুলকে প্রাকৃতিকভাবে কালো, ঝলমলে, সিল্কি ও মসৃন রাখতে মেহেদীর রসের কোন তুলনাই নেই। এটা আপনার চুলকে শক্ত ও মজবুত করবে, চুল পড়ার সমস্যা দূর করবে।

মেহেদী পাতা পাটায় বেটে তা থেকে রস ছেকে নিন, এরপর এর সাথে টকদই মিশিয়ে চুলে ব্যবহার করুন। ৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। চুল এত সিল্কি হবে যে অবিশ্বাস্য মনে হবে।

৬. সিরাম ব্যবহার করুন

চুলের যত্নে সিরাম খুবই কার্যকর। চুলে শ্যাম্পু করার পর এক মগ জলের সাথে একটি পাতিলেবু, চায়ের লিকার এবং চাল ধোয়া পানি একসাথে মিশিয়ে চুল ধুয়ে নিন। তারপর মুছে শুকিয়ে নিন। চুল অনেক সফট এবং ঝলমলে হবে। এছাড়া বাজারে প্রচলিত ভাল মানের সিরামও ব্যবহার করতে পারেন। তবে ঘরোয়া উপাদানের কোন প্বার্শ প্রতিক্রিয়া নেই।

উপসংহার

গরমকালে চুল তাড়াতাড়ি ময়লা হয়, এবং প্রায় সময়ই ঘেমে যায় বলে চুল পড়ার সমস্যা দেখা দেয়। চুল সুন্দর স্বাস্থ্যজ্জ্বল রাখতে তাই উপরিউক্ত টিপসগুলো অনুসরণ করুন। কর্মব্যস্ত যে কেউই এই সহজ নিয়মগুলো অনুসরণ করে সুন্দর ও ঝলমলে চুল পেতে পারেন। এরজন্য বাড়তি কোন যত্ন বা পার্লারে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

আশা করি গরমে চুলের যত্ন নেওয়ায় পোস্টটি আপনাদের উপকারে আসবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন। আমরা অবশ্যই তথ্য জানিয়ে আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব। আজকের মত এখানেই শেষ করছি। ধন্যবাদ সবাইকে।

Leave a Comment