wb.gov.in 2022 Paschimanchal Unnayan Affairs Department of West Bengal

0
(0)

West Bengal Paschimanchal Unnayan Affairs Department: পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার পশ্চিম অঞ্চলের বিভিন্ন রকমের উন্নয়ন সাধন করে চলেছে প্রতিনিয়ত। গত সাত বছরে পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর ৭ টি জেলার (পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান) ৭৪ টি ব্লকে অনেক উন্নয়নমূলক পদক্ষেপ নিয়েছে।

পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর:

পশ্চিমাঞ্চলের সাতটি জেলার ৭৪ টি ব্লকে বিভিন্ন রকমের উন্নয়নমূলক কাজ সম্পাদনের মধ্যে দিয়ে সেখানকার মানুষদের অনেক বেশি সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হয়েছে, এই দপ্তর এর তরফ থেকে।

Paschimanchal Unnayan Affairs Department of West Bengal wb.gov.in
Paschimanchal Unnayan Affairs Department of West Bengal wb.gov.in

গ্রামীণ যোগাযোগব্যবস্থা (রাস্তা এবং সাঁকো), জল সংরক্ষণ, সেচ, কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পানীয় জল সরবরাহ সহ অন্যান্য আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকমের প্রকল্প বাস্তবায়িত করা হয়েছে।

পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর এর কাজ:

পরিকাঠামো উন্নয়ন: এক্ষেত্রে গীতাঞ্জলি প্রকল্প টি বিশেষ ভূমিকা পালন করে। গত সাত বছরে গীতাঞ্জলি প্রকল্প এ ৯৮০০ এর বেশি গৃহ নির্মাণ সম্ভব হয়েছে। ১৮৮০ টি আইসিডিএস কেন্দ্র ৬৭৫ টি (রাস্তা, সাঁকো, ব্রিজ), ৬৭০ টি সেচ ও জলতীর্থ কাঠামো, ৯০৩ গভীর নলকূপ, ১৫ টি পুষ্টি জনিত পুনর্বাসন কেন্দ্র তৈরি করেছে এই দপ্তর।

তাছাড়া জঙ্গলমহল প্যাকেজ: এই প্যাকেজে ২ কোটি টাকা ব্যয় করে ৯ টি রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে।

এছাড়াও

জীবিকা নির্বাহের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প প্রণয়ন:

কর্মসংস্থান তৈরীর জন্য পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, জেলার অরণ্য অঞ্চল ছাড়াও অন্যান্য অঞ্চলে লাক্ষা চাষ ও আরো বিভিন্ন রকমের প্রকল্প চালু করা হয়েছে। এই প্রকল্পের ফলে উপকৃত হয়েছেন ১০ হাজার মানুষ। তাছাড়াও কর্মসংস্থান ও স্বনির্ভর ও তার জন্য দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন রকমের প্রশিক্ষণ।

যেমন বিভিন্ন রকমের হাতের কাজ, শালপাতার থালা তৈরি, জৈব আনাজ চাষ, সয়াবিন উৎপাদন, পিয়াজ চাষ, আঙ্গুর চাষ, হলুদ চাষ, মোবাইল ফোন সারানো, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ, দু চাকার যানবাহন গুলোর মেরামত, প্লাস্টিক মডেল তৈরির প্রশিক্ষণ, হাতে পাপড় তৈরি, সুন্দর মোমবাতি তৈরি ইত্যাদি।

পশ্চিমাঞ্চলের সাংস্কৃতিক বিকাশ:

সমাজের সাংস্কৃতিক বিকাশ ঘটনার মধ্যে দিয়ে সমাজ আরো বেশি উন্নত হতে পারে। তপশিলি জাতি উপজাতি এবং অনগ্রসর শ্রেণীর মানুষের লোকসংগীত, নৃত্য এবং পারম্পরিক শিল্পকে সকলের সামনে তুলে ধরতে প্রতিবছর জঙ্গলমহল উৎসবের আয়োজন করা হয়।

ভূ-সম্পত্তি পরিষেবা:

এক্ষেত্রে ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন এর সহযোগিতায় পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর উপগ্রহ চিত্রের উপর নির্ভর পোর্টাল তৈরি করেছে। যার ফলে উন্নয়ন পরিকল্পনা করা আরো বেশি সহজ হবে।

লাক্ষা চাষের পুনরুজ্জীবন:

লাক্ষা চাষের জন্য পুরুলিয়াতে একটি খসড়া ডি পি আর তৈরি করা হয়েছে। ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ন্যাচারাল রেজিন্স এন্ড গামস এর সহযোগিতায়।প্রযুক্তিকেন্দ্রিক রূপান্তরমূলক প্রকল্প সি ডি এস এর সহযোগিতায় বাঁকুড়াতে যে প্রকল্পগুলি, সেগুলি হল:

#১) কৃষিতে প্রযুক্তির ব্যবহার:

কৃষিকাজ কে আরো বেশি উন্নত করার জন্য বিভিন্ন রকমের প্রকল্প চালু করা হয়েছে ইতিমধ্যে। ফসল, মাটির গুণমান, সার, সেচ, সুরক্ষা, কৃষিকাজের সরঞ্জাম, শস্য তোলার পর প্রযুক্তির ব্যবহার, আবহাওয়া এবং কৃষি বিপণন সংক্রান্ত তথ্য দিতে আইসিটি নির্ভর পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছে। এর ফলে ব্যাপকভাবে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা।

#২) রেশম গুটি চাষে প্রযুক্তির ব্যবহার:

এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো আইসিটি নির্ভর পরিকাঠামো ব্যবহার করে রেশম গুটি চাষকে আরো বেশি উন্নত পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া। এর ফলে কৃষকরা তো উপকৃত হবেনই, তার পাশাপাশি সিল্কের মান ও উৎপাদন দুটোই বাড়বে।

Paschimanchal Unnayan Affairs Department এর ওয়েবসাইট:

এই ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটটি হল: wb.gov.in

Paschimanchal Unnayan Affairs Department ওয়েবসাইট এর কাজ:

এই ডিপার্টমেন্টের বিভিন্ন রকমের প্রকল্প ও উন্নয়নমূলক কাজ সম্পর্কে wb.gov.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর এর সমস্ত তথ্য জানতে পারা যায়।

তাছাড়া পশ্চিম অঞ্চলের উন্নয়ন দিন দিন আরও বেড়ে চলেছে। সেখানকার সাধারণ মানুষের সুযোগ-সুবিধা বেড়ে গেছে অনেক গুণ।

এছাড়া বাঁকুড়ার হস্ত শিল্পের জন্য ই-কমার্স ওয়েব পোর্টাল:

এই প্রকল্পের একমাত্র উদ্দেশ্য হল স্থানীয় হস্তশিল্পকে তুলে ধরা এবং আরও উন্নতির দিকে নিয়ে যাওয়া। বিক্রির সুবিধা করে দেওয়া। রাজ্যের বাইরেও এইসব হস্তশিল্প গুলির বিক্রি করার সুবিধা করে দেওয়া হয়েছে।

প্রজেক্ট life-cycle ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম:

যেহেতু পশ্চিমাঞ্চলের ৭৪ টি ব্লকের সমস্ত রকমের প্রকল্প সব সময় খতিয়ে দেখা সম্ভব হয় না, সেই কারণে প্রজেক্ট লাইফ সাইকেল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম তৈরি করা হয়েছে, পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর এর তরফ থেকে। এটি আই এফ এম এস এর সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে এবং রাজ্যে এমনটা এই প্রথম।

পশ্চিমাঞ্চলের উন্নয়নের জন্য কম্প্রিহেনসিভ ইন্ট্রিগেটেড প্লান:

পশ্চিম অঞ্চলের উন্নয়নের জন্য এই প্ল্যান তৈরি করা হয়েছে। পশ্চিম অঞ্চলের উন্নয়নের মোট ১৩ টি মূল মাপকাঠির কথা মাথায় রেখেই ১৩ টি দপ্তর এর সাথে আলোচনার মধ্য দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই প্লান।

তাছাড়া পশ্চিমাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা, কৃষিকাজ, কর্মসংস্থান, সবকিছু উত্তরোত্তর উন্নতির দিকে এগিয়ে চলেছে। তার জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার বিশেষভাবে খেয়াল রেখেছে, এবং এই দপ্তরের তরফ থেকে বিভিন্ন রকমের সুযোগ-সুবিধা প্রকল্প এখানকার মানুষজনের খুশির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তরের বিশেষ কিছু তথ্য:

এই ডিপার্টমেন্টের Minister-in-State (Independent Charge):

শ্রীমতি সন্ধ্যারানি টুডু

ঠিকানা: পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন, অ্যাফেয়ারস ডিপার্টমেন্ট, পৌর ভবন, FD 415A, 5th floor, sector lll, Salt Lake City, Kolkata-700106

ফোন নাম্বার: 2337 0225/ 0250 (Ext)

ফ্যাক্স: 2337 0250

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

এই ডিপার্টমেন্টের অ্যাডিশনাল চিফ সেক্রেটারি:

শ্রী সুব্রত বিশ্বাস, আই এ এস

ঠিকানা: পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন, অ্যাফেয়ারস ডিপার্টমেন্ট, পৌর ভবন, FD 415A, 5th floor, sector lll, Salt Lake City, Kolkata-700106

ফোন নাম্বার: 2337 0237

ফ্যাক্স: 2337 0257

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

এই ডিপার্টমেন্টের  Nodal অফিসার:

শ্রী অনিন্দ্য কুমার কর, Joint Secretary

ঠিকানা: পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন, অ্যাফেয়ারস ডিপার্টমেন্ট, পৌর ভবন, FD 415A, 5th floor, sector lll, বিধান নগর, Salt Lake City, Kolkata-700106

ফোন নাম্বার: 2337 02 94

ফ্যাক্স: 2337 02 94

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

Official WebsiteClick here
HomeClick Here

আপনাদের এই তথ্য কেমন লেগেছে?

এই পোস্টে মতামত দিতে একটি স্টারে ক্লিক করুন!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

যেহেতু আপনি এই পোস্টটি দরকারী বলে মনে করেছেন ...

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের অনুসরণ করুন!

আমরা দুঃখিত যে এই পোস্টটি আপনার জন্য দরকারী ছিল না!

চলুন আমাদের এই পোস্ট উন্নত করা যাক!

আমাদের বলুন কিভাবে আমরা এই পোস্ট উন্নত করতে পারি?

Leave a Comment