দ্রুত অ্যানিমিয়া দূর করে এই খাবারগুলি

শরীরে প্রয়োজনের তুলনায় কম রক্ত থাকা, অর্থ্যাৎ হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ কমে যাওয়াকেই রক্তস্বল্পতা বলা হয়। রক্তস্বল্পতা হলে শরীরে আয়রন কমে যায়, শরীর দূর্বল হয়ে যায়, মাথা ঘোরার সমস্যা, সবসময় অলস লাগার সমস্যা দেখা দেয়।

এতে করে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়, কর্মউদ্যম কমে যায়। ব্যস্ত জীবনে এ ধরনের সমস্যা দিয়ে দিন কাটানো অসম্ভব। আপনি যদি রক্তস্বল্পতায় ভোগেন কোন কাজেই মন বসাতে পারবেন না,সবসময়ই নিজেকে খুব দূর্বল মনে হবে আর হীনমন্যতায় ভুগবেন।

এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চাইলে সুষম এবং পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করতে হবে, যা শরীরে দ্রুত আয়রন এবং রক্ত তৈরি করে। আজ আমরা এমন কিছু খাবার নিয়ে আলোচনা করব যা খেলে দ্রুত রক্তস্বল্পতা দূর করতে পারবেন।

দ্রুত রক্তস্বল্পতা দূর করে এমন কিছু খাবার

১. ডিম

রক্তস্বল্পতা দূর করতে প্রতিদিন ডিম খাওয়া যেতে পারে। ডিমে রয়েছে প্রোটিন ও এন্টিঅক্সিডেন্ট, ও আয়রন যা শরীরে রক্তের অভাব দূর করে।

প্রতিদিন জলখাবারে, দুপুর বা রাতের খাবারে ডিম রাখতে পারেন। সেটা সেদ্ধ বা পোচ বা ভাজি হতে পারে। প্রতিদিন একটির অধিক ডিম খাওয়াতেও সমস্যা নেই।

২. ডাল

ডাল আমিষের সবচেয়ে ভাল উৎস।  প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ডাল রাখা জরুরী। মসুর, মুগ বা ছোলার ডাল খাবারে যেমন রুচি আনবে তেমনি দ্রুত আয়রন এবং প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে রক্তস্বল্পতা দূর করবে।

ডাল খুবই সহজলভ্য এবং দামেও সস্তা। তাই প্রতিদিনের খাবারে ডাল রাখতে পারেন।

৩. দুধ

দুধ একটি আদর্শ খাবার যাতে প্রয়োজনীয় সকল খাদ্য উপাদান রয়েছে। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় দুধ অবশ্যই রাখুন।

অতিরিক্ত রক্তস্বল্পতায় প্রতিদিন দুই গ্লাস দুধ খান। এতে রয়েছে পটাসিয়াম ও ক্যালসিয়াম যা আপনার আয়রনের ঘাটতি দূর করবে এবং শরীরে দ্রুত রক্ত বৃদ্ধি করবে।

৪. ফলজাতীয় খাদ্য

ফলমূলে প্রচুর ভিটামিন ও আয়রন রয়েছে। কিছু কিছু ফল রক্ত উৎপাদন করতে দ্রুত সাহায্য করে। যেমন ডালিম, পেয়ারা, আপেল, কলা, আঙুর ইত্যাদি।

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ৩-৪ প্রকার ফল রাখুন। এগুলো দ্রুত রক্ত উৎপাদনে সাহায্য করে। ফল খেলে স্বাস্থ্য এবং ত্বকও ভাল থাকে।

৫. মাছ

মাছ প্রানিজ আমিষের সবচেয়ে ভাল উৎস।  মাছে প্রচুর প্রোটিন, ক্যালসিয়াম এবং আয়রন রয়েছে। সামুদ্রিক মাছ এবং ছোট মাছে এর পরিমাণ বেশী।

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় মাছ রাখুন। এটা দ্রুত রক্তস্বল্পতা দূর করতে সাহায্য করবে।

৬. মাংস

মাংস প্রানীজ আমিষের খুবই ভাল উৎস।  মাংসে প্রোটিন ও আয়রন বেশী থাকে। তাই সপ্তাহে নিয়ম করে মাংস খান। এটা খুব দ্রুত রক্তস্বল্পতা দূর করতে সাহায্য করবে।

৭. বাদাম

বাদামে প্রচুর উদ্ভিজ্জ প্রোটিন ও ভিটামিন ই রয়েছে। বাদাম শক্তি বৃদ্ধি ও আয়রনের ঘাটতি পূরণে সাহায্য করে।

তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় বাদাম রাখুন। বাদাম কাচা,  ভেজানো অথবা ভাজা সব অবস্থাতেই খেতে পারবেন।

উপসংহার

রক্তস্বল্পতা বিশেষত নারীদের দেখা দিলেও সব বয়সের মানুষেরই হতে পারে। আর এটা দূর করতে খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন আনা জরুরী। পুষ্টিকর, আয়রন সমৃদ্ধ খাবার নিয়মিত গ্রহণ করলেই আপনি রক্তস্বল্পতা থেকে মুক্তি পাবেন।

এরজন্য দামী খাবার অথবা দুষ্প্রাপ্য খাবার খেতে হবে, এমন কোন কথা নেই। আশা করি, উপরিউক্ত খাবারের তালিকা থেকে রক্তস্বল্পতা দূর করতে কি ধরনের খাদ্যগ্রহণ করবেন তা জানতে পেরেছেন।

এ বিষয়ে কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন।  আজকের মত এখানেই শেষ করছি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Comment