প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা 2022 সুবিধা ও লাভ | PM FME Scheme 2022 Registration & Benefits

What is PM FME Scheme 2022? Eligibility, Registration & Benefits (প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা 2022), মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা কি? এই যোজনার লাভ কি? প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা তে কিভাবে আবেদন করবেন? এবং এই যোজনার আরও তথ্য এখানে দেখুন।

PM Formalisation of Micro Food Processing Enterprises Scheme: খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রক (MOFPI) মাইক্রো ফুড প্রসেসিং স্কিমের রূপায়ন শুরু করেছে ২০২০ সালের ২২ জুন। প্রধানমন্ত্রী এফএমই প্রকল্পটি বিদ্যমান মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইজগুলিকে উন্নীতকরণ করার জন্য আর্থিক, প্রযুক্তিগত এবং ব্যবসায়িক সহায়তা সরবরাহ করার লক্ষ্যে এই প্রকল্পের উদ্ভাবন করেছেন।

এই প্রকল্পে মোট বিনিয়োগের পরিকল্পনা করা হয়েছে ৩৫,০০০ কোটি টাকা। এবং এই প্রকল্পের আওতায় ৯ লক্ষ দক্ষ ও আধা দক্ষ শ্রমিকের কর্মসংস্থানের কথা ভাবা হয়েছে।এই প্রকল্পটি আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের অন্তর্ভুক্ত একটি প্রকল্প।

প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা - PM FME Scheme
প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা – PM FME Scheme

এই খাতে আনুষ্ঠানিককরণ এবং কৃষক উৎপাদক সংস্থাগুলি, স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলি এবং প্রযোজক সমবায়গুলিকে তাদের পুরো মূল্য শৃঙ্খলার সাথে সহায়তা প্রদান করবে।ফুড প্রসেসিং উদ্যোগগুলিকে উন্নীত করার জন্য আর্থিক, প্রযুক্তিগত এবং ব্যবসায়িক সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে সরাসরি সহায়তা করার কথা ভাবা হয়েছে।

2020-21 থেকে 2024-25 পর্যন্ত 5 বছরের সময়কালে এই স্কিমটি কার্যকর করা হবে।এই প্রকল্পে ২,০০,০০০ মাইক্রো-এন্টারপ্রাইজগুলিকে ক্রেডিট লিঙ্কযুক্ত ভর্তুকি দিয়ে সহায়তা করবে সরকার।

১. প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনার উদ্দেশ্য ও বিধি:

• মাইক্রো ফুড প্রসেসিং ইউনিট দ্বারা এই খাতে অর্থের অ্যাক্সেস বৃদ্ধি করা এই প্রকল্পের একটি উদ্দেশ্য।

• খাবারের মান প্রযুক্তির সাথে উন্নতিকরন করার চিন্তাভাবনা করা হয়েছে।

• অসংগঠিত খাত থেকে একটি সংগঠিত খাতে রূপান্তর করতে সহায়তা করবে।

মহিলা উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করা এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য।

• আদিবাসী অঞ্চল গুলির বনজ উৎপাদনের দিকে বিশেষ দৃষ্টি দেওয়া হবে এই প্রকল্পে।

• প্রায় ২৫ লক্ষ খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ইউনিট রয়েছে। যেখানে কর্মসংস্থানের কথা ভাবা হচ্ছে।এই ইউনিট গুলোর প্রায় ৬৬% গ্রামাঞ্চলে অবস্থিত।

• এই প্রকল্পের আওতায় মাইক্রো ফুড উদ্যোক্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা।

• তাদের প্রযুক্তিগত জ্ঞান সরবরাহ করাও এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য।

• উদ্যোক্তাদের ঋণের পরিমাণ বাড়িয়ে বিদ্যমান মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইজগুলির প্রযুক্তির উন্নীতকরণ করা।

• কৃষক উৎপাদক সংস্থা (এফপিও), স্বনির্ভর গোষ্ঠী, এবং প্রযোজক সমবায় সমিতিকে তাদের পুরো মূল্য তহবিলের সাহায্যে সাধারণ পরিষেবাগুলি পেতে মাইক্রো এরেন্টারপ্রাইজগুলি সহায়তা করবে।

• বিদ্যমান অসংগঠিত মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইজগুলিকে আনুষ্ঠানিকভাবে-গঠনগত কাঠামোর আওতায় আনতে নিয়ন্ত্রণমূলক পরিকাঠামো তৈরি করা এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য।

২. এই প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে জানুন:

• সংগঠিত সরবরাহের চেইনের সাথে বিদ্যমান সংস্থাগুলির ব্র্যান্ডিং এবং বিপণনকে আরও জোরদার করবে।

• কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির জন্য 100 শতাংশ কেন্দ্রীয় সহায়তা দেওয়া হবে।

• কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যকে অনুমোদিত প্রকল্প বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে  তহবিল সরবরাহ করবে এই প্রকল্পে।

• এই প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে আধুনিক প্রযুক্তি ও সরঞ্জামগুলির উন্নয়ন, প্রশিক্ষণ, প্রাতিষ্ঠানিক ঋণের সুবিধা দেওয়া।

• রাজ্যগুলি বিদ্যমান ক্লাস্টার এবং কাঁচামালগুলির প্রাপ্যতা বিবেচনায় একটি জেলার জন্য একটি খাদ্য পণ্য চিহ্নিত করা হবে।

• যে জেলায় সেই খাদ্য পণ্যের উৎপাদন হার সবথেকে বেশি অর্থাৎ ওডিওপি -(ODOP/ one district one product )।প্রধানমন্ত্রী এফএমই প্রকল্পটি এমন একজন উদ্যোক্তাকে অগ্রাধিকার দেবে, যারা ওডিওপি পদ্ধতির অধীনে পণ্য উৎপাদন করবে।

• এই জাতীয় পণ্যের একটি তালিকা রয়েছে যেমন আম, আলু, লিচু, টমেটো, ভূজিয়া,পাপড়, আচার, বাজার ভিত্তিক পণ্য, মৎস্য, হাঁস-মুরগি এবং মাংস ইত্যাদি।

৩. এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য যোগ্যতার মানদন্ড কী হতে পারে:

• উদ্যোক্তাদের অবশ্যই ভারতীয় হতে হবে।

• উদ্যোক্তার বয়স 18 বছরের বেশি হতে হবে তবেই এই স্কিমের আওতায় আসতে পারবেন।

• উদ্যোক্তার কমপক্ষে অষ্টম শ্রেণির পাসের শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকা দরকার।

• এই প্রকল্পের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ফল ও শস্য গুলো হল আম, কলা, পেয়ারা, কিউই, লিচু, পেঁপে,আনারস,বেদানা, কাঁঠাল। শাকসবজি র মধ্যে রয়েছে: ফরাসি মটরশুটি, বেগুন, ক্যাপসিকাম, গাজর, ফুলকপি, সবুজ লঙ্কা, ওকড়া, পেঁয়াজ, আলু এবং টমেটো।

• আর্থিক সহায়তা পাওয়ার জন্য, ওই ব্যক্তিকে কমপক্ষে তিন বছরের জন্য ওডিওপি উৎপাদন প্রক্রিয়াকরণে নিযুক্ত থাকতে হবে।

৪. এই প্রকল্পের ঋণের পরিমাণ:

• এক পরিবারের একজন মাত্র ব্যক্তি এই প্রকল্পের আওতায় আর্থিক সহায়তা পাওয়ার জন্য যোগ্য হবে।

• মাইক্রো এন্টারপ্রাইজ গুলি ১০ লক্ষ টাকা প্রকল্প খাতের ব্যয়ে ৩৫% ঋণ ভর্তুকি পাবে।

• স্বনির্ভর গোষ্ঠী (এসএইচজি)গুলোকে ৪০,০০০ টাকা সরবরাহ করা হবে মাইক্রো ফুডের ছোট সরঞ্জাম ক্রয় করার জন্য ও ব্যাবসায়িক খাতে ব্যবহার করার জন্য।

রাজ্য বা আঞ্চলিক স্তরে ৫০% ঋণ অনুদান সহ মাইক্রো ইউনিট এবং গোষ্ঠীর ব্র্যান্ডগুলির উন্নতি সাধন করতে সহায়তা সরবরাহ করা হবে যা এই ফুড ইউনিট গুলোর পথকে আরও প্রশস্ত করতে ব্যাপক সাফল্য দেবে।

৫. এই প্রকল্পে আবেদনের নিয়ম জানুন:

• এই প্রকল্পের আওতায় সহায়তা চাওয়ার জন্য বিদ্যমান খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ইউনিটগুলিকে এফএমই পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। যেমন mofpi.nic.in

• যেহেতু প্রকল্পে আবেদন করার জন্য তিনটি ভাগে উদ্যোক্তাদের ভাগ করা হয়েছে যেমন স্বতন্ত্র বা নিজস্ব মাইক্রো এন্টারপ্রাইজ,কৃষক প্রযোজনা সংগঠন, স্বনির্ভর গোষ্ঠী।

প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা সুবিধা ও লাভ - PM FME Scheme
প্রধানমন্ত্রী মাইক্রো ফুড প্রসেসিং যোজনা সুবিধা ও লাভ – PM FME Scheme

ফলে তিনটি আলাদা আলাদা গোষ্ঠীর জন্য প্রয়োজনীয় আবেদন ফর্ম এই অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে পেয়ে যাবেন।আবেদনের তথ্য সহ,গঠন, বিভিন্ন লিস্ট প্রতিটি বিভাগের জন্য পৃথক পৃথকভাবে সজ্জিত রয়েছে।

এই ফর্মটি সরাসরি এক্সেল শীটে পূরণ করতে হবে এবং হার্ড কপিটিতে আবেদনকারীকে স্বাক্ষর করতে হবে।তারপরে অনলাইনে অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে পরবর্তী পর্যায়ে ওয়েবসাইটে এই এক্সেল শীটটি আপলোড করতে হবে।প্রতিটি নির্দেশ অনুযায়ী প্রত্যেকটি বক্স পূরণ করতে হবে।

সম্পূর্ণ আবেদনপত্রগুলি পূরণ করে সরাসরি রাজ্য নোডাল এজেন্সিগুলিতে বা জেলা পরিসরের এজেন্সিতে জমা দিতে হবে। রাজ্যের নোডাল এজেন্সির লিস্ট এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে।

৬. এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য প্রাথমিক কী কী তথ্য প্রয়োজন:

  • আধার কার্ড
  • ঠিকানা
  • নাম
  • মোবাইল নম্বর
  • প্যান কার্ড
  • ছবি
  • শেষ ৬ মাসের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এর বিবরণ
  • শস্য উৎপাদনের পরিমাণ ও পূর্বের ইতিহাস
  • সারের লাইসেন্স
  • শস্য বীজের লাইসেন্স
  • আমদানি এক্সপোর্ট লাইসেন্স
  • ডাইরেক্ট মার্কেটিং লাইসেন্স
  • জিএসটির শংসাপত্র যদি চাওয়া হয়

অসংগঠিত খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ খাত বেশ কয়েকটি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে যা তাদের কার্য সম্পাদন এবং তাদের বৃদ্ধির পথে বাধার সৃষ্টি করেছে। এই সমস্যার মধ্যে রয়েছে আধুনিক প্রযুক্তি ও সরঞ্জামগুলির অ্যাক্সেসের অভাব, প্রশিক্ষণ, প্রাতিষ্ঠানিক পর্যাপ্ত ঋণের অভাব,পণ্যগুলির মান নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে প্রাথমিক সচেতনতার অভাব এবং ব্র্যান্ডিং এবং বিপণনের দক্ষতার অভাব ইত্যাদির কারণে সরকার এই মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইজ স্কিমের প্রচলন করেছেন যার আওতায় এই অসংগঠিত ক্ষেত্রগুলোতে উন্নয়ন করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে

কেন্দ্র সরকারের সমস্ত যোজনাClick Here
পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত প্রকল্পClick Here
বাংলাভুমি হোমClick Here
Official WebsiteClick here

Leave a Comment