পার্সোনাল লোনের জন্য কিভাবে আবেদন – How to Apply for Personal Loan

Personal Loan in India: How to Apply for Personal Loan

আজকাল মধ্যবিত্তদের মাঝে পার্সোনাল লোন (Personal Loan) ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অফিসে প্রায়ই শুনা যায় সহকর্মীরা কেউ কেউ ব্যাংক থেকে পার্সোনাল লোন নিয়ে ব্যক্তিগত প্রয়োজন মিটিয়েছে।

শুধু আপনার পরিচিতজনের মাঝেই নয়, আরো অনেক মানুষই এখন তাদের জীবনের বাড়তি ব্যয় মেটাতে পার্সোনাল লোনের জন্য আবেদন করছে।

পারসোনাল লোনের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির অন্যতম কারণ হলো অনিরাপদ লোন হওয়ায় এর জন্য কোনও জামানত প্রয়োজন হয় না এবং প্রসেসিংয়ের জন্য সময় খুব কম লাগে।

How to Apply for Personal Loan
How to Apply for Personal Loan in Bangla

তাই আপনার পছন্দের কোনও ব্যাংক বা নন-ব্যাংকিং আর্থিক সংস্থার কাছ থেকে আপনি সহজেই পার্সোনাল লোন নিতে পারবেন।

ব্যাংকের অনলাইন সেবা শুরু হবার পর থেকে এখন আপনার আবেদনের মাত্র ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই এই লোনের টাকা পেয়ে যেতে পারেন।

আসুন আজ দেখে নি পার্সোনাল লোন কি এবং পার্সোনাল লোনের জন্য কিভাবে আবেদন করতে হয়।

 

পার্সোনাল লোন কি ?

পার্সোনাল লোন হলো ব্যাংক না আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দেয়া অনিরাপদ লোন, যা প্রদানের সম্ভাব্যতা ও পরিমান ব্যক্তির বিভিন্ন মানদন্ডের উপর নির্ভর করে।

এই মানদন্ডের মাঝে রয়েছে পেশা, চাকরীর অবস্থান, মাসিক আয়, লোন পরিশোধের ক্ষমতা, পূর্বের নেয়া লোন পরিশোধ করার ইতিহাস, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির ক্রেডিট রেটিং ইত্যাদি।

এটা ব্যক্তিগত লোন হওয়ায় বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা যায় এবং এই লোন নিয়ে লোন গ্রহিতা তার যেকোন প্রয়োজন মেটাতে পারেন। তাই সাধারনের কাছে পার্সোনাল লোন দ্রুত জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।

 

পার্সোনাল লোনের জন্য কিভাবে আবেদন করতে হয়?

আমরা অনেকেই মনে করি ব্যাংক থেকে লোন নেয়া অনেক ঝক্কি ঝামেলার ব্যাপার। অনেক কাগজপত্র, দলিল, জামানত দেখাতে হবে, তাই আমরা সহজে ব্যাংক লোনের শরণাপন্ন হতে চাই না।

কিন্তু বাস্তবে পার্সোনাল লোন নিতে খুব জটিল কোন ডকুমেন্টস লাগেনা, তাই পার্সোনাল লোন খুব সহজেই এবং কম সময়ে নেয়া যায়। আসুন দেখে নি পার্সোনাল লোন নিতে কি কি যোগ্যতা থাকা প্রয়োজন।

ক্রমিক বিবরন শর্ত

ক্রমিক বিবরন শর্ত
বয়স ২১-৬০ বছর
জাতীয়তা ভারতীয়
পেশা চাকরীজীবি অথবা ব্যবসায়ী (কমপক্ষে ২ বছরের অভিজ্ঞতা)
নুন্যতম আয় গ্রাম ও শহরভেদে ৪০০০ টাকা থেকে ২০০০০ টাকা
সময় নূন্যতম ৬ মাস থেকে ৫ বছর
সর্বোচ্চ লোনসীমা ৭০ লক্ষ টাকা
ক্রেডিট স্কোর ৭৫০

পার্সোনাল লোনের জন্য কি কি ডকুমেন্টস প্রয়োজন

১) ব্যক্তির স্বাক্ষর করা আবেদনপত্র।

২) ৩ টি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।

৩) সর্বশেষ ছয়মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট।

৪) নিজের পরিচয়পত্র এবং ঠিকানার প্রমানের ফটোকপি (ভোটার কার্ড, PAN কার্ড, পাসপোর্ট বা ড্রাইভিং লাইসেন্স)।

৫) এমপ্লইয়ি আইডি কার্ডের ফটোকপি।

৬) বিদ্যুত বিল অথবা টেলিফোন বিলের ফটোকপি।

৭) আয়কর প্রদানের তথ্য।

 

পার্সোনাল লোন পেতে কি কি বিষয় ভূমিকা পালন করে থাকে?

অনেক সময়েই দেখা যায় যে, একসাথে পার্সোনাল লোনের আবেদন করেও দুইজন ব্যক্তি সমান অংকের লোন পান না।

এর কারন অনেক কিছুর উপর নির্ভর করে। আসুন জেনে নি কি কি বিষয়ের উপর পার্সোনাল লোনের অংক নির্ধারিত হয়।

১) স্থানঃ আপনি কোথায় থাকেন এটা অনেকটা গুরুত্বপূর্ন । কারন শহরে ও গ্রামের মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয়ের অনেক পার্থক্য।

পার্সোনাল লোন পেতে হলে গ্রামের মানুষের চাইতে শহরের মানুষের নূন্যতম আয় বেশী হতে হয়।

২) আয়ঃ আপনার মাসিক আয় এ ক্ষেত্রে অনেকটা গুরুত্ববহন করে থাকে।

আপনার মাসিক আয় ১৫ হাজার টাকা হলে আপনাকে যত টাকা লোন পাবার উপযোগী হবেন, আপনার মাসিক আয় ১ লক্ষ টাকা হলে আপনি তার কয়েকগুন লোন পাবার জন্য বিবেচিত হতে পারেন।

৩) বাড়ির অবস্থাঃ আপনার বসত বাড়ির অবস্থার উপরও পার্সোনাল লোন দেয়ার হার অনেকটা নির্ভর করে থাকে।

৪) কোন প্রতিষ্ঠানে কাজ করেনঃ আপনি কোন প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন সেটা পার্সোনাল লোন নেয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্ববহন করে থাকে।

আপনার প্রতিষ্ঠান যদি অনেক বড় এবং সুনামধারী হয়, তবে আপনার লোন পাবার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যাবে।

৫) বর্তমান লোনের পরিমানঃ আপনার যদি বর্তমান কোন লোন থাকে সেটা কি পরিমান অংকের সেটা পার্সোনাল লোন নেয়ার সময় বিবেচ্য বিষয় হয়ে থাকে।

৬) পূর্বের লোন পরিশোধের ইতিহাসঃ আপনার পূর্বে লোন নেয়া থাকলে সেই লোন পরিশোধ করার ইতিহাস ব্যাংক কর্মকর্তা খতিয়ে দেখবেন এবং আপনি পূর্বের লোন ভালোভাবে পরিশোধ করার রেকর্ড থাকলে আপনার পার্সোনাল লোন পেতে সুবিধা হবে।

 

আজ আমরা পার্সোনাল লোনের সংজ্ঞা, কিভাবে আবেদন করতে হয়, কি কি বিষয়ের উপর নির্ভর করে তা জানতে পারলাম। আগামীতে আমরা পার্সোনাল লোন নিয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা আপনাদের জন্য নিয়ে আসবো।

Leave a Comment