ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধি করার ৫টি অব্যর্থ উপায় | Best 5 Ways to Increase Your Willpower

মানুষের সবচেয়ে বড়শক্তি হচ্ছে ইচ্ছাশক্তি। কারণ ইচ্ছাশক্তিই আমাদের কাজ করতে অনুপ্রানিত করে।

অনেক সময় আমরা ইচ্ছাশক্তির অভাবে নানান ধরনের হতাশা দুশ্চিন্তা ও মানসিক রোগের দ্বারা আক্রান্ত হয়ে পড়ি।

এরফলে কাজের আগ্রহ হারিয়ে ফেলি আমরা। হতাশায় ঘিরে ধরে আমাদের। কাজ করার সময়, বাধাবিপত্তির বা ভবিষ্যতের কথা চিন্তা না করে নিজের পুরোটা দিয়ে চেষ্টা করুন।

ইচ্ছাশক্তিকে প্রবল রাখুন, ইচ্ছাশক্তিকে স্থায়ী করার চেষ্টা করুন। কারণ কাজের ইচ্ছা নির্ভর করে কাজের প্রতি আগ্রহের ওপর। কতটা আগ্রহের সাথে কাজ করছেন তার ওপরই নির্ভর করে আপনার ইচ্ছা কতক্ষণ স্থায়ী হবে।

গবেষকরা গবেষণা করে মানুষের ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধির কিছু উপায় বের করেছেন। তাদের গবেষণায় বলা হয়েছে যে, ইচ্ছাশক্তি একটি পেশির ন্যায়, যা বেশি কাজ করার দরুন ক্লান্ত হয়ে পড়ে এবং সে ক্লান্তিকে পূরণ করতে পরিমিত খাদ্য দরকার।

গবেষণায় এটাও প্রমাণিত হয়েছে যে, সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমে দেহের অন্যান্য পেশির মত ইচ্ছাশক্তির ক্ষমতাও বাড়ানো সম্ভব। ইচ্ছাশক্তি প্রবল হলে মানুষ পারে না এমন কোনো কাজ নেই।

আজ আমরা আলোচনা করব, কিভাবে ইচ্ছাশক্তি বাড়ানো যায়, সেটার উপায় ও কৌশল নিয়ে। আশা করি পুরো পোস্টটি পড়বেন।

ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধির ৫ টি অব্যর্থ উপায়:

১. অনেক কাজে একই সময়ে মন না দেওয়া

একই সময়ে অনেক কাজকে প্রাধান্য দিলে মন বিক্ষিপ্ত হয়ে যায়। তখন কোন কাজেই পূর্ণ মনোযোগ দেওয়া সম্ভব হয়না। তাই অনেক কাজ একই সাথে সম্পন্ন করার মানসিকতা পরিহার করুন।

একটি কাজ আগে শেষ করে পরে আরেকটি কাজে হাত দিন। এতে করে আপনার মনোযোগ বাড়বে।মনে করুন আপনি পড়ছেন, আর ফোনে ভিডিও দেখছেন।

খেয়াল করে দেখবেন কখনো আপনি ভিডিওর কিছু অংশ মিস করছেন, কখনো পড়ার বিষয়গুলো মিস করছেন, ভুলে যাচ্ছেন। কোনটিই ভালভাবে হচ্ছেনা। এরচেয়ে যেকোন একটি কাজ আগে শেষ করে নিন। তাহলে দুটি কাজেই মন দিতে পারবেন।

আর এভাবেই নিজের ইচ্ছাশক্তি প্রয়োগের ক্ষমতা বাড়াতে পারবেন।

২.মনোযোগী হওয়ার চর্চা করা

যদি মনোযোগের অভাব আপনার জীবনে একটি বড় সমস্যা হয়ে থাকে, তবে প্রতিদিন এমন কোন কাজ করুন যাতে মমোযোগ দিতে আপনার কষ্ট হয়।

প্রতিদিন যতটুকু সময় এই কাজে মন দেবেন পরদিন মনোযোগের সময় আরেকটু বাড়াবেন। এভাবে প্রতিদিন অনুশীলনের ফলে মনোযোগ দেওয়ার ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

আর এই পুরো কাজটিই আপনি করতে পারছেন ইচ্ছাশক্তির জোরে, তাই এটা করতে গিয়ে আপনার ইচ্ছাশক্তিই বাড়ছে।

৩. নিজের ভাগ্য বদলাতে পরিশ্রমী হোন

পরশ্রীকাতরতায় না ভুগে নিজের যা কিছু নেই তা অর্জনের চেষ্টা করতে হবে। আর তার জন্য পরিশ্রমী হওয়া আবশ্যক।

সবারই সবকিছু থাকেনা, কিন্তু যার যা নেই, তা অর্জন করার চেষ্টা তাকেই করতে হয়। তা না করে পরের কি আছে সেটা নিয়ে আক্ষেপ করলে কখনোই আপনি জীবনে কিছু অর্জন করতে পারবেন না। আর এই বোধশক্তিই আপনার ইচ্ছাশক্তি আরো বাড়াতে সাহায্য করবে।

৪. নিজেকে মোটিভেট করুন

আপনার জীবনের জন্য যা কিছু দরকার,তা আপনাকেই করতে হবে। অন্য কেউ করে দেবেনা কিছুই। এই চিন্তাই আপনার ইচ্ছা শক্তি বাড়াতে সহায়ক হবে। আর আপনি তখনই অসাধ্য সাধনে ব্রতী হবেন, যখন নিজেকে নিজে মোটিভেট করবেন।

আপনার উচিত হবে এমন কিছু করা বা এমন কারো কথা শোনা বা এমন কারো সঙ্গে মেলামেশা করা যে আপনাকে প্রেরণা যোগায়। প্রতিদিন নিজেকে মোটিভেট করতে কিছুক্ষণ সময় বরাদ্দ রাখুন। এটা ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধি করার সবচেয়ে ভাল উপায়।

৫. সাফল্য লাভের তীব্র আকাঙ্ক্ষা

সফলতা লাভই যদি আপনার জীবনের একমাত্র লক্ষ্য হয়, তবে আপনিই পারেন নিজেকে পরিবর্তন করতে। সাফল্য লাভের স্বপ্নই আপনাকে সব অসাধ্য করতে সাহায্য করবে।

হেরে গিয়ে লক্ষ্য পরিবর্তন করবেন না। যারা প্রতিকূল পরিস্থিতি দেখে লক্ষ্য পরিবর্তন করে ফেলে তারা কখনোই সফল হতে পারেনা। কারণ সফল হওয়ার আগেই তারা হাল ছেড়ে দেয়, আর ভাবে যে, তাদেরকে দিয়ে জীবনে কিছুই হলনা, তাদের কোন স্বপ্নই জীবনে পূরণ হয়নি।

কিন্তু সত্য হচ্ছে, তারা তাদের সাফল্য অর্জনের ব্যতীত বিকল্প কোন লক্ষ্যও স্থির করে রেখেছে। যার ফলে তারা পুরোটা দিয়ে চেষ্টা করেনি। এজন্য সফল হয়নি। লক্ষ্য নির্দিষ্ট রাখুন, এবং সেটা পাওয়ার জন্য চেষ্টা করুন। ইচ্ছাশক্তি এভাবেই বৃদ্ধি পাবে।

উপসংহার

আমরা ইচ্ছাশক্তির জোরেই জীবনে টিকে থাকি। যাই আমরা করি, তা আমাদের ইচ্ছা থেকেই করি, ইচ্ছাশক্তি প্রবল হলে যেকোন কাজ করাই সম্ভব। আর ইচ্ছাশক্তি থাকাটা নির্ভর করে চাহিদা, ব্যক্তিত্ব ও পারিপার্শ্বিক অবস্থার উপর।

যাই ঘটুক না কেন, হতাশ হওয়া চলবে না। যে কোনো কাজই কঠিন হতে পারে কিন্তু অসম্ভব নয়। এটা ভেবে নিজের ইচ্ছাশক্তি বাড়ানোর জন্য উপরিউক্ত উপায়গুলো অনুসরণ করুন। আশা করি ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধি করতে অবশ্যই সফল হবেন।

পোস্টটি কেমন লাগলো অবশ্যই জানাবেন, পোস্টটির বিষয়ে কোন তথ্য জানানোর হলে বা কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করুন।

আমরা অবশ্যই তথ্য জানিয়ে আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব। আজকের মত এখানেই শেষ করছি।

ধন্যবাদ সবাইকে।

Leave a Comment