ব্রেকআপের পর কি করণীয়? জেনে নিন

প্রতিটি মানুষ তার জীবনে ভালবাসার প্রয়োজন অনুভব করে। ভালবাসা ছাড়া আমরা সবাই অসম্পূর্ন। আমাদের মনের অনুভূতি,,চাওয়া-পাওয়া, আবেগ প্রকাশের জন্য, সুখ-দুঃখ ভাগ করে নেওয়ার জন্য আমাদের জীবনে একজন আপন মানুষ প্রয়োজন হয়।

শুধুমাত্র এ কারণেই নয়, ভাললাগা থেকেও আমরা ভালবেসে ফেলি। একসাথে শুরু হয় পথচলা। কিন্তু জীবনের মতই কোন কিছুই চিরস্থায়ী নয়। একসাথে চলার মধুর দিনগুলোতে একদিন বিদায়ের সুর বাজতেই পারে।

দুজন মানুষের মনের মিল থেকে যে পথচলার শুরু হয়েছিল, একজনের অথবা দুইজনের মনোমালিন্য, দ্বন্দ্ব, বদলে যাওয়া থেকে সেই ভালবাসা হারিয়ে যেতে পারে। ভালবাসা না থাকলে সম্পর্কটাও একসময় হারিয়ে যায়। সম্পর্কের ইতি টানাই হচ্ছে ব্রেকআপ।

সম্পর্ক ভেঙে যাওয়া আমাদের জীবনের অন্যতম দুঃসহ ঘটনা। কেউই তিলতিল করে গড়া সম্পর্ক ভাঙতে চায়না, কিন্তু নিয়তির অমোঘ নিয়মে সেটা ভেঙে যেতেই পারে। কিন্তু ব্রেকআপের পর নিজেকে সামলানো একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়ায়। অনেকেই এই সময়ে ভেঙে পড়েন, নিজেকে কষ্ট দিয়ে থাকেন। যেটা করা উচিত নয়।

সুপ্রিয় পাঠক আজ আমাদের আলোচনার বিষয় হচ্ছে ব্রেকআপের পর করণীয় কি এ বিষয়টি। চলুন দেরী না করে আলোচনা শুরু করা যাক।

ব্রেকআপের পর করণীয় জেনে নিন

১. একা থাকবেন না

ব্রেকআপের পর নিজেকে খুবই অসহায় এবং ব্যর্থ বলে মনে হয়। এ সময়ে একা থাকবেন না। একা থাকলেই আগের স্মৃতি মনে পড়ে যাবে, এবং হতাশার মাত্রাও বেড়ে যাবে।

এজন্য এ সময় অন্যদের সাথে সময় কাটান, কোথাও ঘুরতে যান। বন্ধুদের মধ্যে যে সিঙ্গেল তার সাথে সময় কাটান। এভাবে একটা সময় দেখবেন আর খারাপ লাগছে না।

বা খারাপ লাগলেও সেটা আর অসহ্য লাগছে না। জীবনে কিছু হতাশা আর দুঃখবোধ মেনে নিয়েই আমাদের পথ চলতে হয়।

২. নিজের যত্ন নিন

ব্রেকআপের পর আমরা যে ভুলটি করে থাকি, তা হচ্ছে নিজের প্রতি অবহেলা। নিজের প্রচন্ড অযত্ন করে থাকি আমরা। এতে করে সমস্যার কোন সমাধান হয়না, কিন্তু আমাদের অনেক ক্ষতি হয়ে যায়।

ব্রেকআপের কারণ যা ই হোক, আপনার দুঃখে থাকা আপনার দূর্বলতা হিসেবে বিবেচিত হবে। তাতে প্রাক্তন ফিরে আসবে না, বা আপনার ভবিষ্যত ভাল হবে না। নিজের যত্ন নিন, নিজেকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলুন। যেটা ব্রেকআপের আগে ছিলেন না।

এতে করে প্রাক্তন ফিরেও আসতে পারে, আবার আপনার জীবনে সঠিক মানুষটির দেখা পেয়ে যেতে পারেন। আর সবই সম্ভব হবে নিজের যত্ন নিলে।

৩. ক্যারিয়ারে মন দিন

আমরা যতই আবেগ প্রবণতা দেখাই না কেন, দিনশেষে সবাই ক্যারিয়ারের পিছনেই ছুটছে। আপনি বা আপনার সঙ্গী যেমনই হোক আপনাদের ক্যারিয়ার যদি ভাল হয়, নিজেদের মধ্যে অন্যরকম টান অনুভব করবেন।

বেশীরভাগ সম্পর্কের ইতি ঘটে ক্যারিয়ার না থাকায়। মনে রাখবেন একটি মানুষের সাথে সম্মানহীনভাবে টিকে থাকার চেয়ে, সম্মানের সাথে দূরে চলে যাওয়া ভাল।

আপনি যখন সফল ক্যারিয়ার গড়বেন, তখন বিচ্ছেদের কষ্ট আর আপনাকে পীড়া দিতে পারবে না। তাই সব ভুলে নিজের ক্যারিয়ারে মন দিন। জীবনে সব কিছুই ফিরে পাবেন।

৪. স্মৃতিজড়িত সবকিছু আড়াল করুন

বেশীরভাগ সময়ে ব্রেকআপের পর প্রাক্তনকে ভুলে যাওয়া অসম্ভব হয়, তারসাথে কাটানো সময়, তার দেওয়া গিফট, তার সাথে থাকা স্থানের স্মৃতির জন্য। এগুলো থেকে প্রাথমিকভাবে দূরে থাকুন।

সমস্ত গিফট, ছবি এবং অন্যান্য জিনিস চোখের আড়ালে রাখুন, যাতে কখনোই সেগুলো চোখে না পড়ে। চোখের আড়ালে থাকলে ভালবাসা আস্তে আস্তে কমতে থাকবে। আপনি এই অবস্থায় মানিয়ে নিতে পারবেন।

৫. ভুল থেকে শিক্ষা নিন

ব্রেকআপ কোন কারণছাড়া হয়না। সেখানে আপনারও ভুল থাকতে পারে, আপনার প্রাক্তনেরও ভুল থাকতে পারে। অনেকসময় কারো ভুলে নয়, পরিস্থিতির জন্য ব্রেকআপ হয়ে যায়। এগুলো থেকে শিক্ষা নিন।

আপনার কারণে ব্রেকআপ হয়ে থাকলে আপনার কি ভুল ছিল সেগুলো খুঁজে বের করুন। পরবর্তীতে নিজেকে সংশোধন করুন। আর প্রাক্তনের ভুল থাকলে এরকম ধরনের অন্যকোন মানুষের সাথে পরবর্তীতে জড়ানো থেকে বিরত থাকুন।

প্রথমদিকে মনে হবে আর কখনোই সম্পর্কে জড়াবেন না, কিন্ত জীবনে সঠিক মানুষ চলে আসলে আপনি আবার প্রেমে পড়বেন। আর তখন যেন আগের ভুলগুলোর পুনরাবৃত্তি না হয়, যেটাই লক্ষ্য রাখুন।

উপসংহার

ব্রেকআপ একটি সাধারণ শব্দ কিন্তু এর পরিনতি অনেকের জন্যই ভয়াবহ। অনেকেই সুইসাইড পর্যন্ত করতে যান ব্রেকআপ হলে। এগুলো থেকে বিরত থাকুন। জীবন অনেক সুন্দর, কারো জন্য নিজেকে শেষ করে না তার চোখে বড় হতে পারবেন, না নিজের পরিবারকে ভাল রাখতে পারবেন। এজন্য নিজেকে সময় দিয়ে কষ্টটা মানিয়ে নিতে হবে।

আশা করি ব্রেকআপের পর করণীয় সম্পর্কে ধারণা দিতে পেরেছি। এ বিষয়ে কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন।  আজকের মত এখানেই শেষ করছি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Comment