রাম নবমী 2024 তারিখ ও সময় | Ram Navami 2024 Date & Muhurat

রাম নবমী 2024 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের রাম নবমী 2024? রাম নবমীর শুভ সময় কখন? জানুন 2024 রাম নবমীর মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে রাম নবমী? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও রাম নবমীর তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

রাম নবমী তারিখ ও সময় | Ram Navami Date & Muhurat
রাম নবমী 2024 তারিখ ও সময় | Ram Navami 2024 Date & Muhurat

রাম নবমী 2024 (Ram Navami 2024): হিন্দু ধর্ম অনুসারে ভগবান শ্রী রামচন্দ্র এই দিনটিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাই তার ভক্তরা এই দিনটিতে রাম নবমী হিসেবে উদযাপন করে থাকেন। তাছাড়া এই উৎসবটি সমগ্র দেশে শ্রদ্ধা ও বিশ্বাসের সঙ্গে উদযাপন করা হয়।

এই বছর রাম নবমী 2024 কবে?

Ram Navami Puja
17 April 2024
Wednesday

Navami Muhurat Start
1:20 PM on 16 April 2024
Navami Muhurat End
3:20 PM on 17 April 2024

রাম নবমীর বাংলায় তারিখ

রাম নবমী পূজা
১৭ এপ্রিল ২০২৪
বুধবার

নবমী মুহূর্ত শুরু
১৬ এপ্রিল ২০২৪, দুপুর ১ঃ২০ টায়
নবমী মুহূর্ত শেষ
১৭ এপ্রিল ২০২৪, দুপুর ৩ঃ২০ টায়

 

বিভিন্ন রকমের উৎসবের পাশাপাশি একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উৎসব হল এই রাম নবমী, যা কিনা চৈত্র মাসের নবম দিনে শুক্লপক্ষ তে হয়ে থাকে এবং ইংরেজি মাসের মার্চ ও এপ্রিলের মধ্যে। উৎসবের নাম দিয়েই জানা যায় যে রামচন্দ্রের সাথে জড়িত এই উৎসব।

2024 রাম নবমী শুভেচ্ছা বার্তা ও স্ট্যাটাস ছবি

রাম নবমী উৎসবের তাৎপর্য 2024: 

রামনবমীর এই দিনটি নবরাত্রীর শেষ দিন সুতরাং দুটি প্রধান হিন্দু উৎসব একসাথে, এই উৎসবটির গুরুত্ব আরো বেশি বাড়িয়ে তোলে। রামনবমীর উপবাস করলে পাপের ক্ষয় হয় এবং শুভ ফল দেয় বলে মনে করা হয়।

রাম নবমী উপলক্ষে আবৃত্তি, ভজন, কীর্তন এর আয়োজন করা হয়। দেশের প্রতিটি প্রান্তে উৎসবের আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে। এই দিন বেশিরভাগ মানুষ উপবাস করে থাকেন এবং নদীতে স্নান করে সমস্ত ভক্তরা রামের আশীর্বাদ গ্রহণ করেন।

রামচন্দ্রের ত্যাগ মানুষকে অনেক বেশি শান্ত করতে সাহায্য করে। কেননা তিনি রাজ পরিবারে জন্মগ্রহণ করার পরেও রাজবাড়ীর সমস্ত আরাম, আয়েশ ছেড়ে দিয়ে বনের জীবনকে মেনে নিয়েছিলেন, শুধুমাত্র পিতার আদেশে। সেই কারণে রামচন্দ্রের আশীর্বাদ গ্রহণ করার জন্য তার জন্মতিথিতে প্রতিবছর রাম নবমী উৎসব পালন করা হয়।

এই উৎসবটি পালন করার পদ্ধতি বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। বিশেষ করে অযোধ্যা ও বানারসে গঙ্গা ও সরায়ু নদীতে স্নান করে এবং ভগবান রাম, সীতাহনুমানের রথযাত্রা আয়োজন করা হয়। একইভাবে সিতামণি, অযোধ্যা, বিহার এই সমস্ত জায়গায় বিভিন্ন অনুষ্ঠান এর আয়োজন করা হয় আনন্দ উৎসব উপভোগ করার জন্য।

অনেক জায়গায় প্যান্ডেল করে সেখানে ভগবান রামের প্রতিমা স্থাপন করা হয়। ঘরে ঘরে ক্ষীর, পুলি, হালুয়া, রান্না করা হয়। অনেক জায়গায় রামায়ণ এবং গান হয়, রামায়ণ পাঠ করা হয়, রথযাত্রা বের হয়, মেলার আয়োজন করা হয়, এইভাবে বিভিন্ন জায়গায় আলাদা আলাদা পদ্ধতিতে উদযাপন করা হয় রামনবমী উৎসব। যা কিনা রামচন্দ্রের জন্মদিন পালন করার সাথে সাথে আনন্দ উৎসবের শুরুটাও হয়ে যায়।

ভারতের বিভিন্ন জায়গায় বহু রাম মন্দিরে রঙিন ফুল এবং আলোকসজ্জার সঙ্গে এই রামনবমী উৎসবটির আয়োজন করা হয়। পবিত্র নদীতে স্নান করে পারেণ্যের সাথে ঈশ্বরের নাম জপ করে মন্ত্র উচ্চারণ করেন। শ্রী রামচন্দ্রের আশীর্বাদ পাওয়ার জন্য অনেক হিন্দু ভক্ত রামনবমী উপলক্ষে উপবাস ও রাখেন।

রামচন্দ্রের জন্মের উদ্দেশ্য সমাজে অধর্মকে ধ্বংস করে ধর্মের প্রতিষ্ঠা করা। তেমনি রামচন্দ্রের ত্যাগ, ধৈর্য এবং সহ্য শক্তি মানুষকে অনুপ্রাণিত করে জীবনে চলার পথে। সেই কারণে এই রামনবমী উৎসব শ্রী রামচন্দ্রের জন্মদিন পালনের সাথে সাথে তার আশীর্বাদ প্রাপ্ত করার জন্য নিষ্ঠা ভরে পূজা, ব্রত ও উপবাস রাখা হয়।

তাছাড়া এই দিনে সমস্ত রাম মন্দির সেজে ওঠে ফুল আর আলোক সজ্জায়। স্থানীয় জায়গাতে মেলা, রামায়ণ পাঠ, গান ইত্যাদি চলে বেশ কয়েক দিন ধরে। যেটা স্থানীয় মানুষদের কাছে এই রামনবমী উৎসবকে অনেক বেশি আনন্দমুখর করে তোলে।

চৈত্র মাসে বিভিন্ন ধরনের উৎসব লেগেই রয়েছে। তার মধ্যে এই রামনবমী উৎসব একেবারে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎসব হিসেবে পরিচিত। ফুল, ফল, নৈবেদ্য অর্পণ করে দেশের বিভিন্ন কোণ ফুল ও আলোকসজ্জায় সেজে ওঠে। যেন সমস্ত দেশ এর সাথে সাথে প্রকৃতিও সেজে ওঠে বিভিন্ন রঙে।

রামনবমী উৎসব উপলক্ষে আনন্দ অনুষ্ঠান চলে অনেকদিন যা ছোট থেকে বড় সকলের কাছে রামনবমী উৎসবকে আরো বেশী গুরুত্বপূর্ণ করে তোলে, তাই সারা বছর ধরে এই দিনটির জন্য অপেক্ষা করে থাকেন বহু মানুষ।

Leave a Comment