সীতা নবমী 2024 তারিখ ও সময় | Sita Navami 2024 Date & Muhurat

সীতা নবমী 2024 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের সীতা নবমী 2024? সীতা নবমীর শুভ সময় কখন? জানুন 2024 সীতা নবমীর মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে সীতা নবমী? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও সীতা নবমীর তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

সীতা নবমী তারিখ ও সময় | Sita Navami Date & Muhurat
সীতা নবমী 2024 তারিখ ও সময় | Sita Navami 2024 Date & Muhurat

সীতা নবমী 2024 (Sita Navami 2024): হিন্দু ধর্মের সীতা নবমীর অনেক গুরুত্ব রয়েছে। বৈশাখ মাসের শুক্লপক্ষের নবমী তিথিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন আর সীতা নবমী হল সীতার জন্মদিন পালনের উৎসব। তাছাড়া সনাতন ধর্মাবলম্বীদের কাছে এই দিনটি অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়।

এই বছর সীতা নবমী 2024 কবে?

Sita Navami / Sita Jayanti
16 May 2024
Thursday

Navami Muhurat Start
6:20 AM on 16 May 2024
Navami Muhurat End
8:50 AM on 17 May 2024

সীতা নবমীর বাংলায় তারিখ

সীতা নবমী / সীতা জয়ন্তী
১৬ মে ২০২৪
বৃহস্পতিবার

নবমী মুহূর্ত শুরু
১৬ মে ২০২৪, সকাল ৬ঃ২০ টায়
নবমী মুহূর্ত শেষ
১৭ মে ২০২৪, সকাল ৮ঃ৫০ টায়

 

দেবী সিতার সাথে ভগবান রামের উপাসনা করা পরিবারের সমৃদ্ধি এবং সুখ নিয়ে আসে বলে মনে করা হয়। রাম নবমী যেমন একটি অত্যন্ত শুভ উৎসব হিসেবে পালিত হয়ে আসছে অনেকদিন আগে থেকে, তেমনি সীতা নবমী কেও অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়।

সীতা নবমীর ইতিহাস 2024:

সীতা, যিনি হিন্দু মহাকাব্য রামায়ণের কেন্দ্রীয় প্রধান নারী চরিত্র। যিনি জনকপুরে অর্থাৎ বর্তমানে যেটা মিথিলা, নেপালে অবস্থিত সেখানে জন্মগ্রহণ করেন। হিন্দু বিশ্বাস অনুযায়ী তিনি ছিলেন হিন্দু অবতার শ্রী রামচন্দ্রের সঙ্গী এবং শক্তিরুপা লক্ষীর অবতার। যিনি কিনা ধনসম্পদের দেবী এবং বিষ্ণুর স্ত্রী।

এছাড়া সীতার অগ্নিপরীক্ষা আর শান্ত স্বভাব হিন্দু সমাজে তাকে আদর্শ স্ত্রী তথা আদর্শ নারীর উদাহরণ হিসেবে মনে করা হয়। তাছাড়া সে তার অগ্নিপরীক্ষার সময় স্বয়ং অগ্নিদেব সীতাকে রক্ষা করেছিলেন, কেননা তিনি ছিলেন পবিত্র নারী। তার উৎসর্গীকরণ, আত্মবিসর্জন, সাহসিকতা এবং বিশুদ্ধতার জন্য তিনি পরিচিতা সবার কাছে।

সীতা নবমী পূজার পদ্ধতি 2024:

যদিও এই দিনটি সীতা নবমী যেটা সীতার জন্মদিন উপলক্ষে পালন করা হয়, সেটা কিন্তু সকল গৃহস্থ বাড়ির জন্য খুবই মঙ্গলদায়ক।

১) এই দিনে খুব ভরে ওঠে স্নান সেরে, সুন্দর এবং পরিষ্কার কাপড় পরিধান করতে হবে।

২) যদি ঘরে মন্দির থাকে সেই মন্দির ভালো ভাবে পরিষ্কার করুন এবং সুন্দর করে ফুল দিয়ে সাজান। মন্দির পরিষ্কার করার পর প্রদীপ জ্বালান এবং আরো অন্যান্য সাজ সজ্জা করতে পারেন আপনার পছন্দমত।

৩) এরপর গঙ্গা জল দিয়ে দেবতাদের অভিষেক করুন। তার সাথে সাথে সীতার কৃপা পাওয়ার জন্য প্রার্থনা করুন তার সাথে ভগবান রামচন্দ্রের কাছে প্রার্থনা করুন সমস্ত রকম অশুভ শক্তি কাটিয়ে শুভ শক্তির স্বাগত জানানোর জন্য।

৪) তাছাড়া মা সীতা ও ভগবান রামচন্দ্রের আরতি করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

৫) ভগবান রাম ও মা সীতাকে নৈবেদ্য দিন, মনে রাখবেন যে শুধুমাত্র  বিশুদ্ধ জিনিস ঈশ্বরের কাছে নিবেদন করা হয়, সেই হিসেবে কিন্তু আপনি নৈবেদ্য দেবেন।

৬) এই বিশেষ দিনে, আর এই পবিত্র দিনে হনুমানের পূজা করাও খুব শুভ বলে মনে করা হয়, কেননা রামচন্দ্র ও সীতার সঙ্গে হনুমানের সম্পর্ক খুবই মধুর আর হনুমান ছাড়া রামচন্দ্র ও সীতার কথা ভাবাই যায় না।

Leave a Comment