জমি কেনার আগে কি কি ডকুমেন্ট যাচাই করা জরুরী

ভালো জায়গায় এক টুকরো জমি কেনার ইচ্ছা আমাদের সবারই থাকে।  অনেকেই সাধ থাকলেও সাধ্যের অভাবে কিনতে পারে না।  আবার কেউ কেউ জমি কিনেও পরে পস্তাতে হয় সঠিক যাচাই করে জমি না কেনার কারনে।

জমি কেনার সময় সঠিক কাগজপত্র না বুঝে নিতে পারলে অনেক সময় কষ্টের টাকায় কেনা জমি শেষ পর্যন্ত বেহাত হয়ে যায়। তখন সীমাহীন কষ্ট নিয়ে দীর্ঘশ্বাস ফেলতে হয়।   এসব দেখে অনেকেই সাধ্য থাকলেও নানা ঝামেলায় পড়ার ভয়ে জমি কিনতে সাহস পান না।  তাই আমাদের সবারই জমি কেনার সময় কি কি কাগজপত্র দেখে নিতে হয় সে সম্পর্কে জানা উচিত।  

আমরা এই সাইটে নিয়মিতভাবে পশ্চিমবঙ্গের জমি সংক্রান্ত নানা তথ্য আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করে থাকি।  এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আপনাদের সাথে পশ্চিমবঙ্গে জমি কেনার সময় কি কি দরকারী কাগজপত্র যাচাই করে নিতে হয় সে সম্পর্কে আলোচনা করবো। 

এতে করে আমাদের সবার এসকল কাগজপত্র নিয়ে ধারণা সৃষ্টি হবে সেই থাকে আমাদের সমাজে জমি নিয়ে প্রতারিত হবার ঘটনা কমে আসবে ।  আসুন দেখে নিই পশ্চিমবঙ্গে জমি কেনার আগে কি কি কাগজপত্র যাচাই করে নিতে হয়।  


জমি কেনার আগে কি কি কাগজপত্র দেখে নিতে হয়? 

১) প্রথমেই দেখে নিতে হবে জমির বিক্রেতা ও জমির দলিলের মালিক একই ব্যক্তি কিনা।  যদি একই ব্যক্তি না হয় তবে তাদের মাঝে সম্পর্ক কি ? তাদের মাঝে কোন চুক্তি আছে কিনা? এসব ভালো করে লক্ষ্য করবেন। 

২) জমি লিজে নেয়া কিনা তা দেখে নিতে হবে। 

৩) জমি বিক্রেতার স্বত্ব ভালো ভাবে যাচাই করুন। দেখে নিন তার কাছে জমি কিভাবে এসেছে।  বিক্রেতা ক্রয়সূত্রে, উত্তরাধিকার সূত্র বা দানপত্রের মাধ্যমে জমির মালিক হতে পারে। 

৪) জমির আসল দলিল দেখে নিতে হবে।

৫) জমির রেকর্ড যাচাই করে নিন।  জমিটি সরকারে কাছে ঐ বিক্রেতার নামেই লিপিবদ্ধ আছে কিনা সেটা খুবই গুরুত্বপূর্ন বিষয় ।  তাই দেখে নিন জমির রেকর্ড কার নামে লিপিবদ্ধ রয়েছে। 

৬) জেনে নিন এই জমির উপর সরকারী কোন নিষেধাজ্ঞা আছে কিনা। রেজিস্টার বা সাব রেজিস্টার অফিসে খোজ নিলেই এ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। 

৭) সম্প্রতি দেয়া খাজনার রশিদ সংগ্রহ করে নেবেন ।  দেখে নিন জমির খাজনা কার নামে দেয়া হয়েছে। সঠিক ভাবে এই বিক্রেতার নামে দেয়া হয়েছি কিনা। 

৮) জমি নিয়ে কোন মামলা আছে কিনা তা ভালো ভাবে জেনে নিতে হবে। এটা কোর্ট সার্স দিয়ে বের করতে হবে।  সাধারনত ৩০ বছরের সার্চ করতে হয়।

৯) জেনে নিতে হবে ঐ জমি কোথাও বন্ধক আছে কিনা। 

১০) জমি কোন সড়কের পাশে হলে ভালোভাবে জেনে নিতে হবে এই জমিতে সরকারের কোন পরিকল্পনা আছে কিনা। 

১১) বিক্রেতার নামে মিউটেশন করা আছে কিনা দেখে নিতে হবে। জমি মিউটেশন ছাড়া বিক্রেতা সঠিকভাবে রেজিস্ট্রি করে দিতে পারবে না। 

১২) জমি বায়না করা হলে বায়নার শর্তগুলি ভালোভাবে পড়ে নিতে হবে । দেখে নিতে হবে বায়নায় কি কি শর্ত লিখিত আছে। 

এই হলো জমি কেনার আগের মূল দেখার বিষয়। এছাড়াও আরো অনেক বিষয় ক্ষেত্র বিশেষে দেখা লাগতে পারে।  আজ আমরা পশ্চিমবঙ্গে জমি কেনার ব্যপারে কি কি কাগজপত্র দেখা লাগবে তা জানলাম।

আমাদের পরবর্তী লেখায় এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত লেখার চেষ্টা করবো।  পশ্চিমবঙ্গের জমি বিষয়ক আরো অনেক বিষয়ে জানতে আমাদের সাইটের অন্য লেখাগুলি দেখুন।  

About Bangla Bhumi

বাংলা ভূমি, বাংলা ও বাঙালিদের জন্য অন্যতম একটি ওয়েবসাইট যেখানে সাধারণ মানুষের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রতিনিয়ত দেওয়া হয়ে থাকে। এখানে ভূমি সংক্রান্ত জমির তথ্য, খতিয়ান ও দাগের তথ্য, সম্পত্তি আইন ও সম্পত্তি বিনিয়োগ, সরকরি যোজনা ও প্রকল্প, ব্যাঙ্ক, লোন ইত্যাদি সমস্ত রকম তথ্য প্রতিদিন প্রকাশিত করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *