ভারতের সব চেয়ে সস্তায় কমার্শিয়াল জমি কোথায় পাওয়া যায়?

জমির প্রতি মানুষের মায়া পৃথিবীর শুরু থেকেই।  বিশেষ করে ভারতীয়দের যেন জমির প্রতি মায়া অন্যদের চাইতে বেশি। জমি আমাদের খাবার দেয় বলে আদিকাল থেকেই আমরা জমি কেনাকে অনেক নির্ভরযোগ্য বিনিয়োগ হিসেবে দেখে থাকি। তদুপরি বর্তমান শিল্পায়নের যুগে জমিতে বিনিয়োগ অনেক আকর্ষণীয় একটি বিষয়।

তাই আমরা কিছু সঞ্চয় হলেও জমি কেনার চিন্তা করি, যাতে করে খাদ্যের ব্যবস্থা হবার সাথে সাথে ভবিষ্যতে ভালো দামে বিক্রি করে লাভবান হওয়া যায়। এজন্য অনেকেই জমিতে বিনিয়োগ করতে চান। কিন্তু ভালো জায়গায় জমি কিনতে না পারলে পরবর্তীতে ভালো লাভে বিক্রি করা কঠিন হয়ে যায়। তাই জমি কেনার আগে কোথায় জমি কিনছি সেটা অনেক গুরুত্বপূর্ন।

আমরা আমাদের এই সাইটে নিয়মিতভাবে জমি নিয়ে নানা তথ্য দিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করে থাকি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা ভারতের কোথায় জমি কিনলে কমার্শিয়াল ভাবে লাভবান হওয়া যাবে এমন কিছু স্থান নিয়ে আলোচনা করবো। যাতে করে আপনারা সহজেই অল্প সময়েই ভালো জমির খোজ পেতে পারেন। 

কমার্শিয়াল জমিতে লাভবান হওয়া নির্ভর করে কয়েকটি বিষয়ের উপর। সেগুলি হলো 

১) যোগাযোগ ব্যবস্থা। 

২) শিল্প কারখানা বৃদ্ধি। 

৩) ক্রয়ের ক্ষমতা। 

এসব বিষয় মাথায় রেখে কমার্শিয়াল জমি কেনায় হাত দিতে হয়। 

ভারতের কোথায় কোথায় সস্তায় কমার্শিয়াল ভাবে লাভজনক জমি পাওয়া যায়।

আসুন দেখে নি সস্তায় জমি পাওয়া যায় এমন কিছু স্থানের খোজ খবর। 

রাজারহাট নিউটাউন, কলকাতা (Rajarhat Newtown Kolkata)

রাজার হাট নিউ টাউন কলকাতা শহরের বাইরে একটি স্যাটেলাইট সিটি এবং আইটি ব্যবসার অন্যতম স্থান। রাজারহাট ও ভাঙ্গার গ্রাম দুটি কলকাতা শহরের উত্তর-পূর্ব দিকে অবস্থিত। তুলনামূলক ভাবে এই স্থানটি Salt Lake City এর চেয়ে আকারে ৩ গুন বড়।এই শহরের আবাসন সুবিধার জন্য wifi zone করা হয়েছে, যা ভারতের প্রথম রাস্তায় wifi zone সুবিধা। 

এই নিউটাউনটি বিমানবন্দরের খুব কাছে এবং বিমানবন্দরের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই ভালো । ইতিমধ্যেই এই স্থানে বিভিন্ন স্থাপনা গড়ে উঠা শুরু হয়েছে। যা ধীরে ধীরে এই স্থানটিকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলবে। এখানকার জমির দাম প্রতি স্কয়ার ফুট ৩৪০০ টাকা থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত।সবকিছু মিলিয়ে এই স্থানটি কমার্শিয়াল জমির জন্য খুবই ভালো একটি স্থান।

হোস্কোট, ব্যাঙ্গালোর (Hoskote Bangalore)

ব্যাঙ্গালোরের একটি গ্রামীন জেলা হলো হোস্কোট। এটি ব্যাঙ্গালোর থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এই হোস্কোট ভারতের রিয়েল স্টেট কোম্পানীগুলির আকর্ষনের বিন্দুতে পরিনত হয়েছে। আইটি কোম্পানীগুলির প্রাণ কেন্দ্র ব্যাঙ্গালোর থেকে খুবই নিকটে হওয়ায় এখানে জমি কেনা ভবিষ্যতের জন্য একটি লাভজনক বিনিয়োগ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সেই সাথে এখনো এই জায়গায় জমির প্রাপ্যতা থাকায় এবং জমির মূল্য তুলনা মূলক কম থাকায় এখনই এখানে জমি কেনার জন্য সূবর্ণ সুযোগ রয়েছে। ভারতের জমি কেনা বেচার সাইট Magicbrick এর দেয়া তথ্য অনুযায়ী এখানে জমির দাম প্রায় ১০৯০ টাকা হতে ১৮৯৩ টাকা (প্রতি স্কয়ার ফিট)। 

এই স্থানটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মাত্র ৪০ কিলোমিটার দূরে এবং কে আর পুরাম আবাসিক এলাকা থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। রাস্তায় ফ্লাইওভারের সুবিধা নিয়ে ব্যাঙ্গালোর থেকে মাত্র ২০ মিনিটেই এই স্থানে পৌছানো যায়। তাই কমার্শিয়ার জমি কেনার জন্য এই হোস্কোট একটি উপযুক্ত স্থান। 

ওয়াগহল, পুনে (Wagle Pune)

ওয়গহলি পুনের একটি ছোট শহর। যা পুনে-নগর হাইওয়ে এর পাশে হওয়ায় এই সড়কের মাধ্যমে আইটি পার্কে খুব অল্প সময়েই যাওয়া যায়। এই এলাকায় শিল্পায়নের উন্নতি চোখে পড়ার মত এবং সেই সাথে আইটি রিলেটেড অনেক কল সেন্টার গড়ে উঠেছে। তাই এখানকার জমি কমার্শিয়াল ভাবে ব্যবহারের জন্য খুবই উপযোগী। এখানকার জমির দাম প্রতি স্কয়ার ফিট ৮০০ টাকা হতে ১১০০ টাকা। 

এখানকার জমিতে ইতিমধ্যে ভারতের বিভিন্ন নামকরা রিয়েল স্টেট কোম্পানী তাদের কাজ শুরু করে দিয়েছে এবং এলাকায় বিভিন্ন স্থাপনা তৈরি করার কাজ চলছে। নতুন ফ্লাইওভারের কাজ সম্পন্ন হলে আরো দ্রুততম সময়ে এই স্থান হতে শহরে পৌছে যাওয়া যাবে। তাই এই ওয়াগহল ভারতের কমার্শিয়াল জমির জন্য একটি উপযুক্ত স্থান। 

কুন্দ্রাতুর, চেন্নাই (Kundrathur Chennai)

চেন্নাই শহর ভারতের রিয়েল স্টেট সেক্টরে একটি আকর্ষনীয় স্থান। এই শহরের আশেপাশে তাই জমির দাম ইতিমধ্যে আকাশ ছোয়া। তাই এখন চোখ পড়েছে শহর হতে দূরের সহজ যোগাযোগের ব্যবস্থা থাকা এলাকাগুলিতে। শ্রীপেরামভুর এবং গুধুভেঞ্চারী তেমনই কিছু স্থান যেখানে ভবিষ্যতের জন্য কমার্শিয়াল জমি কিনে রাখা যায়। চেনাই শহরের বাইরে এই স্থানই এখন জমি কেনার জন্য শ্রেষ্ঠ স্থান। 

এই স্থানটি চেন্নাই-ব্যাঙ্গালোর হাইওয়ে এর পাশে হওয়ার যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেক উন্নত। এমনকি এখানে পানি সরবরাহের কোন সমস্যা নাই। সব মিলিয়ে এই স্থানের প্রতি এখন ভারতের রিয়েল স্টেট ব্যবসায়ীদের আগ্রহ তৈরি হয়েছে। এখানকার প্রতি স্কয়ার ফিট জমির দাম প্রায় ১৪০০ টাকা হতে ২৩০০ টাকা। আগ্রহীগন এখানে জমি কিনে কমার্শিয়াল কাজে ব্যবহার করতে পারেন।


আজ আমরা আপনাদের সাথে ভারতের কিছু কমার্শিয়াল জমি কেনার স্থান নিয়ে আলোচনা করলাম।  পরবর্তীতে এ সকল বিষয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। তাই সবসময় চোখ রাখুন আমাদের সাইটে । এছাড়াও আমাদের সাইটে জমি সংকান্ত অনেক তথ্য নিয়মিত প্রকাশ করা হয়। তাই আমাদের সাইটের অন্য লেখাগুলি দেখুন। 

About Bangla Bhumi

বাংলা ভূমি, বাংলা ও বাঙালিদের জন্য অন্যতম একটি ওয়েবসাইট যেখানে সাধারণ মানুষের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রতিনিয়ত দেওয়া হয়ে থাকে। এখানে ভূমি সংক্রান্ত জমির তথ্য, খতিয়ান ও দাগের তথ্য, সম্পত্তি আইন ও সম্পত্তি বিনিয়োগ, সরকরি যোজনা ও প্রকল্প, ব্যাঙ্ক, লোন ইত্যাদি সমস্ত রকম তথ্য প্রতিদিন প্রকাশিত করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *