গান্ধী জয়ন্তী 2024 তারিখ ও সময় | Gandhi Jayanti 2024 Date & Muhurat

গান্ধী জয়ন্তী 2024 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের গান্ধী জয়ন্তী 2024? গান্ধী জয়ন্তীর শুভ সময় কখন? জানুন 2024 গান্ধী জয়ন্তীর মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে গান্ধী জয়ন্তী? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও গান্ধী জয়ন্তীর তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

গান্ধী জয়ন্তী তারিখ ও সময় | Gandhi Jayanti Date & Muhurat
গান্ধী জয়ন্তী 2024 তারিখ ও সময় | Gandhi Jayanti 2024 Date & Muhurat

গান্ধী জয়ন্তী 2024 (Gandhi Jayanti 2024): মহাত্মা গান্ধীর জন্মের সার্ধশতবর্ষে তাঁকে নানাভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। মহাত্মা গান্ধী অর্থাৎ মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী ছিলেন ভারতীয় রাজনীতিবিদ, ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের অগ্রগামী ব্যক্তিবর্গের মধ্যে খুবই  গুরুত্বপূর্ণ একজন প্রভাবশালী আধ্যাত্মিক নেতা।

এই বছর গান্ধী জয়ন্তী 2024 কবে?

Gandhi Jayanti
2 October 2024
Wednesday

This is the 155th Jayanti of Mahatma Gandhi

মহাত্মা গান্ধীর বাংলায় তারিখ

গান্ধী জয়ন্তী
২ অক্টোবর ২০২৪
বুধবার

এটি মহাত্মা গান্ধীর ১৫৫তম জয়ন্তী

 

সারা ভারতবর্ষ জুড়ে মহাত্মা গান্ধী অর্থাৎ গান্ধীজীর জন্ম জয়ন্তী উৎসব হিসেবে গান্ধী জয়ন্তী পালন করা হয়। ২ রা অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী উৎসব পালিত হয়ে থাকে। এটি ভারতের অন্যতম একটি জাতীয় সরকারি ছুটির দিন। এই দিনটি ভারতের সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে যথাযথ মর্যাদার সাথে পালিত হয় গান্ধী জয়ন্তী।

গান্ধী জয়ন্তী উপলক্ষে সারা ভারত জুড়ে প্রার্থনা পরিষেবা এবং শ্রদ্ধার মাধ্যমে গান্ধী জয়ন্তী উৎসব পালন করা হয়। বিশেষ করে নতুন দিল্লির রাজঘাটে, গান্ধীর স্মৃতি স্তম্ভে, যেখানে তাকে দাহ্য করা হয়েছিল সেখানে সকল শ্রদ্ধা অর্পণ করা হয় এবং কলেজ, স্থানীয় সরকারের প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানগুলিতে বিভিন্ন শহরে প্রার্থনা সভা, স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই দিনটি উদযাপন করার জন্য বিভিন্ন স্থানে আবার আঁকার প্রতিযোগিতা এবং প্রবন্ধ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

অহিংস জীবনধারাকে উৎসাহ দেওয়ার পাশাপাশি ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে গান্ধীজীর প্রচেষ্টাকে তুলে ধরে বিদ্যালয় এবং সম্প্রদায়ের সেরা প্রকল্পগুলির জন্য পুরস্কার প্রদান করা হয়। গান্ধীজীর প্রিয় ভজন, হিন্দু ভক্তিমূলক গান হিসাবে, “রঘুপতি রাঘব রাজা রাম সাধারনত তার স্মৃতিতেই গাওয়া হয়।

গান্ধীজীর কিছু বিশেষ বাণী 2024

দেশজুড়ে মহাত্মা গান্ধীর মূর্তিগুলিতে ফুল ও ফুলের মালা দিয়ে সাজানো হয়। তার পাশাপাশি বহু মানুষ সেই দিনটিতে মধ্যপন করা এবং মাংস খাওয়া থেকে বিরত থাকেন। কেননা তিনি ছিলেন নিরামিষভোজী, আর মধ্যপান থেকে বিরত ছিলেন। এছাড়াও সরকারি ভবন, ব্যাংক ও ডাকঘর, এই দিন সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ থাকে।

“দুর্বল মানুষ কখনো ক্ষমা করতে পারে না,
ক্ষমা হলো শক্তিমানের ধর্ম।”

“যখনই কোন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হবে,
তখন তাকে ভালোবাসার সাথে অর্জন করো।”

“আজ তুমি যা করবে তার উপরেই নির্ভর করে,
তোমার ভবিষ্যৎ গড়ে উঠবে।”

“চোখের বদলে চোখ গোটা বিশ্বকে অন্ধ করে দেবে।”

“যেদিন ভালোবাসা ক্ষমতার লোভ কে হারিয়ে দেবে,
সেদিন এই পৃথিবীতে শান্তি ফিরে আসবে।”

“এমন ভাবে জীবন যাপন করো,
যেন মনে হয় তুমি আগামীকালই মারা যাবে,
আবার এমনভাবে শিখবে যেন,
তোমার সময়ের অভাব নেই,
তুমি চিরজীবী।”

“ভালোবাসা হলো জগতের সবচেয়ে শক্তিশালী শক্তি।”

“ভিড়ের মধ্যে দাঁড়ানো সহজ কিন্তু,
একাকী দাঁড়ানো তে সাহসের দরকার।”

“শক্তি দেহের ক্ষমতা থেকে আসে না,
সেটা আসে মনের অদম্য ইচ্ছার মাধ্যমে।”

“পৃথিবীতে তুমি যদি কোন পরিবর্তন দেখতে চাও,
তাহলে সেটা নিজে থেকেই শুরু করো।”

এমন একটি ব্যক্তিত্ব যিনি ভারতের জন্য এত কিছু অবদান রেখে গিয়েছেন, তার জন্ম তিথি উপলক্ষে জন্মদিনের পাশাপাশি তাকে শ্রদ্ধা জানাতে গান্ধী জয়ন্তী উৎসব পালন করা হয়। বিভিন্ন জায়গায় উৎসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়, যেখানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, নৃত্যানুষ্ঠান হয়। আর এই সবকিছুর মধ্যে দিয়ে আমাদের জাতির জনক কে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

Leave a Comment