পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা আবেদন | WB Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana 2022 Apply Form

Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana 2022: Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana Apply Online Form 2022-23 – পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা আবেদন পদ্ধতি, West Bengal Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana Registration 2022, Documents and Eligibility.

প্রতিটি মানুষই সামাজিক সুরক্ষা পেতে চান, এই সুরক্ষার মধ্যে দিয়ে মানুষের জীবনযাত্রা অনেকটা সহজ হয়ে ওঠে। আর তাই পশ্চিমবঙ্গ সরকার একটি জনকল্যাণ মূলক প্রকল্প চালু করেছেন, সেটা হল “বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা 2022″ (Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana 2022)।

এই প্রকল্পের আওতায় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের প্রায় ৫ কোটি মানুষ সামাজিক নিরাপত্তা অথবা সামাজিক সুরক্ষার স্কিমের সুবিধা পেতে চলেছেন। যেমন ধরুন প্রভিডেন্ট ফান্ডের স্টেট অ্যাসিস্ট্যান্ট স্কিম, বিল্ডিং এবং অন্যান্য নির্মাণশ্রমিকদের জন্য কল্যাণ স্ক্রিন এবং পরিবহন শ্রমিকদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা স্কিম।

বিভিন্ন রকম সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প কে একসঙ্গে করে সকল অসংগঠিত শ্রমিকদের সুবিধা প্রদানের জন্য সামাজিক সুরক্ষা যোজনা ২০১৭ সালে চালু করা হয়েছিল। আর এটিই ছিল দেশের এই ধরনের উদ্যোগের মধ্যে প্রথম উদ্যোগ।

SSY স্কিম অসংগঠিত শ্রমিকদের অনুমোদিত তালিকা অনুসারে প্রত্যেক যোগ্য অসংগঠিত শ্রমিক এবং শ্রম বিভাগ পশ্চিমবঙ্গ সরকার কর্তৃক মোডিফাই করা স্বনিযুক্ত পেশার মানুষদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তাছাড়া সময় সময় কিন্তু নির্মাণ ও পরিবহন শ্রমিকদের এর সঙ্গে সংযুক্ত করা হয়।

WB Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana Online Apply Form
WB Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana Online Apply Form

এই প্রকল্পে তালিকাভুক্ত উপকারভোগীদের আরো সহায়তা করার জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার সুবিধাভোগীদের ভবিষ্যৎ তহবিলের চাঁদা প্রদানের জন্য প্রতি মাসে ২৫ টাকা করে সুবিধাভগীদের পক্ষ থেকে প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ১ লা এপ্রিল ২০২০ থেকে।

আর এই ভাবেই কিন্তু এই প্রকল্পের নামকরণ করা হয়েছে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা 2022 (Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana 2022)। যেখানে কোন তালিকাভুক্ত সুবিধাভোগী এক টাকাও খরচ না করে সমস্ত উপলব্ধ সুবিধা পেতে পারবেন অনায়াসেই।

সুচিপত্র

বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ফরম ফিলাপ করার পদ্ধতি:

Step 1. প্রথমত আপনাকে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা আর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে, https://bmssy.wblabour.gov.in/

Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana Apply Online Form
Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana Apply Online Form

Step 2. তারপর “Homepage” এ গিয়ে “New Registration” এই ট্যাবে ক্লিক করতে হবে।

Step 3. তারপর আপনার সামনে একটি রেজিস্ট্রেশন ফর্ম আসবে, যেখানে আবেদনকারীর সমস্ত ডকুমেন্টস প্রমাণপত্র দিয়ে ফিলাপ করতে হবে, যেমন ধরুন- কর্মীর ক্যাটাগরি, আবেদনকারীর নাম, আবেদনকারীর জন্ম তারিখ, ইমেইল আইডি, মোবাইল নাম্বার, পরিচয়ের প্রমাণ পত্র, জাতি, রেশন কার্ড নাম্বার, ধর্ম, লিঙ্গ, বৈবাহিক অবস্থা, মায়ের নাম, বাবার নাম, এবং প্রতি মাসে কতটা পরিমাণ আয় করতে পারেন সেটাও লিখতে হবে।

এর পাশাপাশি (কর্পোরেশন জিপি/ পৌরসভা/ মহাকুমা/ ব্লগ/ ওয়ার্ড), পিনকোড, থানা, ডাকঘর, বাড়ির নাম্বার, ইত্যাদি লিখে রেজিস্ট্রেশন ফরমটি ফিলাপ করতে হবে।

Step 4. এবং তারপর দেখতে পাবেন রেজিস্টার Register এই অপশনটি এবং রেজিস্ট্রেশন কমপ্লিট করতে এই অপশন এর উপরে ক্লিক করতে হবে।

পশ্চিমবঙ্গের সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প গুলি:

অসংগঠিত শ্রমিকদের উন্নতির স্বার্থ সিদ্ধির জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার কিছু সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প প্রণয়ন করেছেন সেই সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প গুলি হল:

#১) স্বাস্থ্য সুরক্ষা প্রকল্প

#২) পরিবহন কর্মীদের জন্য সুরক্ষা প্রকল্প

#৩) ভবিষ্যনিধি প্রকল্প

#৪) নির্মাণ কর্মী দের জন্য সুরক্ষা প্রকল্প

#৫) বিড়ি শ্রমিক কল্যাণ প্রকল্প

বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনার সুবিধাগুলি:

#১) উপভোক্তা সর্বনিম্ন ৪০%  শারীরিক অক্ষম থাকলে ৫০,০০০ টাকা পেতে পারেন।

#২) স্বাভাবিক মৃত্যু হলে ৫০ হাজার টাকা।

#৩) দুর্ঘটনার কারণে যদি কারো মৃত্যু হয় সে ক্ষেত্রে দু’লক্ষ টাকা পাবেন।

#৪) উপভোক্তা যদি দুর্ঘটনাজনিত কারণে একটি চোখের দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে একটি হাতের কর্মক্ষমতা অথবা একটি পায়ের চলার শক্তি হারিয়ে থাকেন, তার ক্ষেত্রে এক লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেওয়া হবে সেই উপভোক্তা কে।

#৫) আবার যদি কোন উপভোক্তা দুর্ঘটনাজনিত কারণে দুটি চোখের দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেন এবং দুটি হাতের কর্মক্ষমতা এবং দুটি পায়ের চলার শক্তি একেবারে হারিয়ে ফেলেন, সেক্ষেত্রে দু লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ পেতে পারেন।

#৬) আবার যদি উপভোক্তার দুটো কন্যা সন্তান থাকে এবং তাদের স্নাতক স্তর পর্যন্ত পড়াশোনা কমপ্লিট করার জন্য প্রত্যেক মাথাপিছু ২৫ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়া হবে এই প্রকল্পের মধ্যে দিয়ে।

#৭) আর হ্যাঁ এই সুবিধাটা কিন্তু তখন পাওয়া যাবে যখন সেই কন্যা সন্তানরা পড়াশোনা কমপ্লিট করা পর্যন্ত অবিবাহিত থেকে থাকেন, তবেই কিন্তু এই প্রকল্পের সুবিধা টি পাবেন।

#৮) উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে পড়াশোনা চলতে থাকলে সে ক্ষেত্রে ৫০০ টাকা সহযোগিতা পাবেন।

#৯) এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে একাদশ শ্রেণিতে যদি পড়াশোনা চলতে থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে ৪ হাজার টাকা সহযোগিতা পাবেন।

#১০) স্নাতক স্তরে (বিজ্ঞান/ বাণিজ্য/ কলা) এ সমস্ত বিষয়ের উপরে পড়াশোনা করতে থাকলে প্রতিবছর ৬০০০ টাকা করে সহযোগিতা পাওয়া যাবে।

#১১) আই টি আই (ITI) তে প্রশিক্ষণ চলাকালীন প্রতিবছর ১০ হাজার টাকা করে সহযোগিতা পাওয়া যাবে।

#১২) আবার স্নাতক স্তরে (কলা/ বিজ্ঞান /বাণিজ্য) এই সমস্ত বিষয়ের উপরে পড়াশোনা করতে থাকলে প্রতিবছর ১০ হাজার টাকা সহযোগিতা পাওয়া যাবে।

#১৩) পলিটেকনিকে পড়াশোনা চলাকালীন প্রতিবছর ১০ হাজার টাকা পাওয়া যাবে।

#১৪) ইঞ্জিনিয়ারিং, ডাক্তারি, এই সমস্ত পড়াশোনার ক্ষেত্রে বছরের ৩০,০০০ সহযোগিতা পাওয়া যেতে পারে।

#১৫) উপভোক্তা এবং তার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন ব্যবসা-বাণিজ্য এবং তার সাথে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দেওয়া হতে পারে, যার ফলে তারা সামর্থ্য অনুযায়ী অর্থনৈতিক কাজ- কারবার করতে উৎসাহিত হতে পারেন এবং জীবনের অনেকটা উন্নতি সাধন করতে পারবেন।

#১৬) সোসাইটি ফর স্কিল ডেভলপমেন্ট থেকে নিখরচায় এই প্রশিক্ষণ পাওয়া যায়, যেটা জনসাধারণের জন্য বেশ একটা সুবিধাজনক ব্যবস্থা।

#১৭) এই প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি নথিভূক্ত শ্রমিককে সামাজিক মুক্তি কার্ড দেওয়া হবে।

#১৮) বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় নথিভুক্ত উপভোক্তার আরো একটি বড় সুবিধা হলো প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুবিধা। আগে ২৫ টাকা প্রতি মাসে জমা করতে হত এবং সরকার ৩০ টাকা জমা করতেন।

কিন্তু ১ লা এপ্রিল ২০২০  থেকে ২৫ টাকা দিয়ে দেওয়ার কথা ঘোষণা করার পর বর্তমানে এই পঁচিশ টাকা আর জমা করতে হয় না, আর সেই কারণেই তো এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে “বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা” (Bina Mulya Samajik Suraksha Yojana)।

#১৯) প্রভিডেন্ট ফান্ডে জমা টাকা ৬০ বছর বয়স হয়ে যাওয়ার পর উপভোক্তা সেই টাকা সুদে আসলে ফেরত পাবেন। আর এই যোজনা চলাকালীন মাঝপথে যদি উপভোক্তার মৃত্যু হয়ে যায়, সে ক্ষেত্রে নমিনি হিসেবে যিনি থাকবেন তিনি কিন্তু এই টাকাটা ফেরত পাবেন। যার মেয়াদ পূর্ণ হলে উপভোক্তা পাবেন ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকারও বেশি।

#২০) শল্য চিকিৎসার ক্ষেত্রে বছরের সর্বোচ্চ ৬০ হাজার টাকা আর্থিক সহযোগিতা পাওয়া যাবে, অর্থাৎ আপনি বছরে এই চিকিৎসার জন্য ৬০ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য পাওয়ার অধিকারী হতে পারেন।

#২১) উপভোক্তা অথবা উপভোক্তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা চিকিৎসার জন্য বছরে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহযোগিতা পেতে পারেন।

#২২) যদি কোন দুর্ঘটনার কারণে উপভোক্তার কাজের দিনটি নষ্ট হয় সে ক্ষেত্রে উপভোক্তা প্রথম পাঁচ দিনের জন্য ১০ হাজার টাকা এবং বাকি দিনগুলি প্রতিদিনের জন্য অতিরিক্ত ১০০ টাকা করে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন এই প্রকল্পের এই সুবিধাটা বেশ জনপ্রিয়।

বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় আবেদনের ডকুমেন্টস:

#১) আবেদনপত্রের সাথে আবেদনকারীর ভোটার কার্ড, ব্যাংক একাউন্টের জেরক্স কপি, আধার কার্ড, লেবার কার্ড যদি থাকে তার জেরক্স কপি, পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি ফটো।

#২) আবেদনকারীর নমিনির ভোটার কার্ড, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বইয়ের জেরক্স কপি, আধার কার্ড।

#৩) উপভোক্তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যের বয়সের প্রমাণপত্র হিসাবে- আধার কার্ড, অ্যাডমিট কার্ড, ভোটার আইডি কার্ড, জন্ম সার্টিফিকেট।

বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা তে আবেদন করার জন্য যে বিষয়গুলি আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে:

#১) প্রথমত আবেদনকারীকে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।

#২) পরিবারের মাসিক ইনকাম সর্বোচ্চ ৬,৫০০ টাকার বেশি হলে চলবে না।

#৩) আবেদনকারীর বয়স অবশ্যই হতে হবে ১৮ বছর থেকে ৬০ বছর বয়সের মধ্যে।

#৪) পরিবহন কর্মী এবং নির্মাণ কর্মীদের জন্য সুরক্ষা প্রকল্পে ইতিমধ্যে নাম নথিভুক্ত যে সকল শ্রমিক করেছেন তারা এই যোজনা তে সদস্য হতে পারবেন এক্ষেত্রে কিন্তু একটি নির্দিষ্ট ফরম ওয়ান (Form 1) ভর্তি করে দরখাস্ত করতে হবে।

বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা এর জন্য অনলাইনে আবেদন করার পদ্ধতি:

পশ্চিমবঙ্গের বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্প আবেদন করার জন্য আপনাকে যে সমস্ত পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে, সেগুলি হল:

Step 1. অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে,

⭐ প্রথমে BM SSY এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যান, bmssy.wblabour.gov.in

⭐ এরপর New Registration এই অপশনে ক্লিক করুন।

⭐ এবার দেখবেন আপনার সামনে একটি ফর্ম আসবে সেটি ফিলাপ করুন এবং রেজিস্টার অপশনে ক্লিক করুন।

Step 2. লগ ইন করতে হবে

⭐ এবারে হোমস্ক্রিনে ফিরে যেতে হবে আপনাকে, তারপর User Login এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।

⭐ আপনার ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড এন্টার করুন এবং তারপর লগইন অপশন এ ক্লিক করুন।

⭐ আবার একটি নতুন পেজ আপনার সামনে ওপেন হবে।

Step 3. Form-1  ফিলাপ করুন 

⭐ যে নতুন পেজটি ওপেন হয়েছে সেখানে Update CAF এই অপশনটিতে ক্লিক করুন।

⭐ এবার এখানে আপনার ব্যক্তিগত বিবরণ, ব্যাংকের বিবরণ মনোনয়ন এবং অন্যান্য যে বিবরণ গুলি চাইবে সে গুলি দিয়ে এন্টার করুন।

⭐ এরপর যে সমস্ত প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলো এখানে লাগবে সেগুলো আগে বলা আছে, সেগুলি আপলোড করতে হবে।

⭐ সবকিছু পূরণ করা হয়ে গেলে ফাইনাল review এই অপশনে যান।

⭐ সেখানে গিয়ে ভালো করে চেক করুন, যদি কোন ভুল ত্রুটি থেকে থাকে তবে কিন্তু আপনি সেগুলি সংশোধন করতে পারবেন।

⭐ আর যদি কোনরকম ভুল-ত্রুটি না থেকে থাকে তাহলে I Agree এই চেক বক্সে ক্লিক করুন এবং তারপরে Final Submit এই বাটনে ক্লিক করুন।

⭐ আবার একটি নতুন পেজ ওপেন হবে।

Step 4. Form-1 Certify করতে হবে

⭐ নতুন যে পেজটি ওপেন হয়েছে সেখানে ডাউনলোড অপশনে গিয়ে ফর্ম-1 ডাউনলোড করতে পারবেন।

⭐ এটি ডাউনলোড করে প্রিন্ট আউট করে নিতে পারেন এবং সেটি কোন অনুমোদিত ব্যক্তির কাছ থেকে যেমন ধরুন- কাউন্সিলর, বিডিও, পঞ্চায়েত প্রধান, ইত্যাদি ব্যক্তিদের কাছ থেকে অ্যাটেস্টেড করিয়ে আনতে পারেন।

⭐ সার্টিফিকেশন (Certification) এর পরে পূরণ করা form-1 স্ক্যান করুন এবং এটি পিডিএফ (PDF)  হিসেবে সেভ করে নিতে পারেন।

Step 5. Form-1 জমা করুন

⭐ এরপর আপনি যে অ্যাকাউন্টটা করেছেন এখানে সেই একাউন্টে লগইন করুন ইউজারনেম আর পাসওয়ার্ড দিয়ে।

⭐ তারপর অ্যাপ্লিকেশন এ ক্লিক করুন।

⭐ BM-SSY FORM- 1 আপলোড করতে হবে।

Certified by এই বক্সে আপনি যে ব্যক্তির কাছ থেকে অ্যাটেস্টেড করিয়ে নিয়েছেন সেই ব্যক্তির নাম এবং বিবরণ লিখতে হবে।

⭐ তারপর সেই ব্যক্তির পদবী নির্বাচন করুন।

⭐ এরপর আপলোড এই বাটনে ক্লিক করুন।

⭐ অবশেষে আপনার বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা আবেদন সফলভাবে জমা পড়ে যাবে।

তাছাড়া আপনি এই পেজটির একটি প্রিন্ট আউট বের করে রাখতে পারেন, যেটা আপনার ভবিষ্যতে কাজে লাগতে পারে।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা এর আবেদনের স্ট্যাটাস:

#১) প্রথমত আপনাকে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে, bmssy.wblabour.gov.in

#২) এবার আপনার ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করুন। কেননা এখানে অলরেডি আপনার একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে গেছে।

#৩) আপনার আবেদনের স্ট্যাটাস স্ক্রিনে দেখানো হবে, যেটা আপনি ভালভাবে দেখে বুঝতে পারবেন যে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা স্ট্যাটাস টি।

আর যদি আপনার এই আবেদন অনেকদিন হয়ে যাওয়ার পরেও এপ্রুভড (Approved) না দেখায়, তাহলে কিন্তু আপনি সমস্ত নথি পত্র এবং জমা দেওয়া ফরম 1 সমেত যেকোনো বি এম এস এস ওয়াই (BMSSY) এজেন্ট এর সাথে দেখা করতে পারেন, তাছাড়াও আপনার সমস্যা সম্পর্কে আপনার পৌরসভা/ ব্লক/ পৌর কর্পোরেশন/ অফিসেও যোগাযোগ করতে পারেন। তাছাড়া 1800 1030 9009 নাম্বারে ফোন করেও এ বিষয়ে জানতে পারেন।

বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা তালিকা তে আপনার বিবরণ দেখবেন কিভাবে:

#১) প্রথমত আপনাকে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে, https://bmssy.wblabour.gov.in/

#২) হোম পেজে গিয়ে সার্চ ইওর ডিটেইলস (Search Your Details) এই অপশনে  ক্লিক করতে হবে অথবা https://bmssy.wblabour.gov.in/search এই লিঙ্কে ক্লিক করে সরাসরি যেতে পারেন।

#৩) এখানে আবেদনকারীর রেজিস্ট্রেশন নাম্বার দিয়ে সার্চ বাটনে ক্লিক করে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা সুবিধা ভোগীদের তালিকাতে আপনার বিষয় সম্পর্কে বিশদে জানতে পারবেন।

Official Website Click Here
Home Click Here

Leave a Comment