প্রধানমন্ত্রী কুসুম যোজনা 2023: ফ্রী সৌর পাম্প দিচ্ছে সরকার

প্রধানমন্ত্রী কুসুম যোজনা কি? এই যোজনায় কারা কারা সুবিধা পাবে? কিভাবে আবেদন ও রেজিস্ট্রেশান করতে হয়? জানুন সবকিছু। Pradhan Mantri Kusum Yojana in Bengali

প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন যে কুসুমের অধীনে ২০ লাখ কৃষককে এককভাবে সৌর পাম্প দেওয়া হবে। আবেদন করার জন্য কোনো অতিরিক্ত টাকা দিতে হবে না।

ভারত সরকার কৃষকদের জন্য অনেকগুলি বিশেষ পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করেছেন। তার মধ্যে একটি পরিকল্পনা হল কুসুম যোজনা। এর উদ্দেশ্য হল নষ্ট জমিকে পুনরায় ব্যবহার ও আয়ের পথকে সুগম করা।

প্রধানমন্ত্রী ২০২১ এর মার্চ মাসে ঘোষণা করেছেন যে কুসুমের অধীনে ২০ লাখ কৃষককে এককভাবে সৌর পাম্প দেওয়া হবে। এই প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের ৭৫ শতাংশ ভর্তুকিতে সৌর জল পাম্প সরবরাহ করা হবে।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে কৃষকদের সৌর শক্তি খাতে যোগানের মাধ্যমে ফসলের উন্নতি সাধন সম্ভব হবে।

PM Kusum Yojana for Farmar: Registration and Eligibility
প্রধানমন্ত্রী কুসুম যোজনা: ফ্রী সৌর পাম্প দিচ্ছে সরকার

এই প্রকল্পের আওতায় কৃষকরা তাদের বর্জিত জমিতে সোলার প্যাম্প বসিয়ে সেই জমিকে আবার পুনরায় ব্যবহার যোগ্য করে তুলতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা: এই বছরের নতুন আবেদন পদ্ধতি

এই প্রকল্পের মাধ্যমে সেচের জন্য কৃষকদের ভর্তুকি হারে সোলার প্যাম্প দেওয়ার পরিকল্পনা করছে সরকার। এই সোলার প্যাম্প এ আবেদন করার জন্য কোনো অতিরিক্ত টাকা দিতে হবে না।

কৃষক শক্তি সুরক্ষা ও উন্নীতকরণ অভিযান (কুসুম)এর পরিকল্পনা অনুযায়ী, ২০২২ সালের মধ্যে দেশে ৩০ কোটি পাম্প বিদ্যুত বা ডিজেলের পরিবর্তে সৌরশক্তি দিয়ে চালানো হবে।

কুসুম যোজনায় মোট ১.৪০ লক্ষ টাকা ব্যয়ের পরিকল্পনা করা হয়েছে। সৌর শক্তিকে কাজে লাগিয়ে পরিবেশ বান্ধব সেচ ব্যবস্থার দিকেই নজর দিচ্ছে কেন্দ্র।

১. এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য:

  • এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য সৌর শক্তি ভিত্তিক সেচ পদ্ধতিকে আরও ত্বরান্বিত করা।
  • কৃষকরা সেচের জন্য নতুন পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারবেন।
  • ডিজেলের মাধ্যমে সেচের ফলে যে ব্যয় হত তা হ্রাস পাবে এই পদ্ধতিতে।
  • বিদ্যুত উৎপাদন এই কুসুম স্কিম-এর অন্যতম লক্ষ্য নয়,কুসুম প্রকল্পের চূড়ান্ত উপাদানটি বর্তমানে ব্যবহৃত পাম্পগুলির আধুনিকীকরণ এবং পুরানো পাম্পগুলি সৌর পাম্প দ্বারা প্রতিস্থাপনের দিকে নজর দেওয়া।
  • কুসুম যোজন 1 ম পর্বে, বিদ্যুৎ বিভাগ কেন্দ্রীয় সরকারের বিভাগগুলির সাথে মিলিত হয়ে সৌর শক্তি চালিত পাম্পগুলির সফল বিতরণের দিকে কাজ করছে।
  • এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন করার ক্ষমতা রয়েছে।
  • এই প্রকল্পের তৃতীয় উপাদানটির মধ্যে রয়েছে টিউবওয়েল স্থাপন করা এটিও নির্দিষ্ট পরিমাণ বিদ্যুৎ উৎপাদনে সহায়তা করতে চলেছে।
PM Kusum Yojana
প্রধানমন্ত্রী কুসুম যোজনা


প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা লিস্ট {এই মাসের} ও আবেদনের পদ্ধত

২. এই প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা:

  • ভারতের সমস্ত কৃষকরা কুসুম প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারবেন
  • বর্জিত জমিকে কাজে লাগানোর ফলে সেখান থেকে আয় হবে।
  • সৌরশক্তির জন্য অনুর্বর জমিতে সবুজ গাছের রোপণ করা যাবে।
  • এই নতুন পদ্ধতিতে কৃষকরা অনেকটা পরিমাণ ভর্তুকি পাবে।
  • জলের সঞ্চয় হবে এই প্রক্রিয়ায়।
  • একটি সোলার প্যাম্প কেনার জন্য কৃষকদের ব্যয়ের ১০% খরচ করতে হবে আর বাকি ৬০% সরকার দ্বারা ব্যয় করা হবে।
  • বাকি ৩০% ব্যয় লোনের মাধ্যমে ব্যাঙ্ক প্রদান করবে।
  • এই প্রকল্পে সরাসরি কেন্দ্র থেকে কৃষকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এ টাকা প্রদান করা হবে।
  • এর সাথে কৃষকরা তাদের অনুর্বর বা ব্যবহারযোগ্য জমি থেকে 25 বছর নিয়মিত আয় করতে পারবেন।
  • এটির মাধ্যমে রাজ্যের কৃষকরা দিনের বেলা কৃষি কাজের জন্য সহজেই বিদ্যুৎ পেতে পারবেন।
  • কৃষকরা তাদের নিজস্ব অব্যবহৃত বা জঞ্জালভূমিতে ০.৫ থেকে ২ মেগাওয়াট ক্ষমতার সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করতে পারবেন।
  • কুসুম স্কিমের আওতায় কেন্দ্রীয় সরকার সোলার এনার্জি দিয়েই সারাদেশে সেচ কাজে ব্যবহৃত সমস্ত ডিজেল / বৈদ্যুতিক পাম্প চালানোর লক্ষ্য নিয়েছে।
  • তারা সেচের জন্য নিখরচায় বিদ্যুৎ পাবে।
  • তিনি অতিরিক্ত সৌর শক্তি যে কোনো বিদ্যুৎ সংস্থায় বিক্রি করতে পারবেন। তাকে তার প্রাপ্য অর্থ প্রদান করা হবে।
  • সৌর সেচ একটি ভর্তুকি মূল্যে দেওয়া হবে।
  • সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করেও অর্থ উপার্জনের রাস্তা তৈরি করতে পারেন।
  • কৃষকরা একই জমিতে একটি শেড তৈরি করতে পারবেন এবং শেডের নীচে শাকসব্জী বা অন্যান্য ছোট ফসলের চাষ করতে পারবেন।
  • স্বাভাবিক অবস্থায় সোলার পাম্প সেটটি 90 থেকে 120 দিনের মধ্যে চালু করা হবে।

লক্ষ্মীর ভান্ডার পেমেন্ট স্ট্যাটাস অনলাইন চেক করুন @এখানে

৩. এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য যোগ্যতার মানদন্ড:

  • এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন যে কোনো ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক।
  • যে সমস্ত কৃষক বৈদ্যুতিন চালিত পাম্প ব্যবহার করেন তাদের এই সুযোগ দেওয়া হবে না।
  • তবে যে কৃষক ড্রিপ বা স্প্রিংকলার সেচ ব্যবহার করে জল সাশ্রয় করে সেচ করেছেন তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
  • আবেদনকারীকে একজন কৃষক হতে হবে এবং তার নামে একটি বৈধ আধার কার্ড থাকা আবশ্যক।
  • আবেদনকারীর অবশ্যই ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট থাকা দরকার।

৪. এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য কী কী তথ্য প্রমাণের প্রয়োজন:

  • আধার কার্ড
  • ব্যাংক অ্যাকাউন্টের পাসবুক
  • আয়ের শংসাপত্র
  • মোবাইল নম্বর
  • আবেদনকারীদের অবশ্যই রাজ্যের স্থায়ী বাসিন্দা প্রমাণ থাকতে হবে
  • ঠিকানার প্রমাণ
  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  • জমির বিবরণ
  • নুন‍্যতম ৫ বিঘা (১.৫ একর) জমি কম্পিউটারাইজ পরচা বাধ্যতামূলক।
  • কৃষক আইডি

৫. এই প্রকল্পে আবেদন করবেন কীভাবে:

পদক্ষেপ 1: প্রথমত, কৃষকদের কুসুম যোজনার সরকারী ওয়েবসাইটটি খুলতে হবে। অফিসিয়াল ওয়েবসাইট: https://www.mnre.gov.in/new-application/free

পদক্ষেপ 2: এখন, আপনি পোর্টালের হোমপেজে রেফারেন্স নম্বর দিয়ে লগ ইন করতে পারেন।

পদক্ষেপ 3: আপনি পোর্টালে লগ ইন করার পরে, কুসুম সৌর পাম্প নেওয়ার জন্য অনলাইনে আবেদনের ফর্মটি পূরণ করতে পারেন।

পদক্ষেপ 4: এরপরে হোম পৃষ্ঠায় দৃশ্যত ” apply” বোতামটিতে ক্লিক করতে হবে।

পদক্ষেপ 5: apply বোতামটিতে ক্লিক করার পরে, রেজিস্ট্রেশন পৃষ্ঠাটি স্ক্রিনে প্রদর্শিত হবে।

পদক্ষেপ 6: এরপর প্রদর্শিত অনলাইনে আবেদন করার পৃষ্ঠাটিতে চাহিদা অনুযায়ী নথিগুলি দিয়ে পূরণ করতে হবে।

পদক্ষেপ 7: সমস্ত বিবরণ শেষ করার পরে, ব্যক্তিকে নিবন্ধকরণ প্রক্রিয়া শেষ করতে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

পদক্ষেপ 8: আবেদন ফর্ম জমা দেওয়ার পরে, সেই ব্যক্তি “রেজিস্ট্রারড সাকসেসফুল” লেখা বার্তাটি পাবেন।

৬. কুসুম যোজনার রেজিস্ট্রেশনের তালিকা কীভাবে দেখবেন?

  • সবার আগে আপনাকে কুসুম যোজনার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি ওপেন করতে হবে।
  • এরপরে আপনাকে হোম পৃষ্ঠায় দৃশ্যত ‘রেজিস্ট্রেশন তালিকা’ অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  • এখানে ক্লিক করার পর একটি পৃষ্ঠা প্রদর্শিত হবে
  • এরপরে আপনি আপনার নাম রেজিস্ট্রেশন তালিকায় অনুসন্ধান করতে পারবেন।

৬. কীভাবে MNRE সার্টিফিকেট পাবেন?

নতুন ও পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি মন্ত্রক (এমএনআরই) ভারত সরকারের অধীনে একটি মন্ত্রক যা নতুন এবং পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির সমস্ত বিষয়ে সম্পর্কিত কার্যক্রম পরিচালনা করে।

এমএনআরইর শংসাপত্রটি তার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে এমএনআরই রেজিস্ট্রেশনের পরে পেতে পারেন।

অথবা আবেদনকারীরা ব্যাংক বা ঋণদাতার দ্বারা নির্ধারিত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ এই প্রকল্পের আবেদন ফর্ম পূরণ এবং জমা দেওয়ার মাধ্যমে এই প্রকল্পের আওতায় নিকটস্থ ব্যাঙ্কটি থেকে পেতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রী কুসুম যোজনা হেল্পলাইন নম্বর

যোগাযোগ নং: 011-2436-0707, 011-2436-0404

প্রধানমন্ত্রী কুসুম টোল ফ্রি নম্বর: 1800-180-3333

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট: www.mnre.gov.in

জরুরী সূচনাঃ আবেদনের আগে অবশ্যই পড়বেন

প্রধানমন্ত্রী-কুসুম যোজনার নামে অনেক প্রতারণামূলক ভুয়া ওয়েবসাইট এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে যেখানে ভুয়া আবেদনের ফর্ম ভরিয়ে টাকা আদায় করছে।

সরকার থেকে জানানো হয়েছে প্রকল্পটি সম্পর্কে কেবল www.mnre.gov.in দেখুন বা টোল ফ্রি নম্বর 1800-180-3333 ডায়াল করুন! অন্য কোন ওয়েবসাইটে টাকা দেবেন না এবং ফর্ম ভরবেন না।

প্রধানমন্ত্রী-কুসুম যোজনার জন্য আবেদনকারী সকল কৃষককে প্রতারণামূলক ওয়েবসাইটগুলি না দেখার এবং কোনও টাকা প্রদান না করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

কেন্দ্র সরকারের সমস্ত যোজনাClick Here
পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত প্রকল্পClick Here
বাংলাভুমি হোমClick Here

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top