শরৎ পূর্ণিমা 2024 তারিখ ও সময় | Sharad Purnima 2024 Date & Muhurat

শরৎ পূর্ণিমা 2024 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের শরৎ পূর্ণিমা 2024? শরৎ পূর্ণিমার শুভ সময় কখন? জানুন 2024 শরৎ পূর্ণিমার মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে শরৎ পূর্ণিমা? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও শরৎ পূর্ণিমার তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

শরৎ পূর্ণিমা তারিখ ও সময় | Sharad Purnima Date & Muhurat
শরৎ পূর্ণিমা 2024 তারিখ ও সময় | Sharad Purnima 2024 Date & Muhurat

শরৎ পূর্ণিমা 2024 (Sharad Purnima 2024): দেবী ভাগবত মহাপ্রাণ অনুযায়ী গোপিনীদের অনুরাগ দেখে কৃষ্ণ চন্দ্রকে মহারাসের সংকেত দিয়েছিলেন। এর ফলে চন্দ্র তার নিজের শীতল আলোক রশ্মিতে প্রকৃতিকে সম্পূর্ণ রূপে ঢেকে দিয়েছিল। এরপর কৃষ্ণ এবং গোপিনীদের অদ্ভুত ভালবাসা দেখে চন্দ্র অথবা চাঁদ অমৃত বর্ষা শুরু করেন।

এই বছর শরৎ পূর্ণিমা 2024 কবে?

Sharad Purnima Puja
16 October 2024
Wednesday

Purnima Muhurat Start
8:30 PM on 16 October 2024
Purnima Muhurat End
5:00 PM on 17 October 2024

শরৎ পূর্ণিমার বাংলায় তারিখ

শরৎ পূর্ণিমা পূজা
১৬ অক্টোবর ২০২৪
বুধবার

পূর্ণিমা মুহূর্ত শুরু
১৬ অক্টোবর ২০২৪, রাত্রি ৮ঃ৩০ টায়
পূর্ণিমা মুহূর্ত শেষ
১৭ অক্টোবর ২০২৪, বিকাল ৫ঃ০০ টায়

 

সমস্ত পূজা পার্বণের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎসব হলো শরৎ পূর্ণিমা। শরৎ পূর্ণিমার গুরুত্ব সম্পর্কে জানতে গেলে এই দিনে অগ্যস্ত তারা উদয় হবে এবং চাঁদের ষোল কলা পূর্ণ হয়ে শীতলতা প্রদান করবে।

শরৎ পূর্ণিমা পূজার পদ্ধতি 2024:

  • প্রথমত আপনাকে স্নান সেরে পরিষ্কার জামা কাপড় পড়তে হবে।
  • তারপর মন্দির অথবা বাড়ির যেখানে আপনি পূজা করে থাকেন সেখানে জল দিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করে নিন।
  • তারপর শুদ্ধ মনে লক্ষীর পাঁচালী পাঠ করে, পিতল, রূপা, তামা অথবা সোনার তৈরি লক্ষ্মীর প্রতিমাকে পূজা করুন।
  • লক্ষ্মী প্রতিমার সামনে ঘি এর প্রদীপ জ্বালিয়ে দিন।
  • সন্ধ্যায় দুধ দিয়ে ক্ষীর তৈরি করুন, এরপর রাতে যখন চাঁদ উঠবে, ঘরে ১১ টি ঘি এর প্রদীপ জ্বালান।
  • এবার সেই যে ক্ষীর তৈরি করেছেন, সেটা আকাশের নিচে চাঁদের আলোয় রাখুন, মা লক্ষ্মীর আরতি করুন।
  • রাত বারোটা বাজলে চাঁদের আলোতে রাখা ক্ষীরকে লক্ষ্মীর কাছে অর্পণ করে, বাড়ির সমস্ত লোককে প্রসাদ হিসেবে বিতরণ করতে পারেন।
  • মানা হয় যে এমন করলে সেই ক্ষীর অমৃত সমান হয়ে যায়।

এছাড়া শাস্ত্রমতে জানা যায় যে, যে সমস্ত ব্যক্তিরা অনেকদিন ধরে অর্থনৈতিক সমস্যায় ভুগছেন এবং দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতায় ভুগছেন তাদের জন্য এই দিনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, অত্যন্ত শুভ এবং ফল দায়ক। আশ্বিন মাসের শুক্ল পক্ষের পূর্ণিমা তিথি শরৎ পূর্ণিমা নামে পরিচিত। চাঁদের ষোল কলা পূর্ণ হয়ে থাকে এই পূর্ণিমায়।

প্রতিটি মানুষ চাইবেন সুস্থ সবল শরীর, ধন-সম্পত্তিতে ভরপুর জীবন। আর তাইতো শরৎ পূর্ণিমার এতখানি গুরুত্ব। আপনার সমস্ত রকম অসুস্থতা সারিয়ে তুলতে, সংসারে ধন-সম্পত্তি বৃদ্ধি, সুখ-শান্তি বজায় রাখার জন্য শরৎ পূর্ণিমার ব্রত পালন করতেই পারেন এবং দেবী লক্ষ্মীর আরাধনা করুন ঘরেতেই। এর ফলে আপনার লক্ষী লাভ হতে কোন বাধা থাকবে না।

Leave a Comment