wbcdwdsw.gov.in 2023 Women and Child Development and Social Welfare Department of West Bengal

West Bengal Women and Child Development and Social Welfare Department: একদিকে যেমন সারাদেশে নারী ও শিশুর বিরুদ্ধে অপরাধমূলক কাজ বেড়েই চলেছে, সেখানে এই রাজ্যে সরকার নারী ও শিশুদের উন্নয়নে শুরু করেছে একগুচ্ছ নয়া প্রকল্প, সাফল্যও এসেছে হাতে নাতে।

Women and Child Development and Social Welfare Department:

নারী উন্নয়ন ও সমাজ কল্যাণ বিভাগের দপ্তর গুলি হল সমাজকল্যাণ অধিকার, পশ্চিমবঙ্গ সমাজ কল্যাণ পরিষদ ভবঘুরে, নিয়ামক এর কার্যালয় প্রতিবন্ধীদের জন্য মহাজ্ঞের কার্যালয়, পশ্চিমবঙ্গ নারী কমিশন, পশ্চিমবঙ্গ নারী উন্নয়ন সংস্থা এবং রূপান্তরকামী উন্নয়ন পর্ষদ।

নারীর অধিকারের ক্রমবিকাশের সঙ্গে সঙ্গে বিভাগীয় কার্যক্রমের বিবর্তন ঘটেছে। জাতীয় রাজ্যস্তরে মহিলাদের জন্য নির্দিষ্ট আইন নীতি ও পরিকল্পনা সমূহের ভিত্তির ওপর নির্ভর করে অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি গণতান্ত্রিক ক্ষেত্রে অর্থাৎ কৈশোর প্রাপ্ত মহিলাদের ক্ষেত্রে এই বিভাগ তার সর্বশক্তি কেন্দ্রীভূত করেছে।

Women and Child Development and Social Welfare Department of West Bengal - wbcdwdsw.gov.in
Women and Child Development and Social Welfare Department of West Bengal – wbcdwdsw.gov.in

রাজ্যের মহিলাদের উদ্দেশ্যে প্রধান সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প, কন্যাশ্রী প্রকল্প, প্রকল্পের উদ্দেশ্য ছিল বাল্যবিবাহ রোধ করা ও মেয়েদের শিক্ষাগত আর্থিক ও সামাজিক অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে ১৩ থেকে ১৯ বছর বয়সী সামাজিকভাবে অরক্ষিত মহিলাদের অবস্থার উন্নতি ঘটানো এবং এর দ্বারা নিরাপদ ও সুরক্ষিত কৈশোরের পক্ষে উপযুক্ত উন্নয়নমূলক কাজ, তারা যেন সম্পন্ন করতে পারে তা সুনিশ্চিত করা।

১৯৯৩ সাল থেকে পশ্চিমবঙ্গের নারী উন্নয়ন সংস্থা নারীকেন্দ্রিক পরিকল্প গুলি রূপায়িত করতে থাকলেও জাতীয় নারী ক্ষমতায়নের অধীনে গঠিত রাজ্য মিশন সংস্থা অপেক্ষাকৃত নতুন রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই সংস্থার সভাপতি।

রাজ্য সরকারের প্রধান ২১ টি বিভাগের মঞ্চের সদস্য এবং নারী উন্নয়ন ও সমাজ কল্যাণ বিভাগের মন্ত্রী সদস্য। সংস্থাকে কারিগরি সহায়তা দেবার জন্য ২০১২ সালে স্থাপিত হয়েছে রাজ্য নারীর সম্পদ কেন্দ্র।

Women and Child Development and Social Welfare Department এর কাজ:

এই ডিপার্টমেন্ট নারী এবং শিশুদের সুরক্ষার জন্য বিভিন্ন রকমের প্রকল্প প্রণয়নের মাধ্যমে তাদের কার্য সম্পাদন করে চলেছে।

১) কন্যাশ্রী প্রকল্প: Kanyashree Prakalpa

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় ২০১৩ সালের ১ অক্টোবর এই প্রকল্প চালু হয়। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য বাল্যবিবাহ রোধ করা, রাজ্যের প্রতি অঞ্চলের প্রায় ১৫,৫০০ প্রতিষ্ঠান প্রথা বহির্ভূত বিদ্যালয়, মাদ্রাসা, কলেজ, মুক্ত বিদ্যালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়, বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, শিল্প প্রশিক্ষণ, এমনকি ক্রীড়া প্রশিক্ষণ, কেন্দ্রের প্রায় ৪০ লক্ষ কিশোরীকে এই প্রকল্পের অধীনে আনা হয়েছে।

পাঁচ হাজারেরও বেশি মেয়েকে আত্মরক্ষার প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

কন্যাশ্রী দিশারী (Kanyashree Dishari) নামে উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় কন্যাশ্রী প্রকল্প ভুক্ত মেয়েদের একটি বিশেষ শিক্ষামূলক এবং সচেতনতা মূলক প্রচার কর্মসূচী চালু করা হয়েছে।

বহুসংখ্যক কন্যাশ্রী প্রকল্প ভুক্ত মেয়েকে বৃত্তিমূলক এবং অন্যান্য দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

আজ পর্যন্ত কন্যাশ্রী প্রকল্প টি যে যে পুরস্কার অর্জন করেছে সেগুলি হল:

#) নারী ক্ষমতায়নের জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর কর্তৃক প্রদত্ত পুরস্কার, 2014

#) ই-উইমেন এন্ড এম্পাওয়ার্মেন্ট এর বিভাগে মন্থন অ্যাওয়ার্ড ফর ডিজিটাল ইনক্লিউশন ফর ডেভেলপমেন্ট (সাউথ এশিয়া এন্ড এশিয়া প্যাসিফিক) 2014

#) স্মার্ট গভর্নেন্স এর জন্য স্কচ উইনার অ্যাওয়ার্ড এবং আওয়ার্ড অফ মেরিট, 2015

#) ই-গভর্নেন্স এর জন্য সিএসআই নিহিলেন্ট অ্যাওয়ার্ড, 2014-2015

#) ই-গভর্মেন্ট ক্যাটাগরিতে ইউনাইটেড ন্যাশনাল ডাবলু এস আই এস পুরস্কার 2016 চ্যাম্পিয়ন (ডাবলু এস আই এস একশন লাইন সি 7)

#) ইউ এন ডব্লিউ এম ই এন এন্ড আই টি ইউ প্রদত্ত ফাইনালিস্ট ইন জেমটেক (GEM Tech) পুরস্কার, 2016

২) স্বাবলম্বন প্রকল্প: Swabalamban Prakalpa

এই প্রকল্প টি বেসরকারি সংস্থা অথবা কোম্পানির মাধ্যমে রূপায়িত হচ্ছে স্বাবলম্বন, সমাজের প্রান্তিক অসহায় মহিলা, নারী পাচার চক্র থেকে উদ্ধার হওয়া মহিলা, যৌনকর্মী, রূপান্তরকামী সম্প্রদায় এবং ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী অনৈতিক বিপদের সম্মুখীন মহিলাদের বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। প্রয়োজনে অবশ্য বয়স ৪৫ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য।

#) এক্ষেত্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ওয়াও মোমো, প্যান্টালুনস, কোঠারি, অউ বো পে প্রভৃতি বিভিন্ন প্রখ্যাত বিপনীতে সফলভাবে কাজ করছেন।

#) ৩০ জন কন্যাশ্রী মেয়েকে ব্রেইন ওয়াশ এর ব্যবস্থাপনায় এই স্বাবলম্বন প্রকল্পের অধীন আনআর্মড সিকিউরিটি গার্ডের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। যাদের মধ্যে ১৬ জন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত।

৩) মুক্তির আলো প্রকল্প: Muktir Alo Scheme

২০১৫ সালের ৪ সেপ্টেম্বর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কর্তৃক যৌনকর্মী ও পাচার থেকে উদ্ধার হওয়া মেয়েদের পূনর্বাসনের এই প্রকল্প চালু হয়।

#) উইমেনস ইন্টারলিংক ফাউন্ডেশন এর সহায়তায় ৫০ জনকে ব্লক প্রিন্টিং এবং মশলা গুঁড়ো করার প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

#) কলকাতার মুন্সিগঞ্জ নিষিদ্ধ এলাকার ২৬ জন পেশাদার যৌনকর্মী কে ডিভাইন স্ক্রিপ্ট সোসাইটি নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সহায়তায় ডায়াল যতদূর পুনর্ব্যবহার এবং ক্যাফেটেরিয়া পরিচালনা করার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ১২ জন পরিচালিত কিয়ক্স এ কাজ করছেন।

৪) স্বাবলম্বন স্পেশাল: Swabalamban Special

#) বর্তমানে চালু থাকা স্বাবলম্বন প্রকল্পের অধীন আর একটি প্রকল্প হল স্বাবলম্বন স্পেশাল, যার উদ্দেশ্যে কলকাতা অঞ্চলের যৌনকর্মী এবং তাদের ঝুঁকি নির্ভর সন্তানদের বিকল্প জীবিকার মাধ্যমে সমাজের মূল স্রোতে নিয়ে আসতে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা।

৫) কিশোরী মেয়েদের প্রকল্প (সবলা): Sabala Prakalpa

২০১১ সালের জুলাই মাস থেকে রাজ্যের সাতটি জেলা কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, মালদা, নদিয়া, কলকাতা এবং পুরুলিয়ার পাইলট ভিত্তিতে ১৪১ টি আইসিডিএস প্রজেক্ট থেকে ২৯,৪৪৪ অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে প্রকল্পটি চলছে কিশোরী মেয়েদের জন্য (যার উদ্দেশ্যে ১১ থেকে ১৮ বছর বয়সী মেয়েদের পুষ্টিগত ও স্বাস্থ্যগত অবস্থার উন্নতি এবং জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষতা অর্জনে প্রশিক্ষণ দিয়ে যোগ্য করে তোলা)।

১১ থেকে ১৮ বছর বয়সী ১২.৭২ লক্ষ্য কিশোরী মেয়ে সবলা প্রকল্পের (Sabala Scheme) মাধ্যমে সুবিধা পাচ্ছে। জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষতা অর্জন এবং পরিবার কল্যাণ স্বাস্থ্য এবং পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন, বর্তমান পরিষেবাগুলি সম্পর্কে তথ্য ও নির্দেশ পাচ্ছে।

Women and Child Development and Social Welfare Department এর ওয়েবসাইট:

এই ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটটি হল: www.wbcdwdsw.gov.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে নারী ও শিশু উন্নয়ন ও সমাজ কল্যাণ দপ্তর এর সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানা যায়।

Women and Child Development and Social Welfare Department এর ওয়েবসাইটের কাজ:

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের এই দপ্তর এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় নারী ও সমাজকল্যাণমূলক বিভিন্ন কাজে বিভিন্ন রকমের প্রকল্প প্রণয়ন এবং তা বাস্তবে বাস্তবায়ন করার মধ্যে দিয়ে, বাল্যবিবাহ, শিশুশ্রম ইত্যাদি বিষয়ে অনেক উন্নতি সাধন করা গিয়েছে।

Women and Child Development and Social Welfare Department of West Bengal
Women and Child Development and Social Welfare Department of West Bengal

সে বিষয়ে কি কি প্রকল্প প্রণয়ন করা হয়েছে, বা করা হতে চলেছে তা জানার জন্য এই ডিপার্টমেন্টের www.wbcdwdsw.gov.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে গিয়ে বিস্তারিত ভাবে জানা যায়।

গত কয়েক বছরে বিভিন্ন জেলায় প্রায় ৪১ হাজার বিদ্যালয় বহির্ভূত কিশোরী মেয়ে, যাদের বয়স ১৬ থেকে ১৮, বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, স্বেচ্ছাসেবী, প্রশিক্ষিত ব্যাক্তিদের মাধ্যমে বিউটিশিয়ান, হস্তশিল্প, সেলাই, ছাপাখানা, এবং ডাইং খাদ্য প্রক্রিয়াকরণে বিভিন্ন পেশায় বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

কন্যাশ্রী প্রকল্পের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে সবলা ৫৮৬৮ জন কন্যাশ্রী প্রকল্পের আওতাভুক্ত মেয়েকে সবলা দ্বারা পরিপূর্ণ পুষ্টি, কর্মসূচি প্রদান করা হয়েছে। প্রায় ১৬০০ বিদ্যালয় বহির্ভূত মেয়ে প্রথাগত / প্রথা বহির্ভূত শিক্ষা ব্যবস্থায় পুনরায় যুক্ত হয়েছে। এবং এদের মধ্যে ৫০ শতাংশই কন্যাশ্রী প্রকল্পের আওতায়।

এই দপ্তরের তৎপরতায় অনেক মেয়েদের বাল্যবিবাহ রোধ করা গিয়েছে, তার সাথে সাথে তাদের কর্ম সংস্থান এবং আর্থিক সহযোগিতার মধ্যে দিয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার আগ্রহও প্রদান করা গিয়েছে, এই দপ্তরের তৎপরতায়।

Women and Child Development and Social Welfare Department এর কিছু তথ্য:

এই ডিপার্টমেন্টের Minister-in-Charge:

ডক্টর শশী পাঁজা,

ঠিকানা:  বিকাশ ভবন, 10th floor, Salt Lake City, Kolkata- 700091

ফোন নাম্বার: 2334 5673

ফ্যাক্স: 2334 5673

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

এই ডিপার্টমেন্টের সেক্রেটারি:

শ্রীমতি সংঘমিত্রা ঘোষ, I.A.S.

ঠিকানা:  বিকাশ ভবন, 10th floor, Salt Lake City, Kolkata- 700091

ফোন নাম্বার: 2334 1563

ফ্যাক্স: 2334 1918

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

এই ডিপার্টমেন্টের Nodal অফিসার:

শ্রী অভিজিৎ কুমার মিত্র, Joint Secretary

ঠিকানা:  বিকাশ ভবন, 10th floor, Salt Lake City, Kolkata- 700091

ফোন নাম্বার: 2334 1958

ফ্যাক্স: 23 34 1958

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

Official Website Click here
Home Click here

Leave a Comment