wbscvet.nic.in 2022 Technical Education Training and Skill Development Department of West Bengal

West Bengal Technical Education Training and Skill Development Department: পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কারিগরি শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং দক্ষতা উন্নয়ন দপ্তরের একটি উদ্যোগ এর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে।

কারিগরি শিক্ষা প্রশিক্ষণ এবং দক্ষতা উন্নয়ন দপ্তরের বিভিন্ন কর্মসূচির সাফল্য ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা দপ্তর বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের মাধ্যমে সফল করে চলেছে।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কাউন্সিল অফ টেকনিক্যাল এন্ড ভোকেশনাল এডুকেশন এন্ড স্কিল ডেভেলপমেন্ট, অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা এবং দক্ষতা উন্নয়ন পর্ষদ।

Technical Education Training and Skill Development Department of West Bengal - wbscvet.nic.in
Technical Education Training and Skill Development Department of West Bengal – wbscvet.nic.in

প্রশাসন ও পরীক্ষার জন্য রাজ্য সরকার বৃত্তিমূলক কোর্স কোষগুলি পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য জুড়ে উচ্চ মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, বিদ্যালয় এবং পলিটেকনিক কলেজ গুলির মত বিভিন্ন অনুমোদিত সংস্থা থেকে দেওয়া হয়।

সুচিপত্র

এই ডিপার্টমেন্টের ইতিহাস:

এই ডিপার্টমেন্ট ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, বৃত্তিমূলক স্ট্রিম ২০০৫ সালের স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে এবং তখন থেকেই পশ্চিমবঙ্গের সফলতার সাথে চলছিল।

২০১৩ সালের ৫ ডিসেম্বর সরকার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় একটি বিল এনেছিল (২০১৩ সালের ৩১ নম্বর বিল কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও দক্ষতা বিকাশের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কাউন্সিল) এই বিলটি ১৫ ই জুলাই ২০১৫ বিধানসভায় পাস করা হয়েছিল।

টেকনিকেল এডুকেশন অর্থাৎ কারিগরি শিক্ষা:

যে বিশেষ শিক্ষার দ্বারা দক্ষতার বিকাশ ঘটানো হয় তাকে বলে কারিগরি শিক্ষা। অর্থাৎ যে শিক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী শিল্প বাণিজ্য কৃষি ও কল- কারখানার যন্ত্রপাতি ব্যবহারের জন্য বৈজ্ঞানিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়, সেই শিক্ষা কে বলা হয় কারিগরি শিক্ষা।

যেমন ধরুন কলকারখানায় যন্ত্র সামগ্রী পরিচালনার দক্ষতা অর্জন করা, শিক্ষাব্যবস্থা মানুষের জীবন ও জীবিকা নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি হল-

#১) জুনিয়র টেকনিক্যাল স্কুল (Junior Technical School)

#২) মেডিকেল কলেজ (Medical College)

#৩) চিত্রকলা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (Painting Training Center)

#৪) কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (Agricultural University)

#৫) পলিটেকনিক কলেজ (Polytechnic College), ইত্যাদি।

Technical Education Training and Skill Development Department এর কাজ ও উদ্দেশ্য:

আধুনিক শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হলো ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের জন্য পরিপূর্ণভাবে প্রস্তুত করা। অর্থাৎ উৎপাদনশীলতা বাড়ানোর জন্য পরিকল্পনা করতে হবে। বৃত্তিমুখী ও কারিগরি শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা গুলি সম্পর্কে জানা যাক-

#১) উৎপাদনশীলতা: Productivity

বৃত্তি ও কারিগরি শিক্ষা শিক্ষার্থীদের একটি উৎপাদন মূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত করে। সমাজ ও দেশের উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

#২) স্বনির্ভরতা: Self-reliance

বৃত্তি মুখী ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিটি শিক্ষার্থীকে স্বনির্ভর হতে সহায়তা করে। এই শিক্ষার ফলে শিক্ষার্থীরা হয়তো কোন চাকরির সুযোগ পায় নয়তো সনিযুক্ত কাজে যুক্ত হতে পারে।

#৩) জাতীয় আয় বৃদ্ধি: Increase in national income

বৃত্তি বৃত্তিমুখী ও কারিগরি শিক্ষার যেহেতু উৎপাদনভিত্তিক শিক্ষা, তাই এটি জাতীয় আয় বৃদ্ধি ও দেশের উন্নতি সাধনে অনেকটাই সাহায্য করে।

#৪) বিশেষজ্ঞ সৃষ্টি করা: Creating experts

এই শিক্ষার অপর একটি উদ্দেশ্য হলো বিশেষজ্ঞ সৃষ্টি করা। এই শিক্ষার অর্জিত জ্ঞান বা দক্ষতা শিক্ষার্থীকে তার ভবিষ্যৎ জীবনের নির্দিষ্ট বিশেষ বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে সাহায্য করে।

#৫) অর্থনৈতিক নিরাপত্তা দান করা: Donate economic security

জীবনে বাঁচার জন্য, ভালোভাবে বেঁচে থাকার জন্য আর্থিক সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন। সেই কারণে জীবিকা নির্বাহের জন্য কোন কাজ মানুষকে করতেই হয়। সে ক্ষেত্রে বৃত্তিমুখী ও কারিগরি শিক্ষা শিক্ষার্থীকে ভবিষ্যৎ জীবন জীবিকা অর্জনে সহায়তা করে। যা তাকে তার জীবনের অর্থনৈতিক নিরাপত্তা দিয়ে থাকে।

#৬) শিক্ষার্থীদের আগ্রহ প্রবণতা ও বিশেষ ক্ষমতা অগ্রাধিকার দেওয়া:

(Prioritize students’ interest tendencies and special abilities) পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি ডিপার্টমেন্ট প্রতিটি শিক্ষার্থীকে নিজেদেরকে স্বনির্ভর হতে সাহায্য করার জন্য তরফ থেকে যথেষ্ট সহযোগিতা করে থাকে।

এই শিক্ষার অপর উদ্দেশ্য হলো শিক্ষার্থীর বিশেষ ক্ষমতা, আগ্রহ, চাহিদা বা প্রবণতাকে কাজে লাগানোর। এক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের বৃত্তির মধ্যে যা থেকে শিক্ষার্থীরা তাদের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী বিশেষ শিক্ষার বিষয়টি নির্বাচন করতে পারে।

#৭) জীবনে প্রতিষ্ঠা লাভ: Establishment in life

জীবনে সফল হতে কে না চায় বলুন, সকলেই চায় যে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হতে। আর সেই বিষয়ের দিকে খেয়াল রেখে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের এই ডিপার্টমেন্ট বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

বৃত্তিমূলক শিক্ষার মাধ্যমে জীবনে প্রতিষ্ঠা লাভের উপায় তৈরি হয়। ব্যতিক্রমী শিশুদের জন্য এই ধরনের বৃত্তিমূলক শিক্ষা খুবই প্রয়োজন। যার ফলে তারা কিছু উৎপাদনমূলক কাজে নিজেদের নিযুক্ত করতে পারে, এবং অর্থ উপার্জনে সক্ষম হতে পারে।

#৮) শ্রমের প্রতি মর্যাদা: Dignity towards labor

এ বিষয়ে একটা বিষয় বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ যে, এই শিক্ষায় শিক্ষার্থীরা যেহেতু শারীরিক পরিশ্রমের মাধ্যমে অর্জন করে থাকে, সেহেতু এর মাধ্যমে তাদের সম্পর্কে একটা মর্যাদাবোধ সৃষ্টি হয়। যার ফলে ভবিষ্যতে পরিশ্রমকে অনেকটা বেশি গুরুত্ব দিতে শিখবে তারা।

#৯) শিক্ষার প্রতি ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি: Positive attitude towards education

পুঁথিগত নিরস শিক্ষার একঘেয়েমি থেকে দূর করে ব্যবহারে ও হাতে-কলমে শিক্ষা। এতে বেশি উৎসাহিত হয়ে থাকে যে কোনো শিক্ষার্থী, তারা আরও বেশি ভালোভাবে সেই শিক্ষা অর্জন করতে পারে। এই শিক্ষায় তাদের উৎসাহ বৃদ্ধি একপ্রকার ইতিবাচক মনোভাব গড়ে তোলে। কোন কাজের ক্ষেত্রে সুন্দর মানসিকতা তৈরি হয়।

#১০) কর্মের সুযোগ: Opportunity for action

কর্মই ধর্ম, কথাটা অনেকেরই বলতে শোনা যায়, সে ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের একদিন না একদিন জীবিকা নির্বাহের জন্য কর্মের সন্ধান করতেই হয়। সেই কারণে বৃত্তিমূলক ও কারিগরি শিক্ষা, শিক্ষার্থীদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি করে।

চাকরি বা কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে, সুতরাং বৃত্তিমুখী ও কারিগরি শিক্ষা হলো ব্যক্তিগত, নির্বাচন ধর্মী, বৈচিত্র্যপূর্ণ, ব্যবহারিক, স্বনির্ভরতার শিক্ষা। শিক্ষার্থীকে সকল দিক থেকে পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটিয়ে থাকে।

Technical Education Training and Skill Development Department এর ওয়েবসাইট:

এই ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটটি হল: www.wbscvet.nic.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে এই ডিপার্টমেন্টের তথ্য সম্পর্কে জানা যায়।

Technical Education Training and Skill Development Department এর ওয়েবসাইটের কাজ:

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের বৃত্তিমূলক কারিগরি ও দক্ষতা উন্নয়ন দপ্তরের www.wbscvet.nic.in এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন রকমের বৃত্তিমূলক শিক্ষার মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ সুবিধা দেওয়ার বিভিন্ন রকমের পদক্ষেপ সম্পর্কে জানা যায় অনায়াসেই।

ই -লার্নিং ক্লাস গুলি নতুন অ্যাপস জুম (Zoom), গুগল মিট (Google Meet), এবং হোয়াটসঅ্যাপ প্ল্যাটফর্ম (WhatsApp platform) এর মাধ্যমে পরিচালিত হয়। এছাড়াও বিভিন্ন আই টি আইয়ের ইনস্ট্রাকচাররা ইউটিউবেও বাংলাতে বিভিন্ন বিষয় বস্তু আপলোড করেন।

কারণ করোনা অতিমারিতে প্রায় সমস্ত ক্ষেত্রে সমস্ত সংস্থার পরিকল্পনা এবং তার বাস্তবায়নের পথকে অবরুদ্ধ করে তুলেছে। সেই কারণে এই ভাবেই শিক্ষার্থীদের পঠন-পাঠন চালিয়ে যেতে হয়েছে।

রাজ্যের বৃত্তিমূলক শিক্ষার প্রতিষ্ঠান শিক্ষাকেন্দ্র গুলিকে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন রকম রেকারেন্ট গ্লান্ড দেওয়া হয়। শিক্ষকদের প্রতি মাসের পারিশ্রমিক ভাতা যেমন চিরাচরিত ম্যানুয়াল সিস্টেম এর পরিবর্তে অনলাইন অটোমেটেড ইন্টিগ্রেটেড অনলাইন সালারি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের (Online Automated Integrated Online Salary Management System) মাধ্যমে দেয়া হচ্ছে।

এছাড়া বহুদূরের বৃত্তিমূলক শিক্ষা কেন্দ্র গুলির সুবিধার জন্য এবং সময়ের মধ্যে গ্র্যান্ড দেওয়া ও ব্যবহারের পর ইউটিলাইজেশন সার্টিফিকেট (Utilization certificate) জমা নেওয়া তথা শিক্ষা কেন্দ্র গুলির রিকুইজিশন অনুযায়ী পরবর্তী অর্ডারের রেকারেন্ট দেওয়ার ব্যবস্থা কে সহজ করার জন্য নতুন একটি অনলাইন মডিউল আই ও এস এম এস এর সাথে জুড়ে দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে।

এছাড়া খেলাধুলা, বৃক্ষরোপণ, সৃজনশীল মূলক কাজ কর্মে উৎসাহিত করে তুলতে শিক্ষার্থীদের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের এই ডিপার্টমেন্ট বিশেষ ভূমিকা পালন করে। লকডাউন এর মধ্যেও অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষাদান প্রক্রিয়া চলছে।

Technical Education Training and Skill Development Department এর কিছু তথ্য:

এই ডিপার্টমেন্টের মিনিস্টার অফ স্টেট, (Independent Charge):

জনাব হুমায়ুন কবির

ঠিকানা:  কারিগরি ভবন, 2nd floor, Action Area:lll, Plot: B-7, New Town, রাজারহাট, কলকাতা -700160

ফোন নাম্বার: 23 24 5854

ফ্যাক্স: 23 24 5853

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

এই ডিপার্টমেন্টের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি:

শ্রী অনুপ কুমার আগারওয়াল, I.A.S.

ঠিকানা:  কারিগরি ভবন, 2nd floor, Action Area:lll, Plot: B-7, New Town, রাজারহাট, কলকাতা -700160

ফোন নাম্বার: 23 24 4 799

ফ্যাক্স: 23 24 7888

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

এই ডিপার্টমেন্টের Nodal অফিসার:

শ্রী নিতিশ কুমার দাস, WBCS (Exe), Joint Secretary

ঠিকানা:  কারিগরি ভবন, 3rd floor, Action Area:lll, Plot: B-7, New Town, রাজারহাট, কলকাতা -700160

ফোন নাম্বার: 2324 4512

ফ্যাক্স: 2324 7888

ইমেইল এড্রেস: [email protected]

Official Website Click here
Home Click Here

Leave a Comment