বৈশাখী 2023 তারিখ ও সময় | Vaisakhi 2023 Date & Muhurat

বৈশাখী 2023 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের বৈশাখী 2023? বৈশাখীর শুভ সময় কখন? জানুন 2023 বৈশাখীর মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে বৈশাখী? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও বৈশাখীর তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

বৈশাখী তারিখ ও সময় | Vaisakhi Date & Muhurat
বৈশাখী 2023 তারিখ ও সময় | Vaisakhi 2023 Date & Muhurat

বৈশাখী 2023 (Vaisakhi 2023): বৈশাখী ফসল উৎসব, গঙ্গা নদীয, ঝিলাম নদী এবং কাবেরী নদীর মত পবিত্র নদীতে স্নান করা, মন্দির পরিদর্শন করা, বন্ধুদের সাথে দেখা করা এবং আরো অন্যান্য উৎসব গুলোতে অংশগ্রহণ করার জন্য এটি একটি উপলক্ষ মাত্র। ভারতের অন্যান্য অঞ্চলে বৈশাখী উৎসব বিভিন্ন আঞ্চলিক নামে পরিচিত।

এই বছর বৈশাখী 2023 কবে?

Vaisakhi / Sikh New Year
14 April 2023
Friday

বৈশাখীর বাংলায় তারিখ

বৈশাখী / শিখ নববর্ষ
১৪ এপ্রিল ২০২৩
শুক্রবার

 

বৈশাখী উৎসবে গুরুদুয়ার গুলি সুসজ্জিত করে রাখা হয় এবং সেখানে কীর্তন চলে, শিখরা স্থানীয় গুরু তার সম্প্রদায়ের মেলা এবং নগর কীর্তন মিছিল গুলি অনুষ্ঠিত করে থাকেন। সবাই উৎসাহের সাথে বিভিন্ন ধরনের খাবার এবং সামাজিকীকরণ গুলি ভাগাভাগি করে নেওয়ার জন্য জড়ো হয়ে থাকেন। অনেক হিন্দুদের কাছে এই উৎসবটি তাদের কাছে ঐতিহ্যবাহী সৌর নববর্ষ।

বৈশাখী উৎসব হল শিখদের একটি ঐতিহাসিক, ধর্মীয় উৎসব। ১৩ তারিখ অথবা ১৪ ই এপ্রিলে পালন করা হয়। তাছাড়া বৈশাখ মাসের প্রথম দিকে এই বৈশাখী উৎসব পালন করা হয়ে থাকে। শিখদের জন্য এই দিনটি খালসা পন্থা যোদ্ধাদের অধীনে গুরু গোবিন্দ সিং কে উদ্দেশ্য করে পালন করা হয়।

বৈশাখী নবান্ন উৎসব 2023: 

লোকদের জন্য একটি ফসল উৎসব হলো, পাঞ্জাব অঞ্চলে বৈশাখী উপলক্ষে রবি ফসল তোলা। এই দিনটি কৃষকদের দ্বারা একটি ধন্যবাদ দিবস হিসেবে পালন করা হয়। যার মাধ্যমে কৃষকরা তাদের শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রচুর ফসলের জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানায় এবং ভবিষ্যতে সমৃদ্ধির জন্য প্রার্থনাও করেন। শিখ এবং পাঞ্জাবি হিন্দুরা ফসল উৎসব পালন করে থাকেন এই দিনটিতে।

ঐতিহ্যগত ভাবে বিশ শতকের গোড়ার দিকে বৈশাখী ছিল শিখ ও হিন্দুদের জন্য একটি পবিত্র দিন এবং পাঞ্জাবি, খ্রিস্টান সহ সমস্ত মুসলমান এবং অমুসলিমদের জন্য একটি ধর্মনিরপেক্ষ উৎসব। আধুনিক যুগে কখনো কখনো খ্রিস্টানরা, শিখ ও হিন্দুদের সাথে বৈশাখী উদযাপনে অংশগ্রহণ করে থাকেন।

এই দিনে পরিবারকে আলোকিত করেন এবং পূজা বেধি এবং তাদের স্থানীয় মন্দিরগুলি সুন্দর করে সাজিয়ে থাকেন। তাছাড়া সকলেই নতুন পোশাক পরে শ্রদ্ধা জানাতে এবং তাদের আশীর্বাদ নেওয়ার জন্য  বয়স্ক ব্যক্তিদের কাছে যান।

পাঞ্জাবের অন্যান্য ফসলের মধ্যে আখ হলো একটি মৌসুমী ফসল, বৈশাখী উৎসবের দিনে আখের রস বের করে সবাইকে খাইয়ে বৈশাখী উৎসব পালন করা হয়। যেটি এই উৎসবের সাথে বিশেষভাবে জড়িত।

বৈশাখ মাসের প্রথম দিকে নানক শাহী ক্যালেন্ডার হিসেবে মেশা  রসির সূর্যের প্রবেশের চিহ্ন কে চিহ্নিত করা হয়, বৈশাখী তাই সৌর বর্ষপঞ্জি দ্বারা নির্ধারিত করা হয়। বৈশাখী সাধারণত ১৪ ই এপ্রিল এবং ১৫ ই এপ্রিল প্রতি ৩৬ বছরে একবার আসে।

Leave a Comment