গ্রামে জমি কেনার সময় কি মনে রাখা উচিত?

দিন দিন মানুষ শহরমুখি হচ্ছে আর বেড়ে যাচ্ছে শহরের জমির চাহিদা। লক্ষ লক্ষ মানুষ শহরে বসবাস করছে । তাই শহরের জমির চাহিদা এখন আকাশছোঁয়া। বছর বছর বেড়ে যাচ্ছে জমির মূল্য। মধ্যবিত্তের জন্য এখন শহরে জমি কেনাটা অনেক কষ্টসাধ্য। এরই ফাঁকে কেউ কেউ চান গ্রামে কিছু জমি কিনে রাখতে। গ্রামে যাতায়াতটা মাঝে মাঝে হলো, সেই সাথে গ্রামেও এখন জীবনযাত্রা উন্নয়নের দিকে। প্রায় সকল গ্রামেই বিদ্যুৎ সুবিধা পৌছে গেছে। যাতায়াত ব্যবস্থাও অনেকটাই ভালো। 

 

এজন্য বর্তমান সময়ে গ্রামে জমি কেনাটাও ভালো বিনিয়োগ। অনেকই ইতিমধ্যে গ্রামে জমি কেনার চেষ্টা করছেন, কোন দিকে জমি কিনলে ভালো হবে। কিন্তু আপনি দেখে শুনে ভালো জায়গায় জমি কিনতে না পারলে ঐ জমি থেকে লাভবান হওয়া অনেক কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। তাই আপনাকে গ্রামে জমি কেনার আগেই কিছু জিনিস বিবেচনায় আনতে হবে। তানা হলে জমি কিনে খুব একটা লাভ হবে না। 

 

আমাদের সাইটে নিয়মিতভাবে আপনাদের সাথে জমি সংক্রান্ত নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করে থাকি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আপনাদের সাথে  গ্রামে জমি কেনার সময় কি কি মনে রাখতে হবে তার বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করবো। এর ফলে আপনারা বুঝতে পারবেন গ্রামে জমি কেনার সময় কি কি মনে রাখা উচিত। সেই সাথে যেখানে সেখানে জমি কিনে পরে দুঃখ করার হাত হতে রক্ষা পাবেন।

 

গ্রামে জমি কেনার সময় কি মনে রাখা উচিত 

নিচে আমরা গ্রামে জমি কেনার সময় কি কি মনে রাখা উচিত তার বিস্তারিত বর্ণনা দিচ্ছি। 

 

গ্রামটি ভবিষ্যতে কেমন উন্নত হবে ? 

আমাদের অতীতের অভিজ্ঞতা বলে যে, কিছু কিছু গ্রাম দ্রুত উন্নয়ন লাভ করে । নানা নাগরিক সুবিধা বেড়ে যায় এবং সেই সাথে বানিজ্যিক নানা কর্মকান্ড শুরু হয়। এভাবে গ্রাম হয়ে উঠে প্রানচঞ্চল ও অর্থনৈতিক সমবৃদ্ধির কেন্দ্রবিন্দু।

 

তখন ঐ গ্রামের জমি দাম অনেক বেড়ে যায় সেই সাথে সেখানের জমিতে ভবন নির্মান করে অনেক টাকা আয় করা যায়। তাই আপনাকে গ্রামে জমি কেনার আগে ভেবে দেখতে হবে যে, ঐ গ্রামের উন্নয়নের সম্ভাবনা কেমন । যদি ভালো উন্নয়ন হবে বলে মনে হয় তাহলে ঐ গ্রামে জমি কেনা লাভজনক হবে। 

 

ঐ গ্রামের জনসংখ্যা কত? 

গ্রামে জমি কেনার সময় দেখতে হবে যে, ঐ গ্রামের জনসংখ্যা কত। একটি গ্রামে অনেক জনসংখ্যা থাকলে পরিবেশ ভালো থাকে না। সেই সাথে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা থাকে। তাই গ্রামে জমি কেনার আগে ঐ গ্রামে জনসংখ্যা কেমন তা দেখে নিতে হবে। 

 

গ্রামের শিল্পায়নের সম্ভাবনা কেমন? 

কোম গ্রামে শিল্পায়নের ছোঁয়া লাগলে সেখানাকার সামাজিক অবস্থা দ্রুত পরিবর্তন হয়ে যায়। সেখানে আবাসন ব্যবস্থা গড়ে উঠে, যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নত হয়, নাগরিকদের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হয়। এভাবে পুরো গ্রামেই এর সুফল পায়। তাই জমি দামও অনেক বেড়ে যায়।

 

এতে করে জমির মালিকগন এর সুফল পায়। তাই গ্রামে জমি কেনার সময় যদি এমন স্থানে জমি কিনতে পারেন, যেখানে দ্রুত শিল্পায়নের সম্ভাবনা আছে, তাহলে সেখানে জমি কিনে আপনি সুফল পাবেন। এজন্য জমি কেনার সময় এটি বিবেচনায় রাখবেন। 

গ্রামের জমির চারপাশে কি আছে? 

আপনার জমির চারপাশে কি আছে, বা কিছু দূরে কি কি আছে তা দেখে নিয়ে জমি কিনতে হয়। আপনার জমির পাশেই কোন কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় থাকলে তার কারণে জমিতে আবাসন করে দিলে ভাড়া দিয়ে ভালো টাকা আয় করতে পারবেন। তাই জমির চারপাশে কি আছে তা দেখে জমি কিনতে হবে। 

 

বন্যার প্রকোপ আছে কিনা 

আপনার ক্রয়কৃত জমিতে প্রতিবছর বন্যার পানি হানা দেয়  কিনা তা খোঁজ নিতে হবে। তা নাহলে বন্যার সময় আপনার জমির ফসল তলিয়ে যাবে এবং আপনি আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবেন। তাই আগেই ভালো করে জেনে নেবেন যে, ঐ জমিতে বন্যার পানি আসে কিনা। আশেপাশে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ আছে কিনা তা দেখে নিতে হবে। 

 

আজ আমরা আপনাদের সাথে গ্রামে জমি কেনার সময় কি কি মনে রাখতে হবে তা আলোচনা করলাম।এর ফলে আপনার জমি কেনার সময় বিষয়গুলি বিবেচনায় রেখে ভালো ও লাভজনক জমি কিনতে পারবেন।

 

আমাদের পরবর্তী লেখায় এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা থাকবে, তাই আমাদের সাইটে নিয়মিত চোখ রাখুন। এই লেখাটি অনেকের কাজে লাগতে পারে তাই লেখাটি যতটুকু সম্ভব শেয়ার করুন, যাতে করে অনেকে এই লেখা থেকে শিক্ষা নিয়ে জমি থেকে আয় করার ব্যবস্থা করতে পারে। 

Leave a Comment