গরমের দিনে স্টাইলিশ থাকার কিছু কার্যকর টিপস – Summer Stylish Tips in Bangla

গরমকাল চলে এসেছে, সূর্যের তাপ বৃদ্ধির পাচ্ছে, এক মিনিটও রোদে বা বাইরে থাকলেও উত্তাপে ঘেমে নেয়ে যাচ্ছি আমরা। যারা সবসময় বাইরে কাজ করেন তাদের সমস্যা আরও বেশী।

গরমের সময় জামাকাপড়ের অবস্থা খুব দ্রুতই ঘামে নষ্ট হয়ে যায়, বার বার তৃষ্ণা পায়, মেকআপ বা অন্যান্য সাজগোজও নষ্ট হয়ে যায় দ্রুত।

কিন্তু তাই বলে কি গরমের দিনে স্টাইলিশ থাকতে পারব না আমরা? অবশ্যই পারব, কিছু বিষয় মেনে চললেই আমরা গরমের সময়েও রোদ-গরম, ধুলা-ময়লা সবকিছুর ভিতরেও নিজেদের স্টাইলিশ রাখতে পারব।

Summer Stylish Tips in Bangla
Summer Stylish Tips for Man & Women in Bangla

শীত বা অন্যান্য ঋতুতে যে পোশাক বা স্টাইল আমরা করে থাকি, তা গরমের জন্য মোটেও আরামদায়ক হবেনা। গরমের ফ্যাশন ও স্টাইলের জন্য অনুসরণ করা উচিত আলাদা টিপস।

আমাদের আজকের আয়োজনে থাকছে গরমের দিনে সবসময় স্টাইলিশ থাকার কার্যকর টিপস। যারা সবসময় সব ঋতুতে নিজেদের স্টাইলিশ দেখাতে চান তাদের জন্য টিপসগুলো খুবই উপকারী হবে।

চলুন প্রিয় পাঠক, দেরী না করে আলোচনা শুরু করা যাক। গরমের দিনে সবসময় স্টাইলিশ থাকার কার্যকর টিপস:

১. ছাতা, টুপি এবং সানগ্লাস ব্যবহার করুন

গরমের দিনে যারা বাইরে বের হবেন সাথে অবশ্যই ছাতা, টুপি এবং সানগ্লাস রাখুন।

কারণ সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মি ত্বকে প্রবেশ করলেই ত্বক পুড়ে কালচেদাগ হয়ে যায়, গ্রীষ্মের কড়া রোদ মাথায় লাগলে মাথাব্যথা, ডিহাইড্রেশনসহ নানা শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। তাই সবসময় ছাতা ব্যবহার করুন।

এতে অতিরিক্ত তাপ থেকে রক্ষা পাবেন, তাতে সহজে ঘেমে যাবেন না, ধুলা-বালির হাত থেকেও বাচতে পারবেন।

তাছাড়া, মানানসই টুপি, ছাতা ব্যবহার করলে তা স্টাইলিশও দেখাবে। নিজের ফেস শেপের সাথে মিলিয়ে সানগ্লাস পরুন, গরমে এটা আপনার চোখে রোদলাগা থেকে বাঁচাবে সেই সাথে দেখাবে স্টাইলিশ।

এভাবেই স্টাইল এবং সুরক্ষার সমন্বয় ঘটাতে পারলেই তা গরমের দিনে আরামদায়ক এবং ফ্যাশনেবল দুইই হবে।

২. ঢিলেঢালা পোশাক

গরমের সময় পোশাকে পরিবর্তন আনুন। অন্যান্য মৌসুমে যেসব ভারী,গাঢ় কালারের পোশাক পরেন সেগুলো গরমে মোটেই আরামদায়ক হবেনা। খুব গাঢ় রং এসময় পরলে গরম ও বেশী লাগবে, ঘাম এবং দুর্গন্ধও হবে।

এজন্য এসময় হালকা পোশাক যেমন সুতি, লিনেন, হালকা খাদির পোশাক পরুন। বর্তমানে মেয়েদের জন্য ম্যাক্সি ড্রেস পাওয়া যাচ্ছে, যা গাউনের মতই কিন্তু খুব হালকা কাপড়ের এবং আরামদায়ক।

চাইলে এ ধরনের পোশাক পরতে পারেন। মাথায় স্কার্ফ বা ওড়না পরুন, তাহলে তা ধুলাবালি থেকে চুল এবং মুখের ত্বককে রক্ষা করবে।

ছেলেরা এ সময়ে এক কালারের পোলো শার্ট, ফর্মাল শার্ট, টি শার্ট, ট্রাউজার পরতে পারেন।

যাদের প্রতিদিন ফর্মাল ড্রেসে অফিস করতে হয় তারা হালকা রংয়ের শার্ট, এবং হালকা কাপড়ের তৈরি ফর্মাল প্যান্ট পরতে পারেন।

৩. হালকা মেকআপ

গরমের সময় ভারী ক্রিম, মেকআপ, ফাউন্ডেশন, গাঢ় কাজল, আইলাইনার, মাশকারা, আই শ্যাডোর চেয়ে ভোগান্তিকর আর কিছু নেই।

কারণ এগুলো আপনাকে সুন্দর করার পরিবর্তে একটু পরই গরমে গলে গিয়ে সাধের মেকআপ নষ্ট করে চেহারার বারোটা বাজিয়ে দেবে।

এজন্য এই সময়ে হালকা কোন ভ্যানিশিং ক্রিম, সানপ্রোটেক্টর সাথে আমব্রেলা পাউডার ব্যবহার করুন। ভারী কাজলের চেয়ে চিকন করে আইলাইনার দিন।

ভারী এবং গাঢ় লিপস্টিক এর চেয়ে হালকা রংয়ের লিপস্টিক ব্যবহার করুন। মেকআপ লুক দেখাতে চাইলে হালকা করে ব্লাশন ব্যবহার করতে পারেন।

৪. গর্জিয়াস অর্নামেন্টস নয়

গরমের সময়ে ভারী কাজের অর্নামেন্টস না পরাই উচিত। এ সময়ে কানে ছোট টপস, গলায় সরু চেইন, এবং আঙ্গুলে সরু রিং পরা যেতে পারে।

লম্বা ও ভারী দুল, গলায় হার বা লকেট, হাতে চুড়ি বা ব্রেসলেট এ সময়ে না পরাই ভাল। এগুলো পরলে আরও বেশী গরম লাগতে পারে।

তবে হাতে ঘড়ি পরতে পারেন, ছেলে মেয়ে উভয়েই। ঘড়ির ম্যাটেরিয়াল পছন্দ করার ক্ষেত্রে এ সময়ে বেল্টের প্রাধান্য দিতে পারেন।

কোন অনুষ্ঠান বা পার্টিতে গেলেও চেষ্টা করুন সিম্পলের মধ্যে গর্জিয়াস দেখায় এমন কোন অর্নামেন্টস পরার।

কারণ অনুষ্ঠান বলে যদি ভারী গয়না পরেন আর গরমে তা অস্বস্তির কারণ হয়, তবে তা সুন্দর দেখানোর পরিবর্তে আরও ভোগান্তিতে ফেলবে আপনাকে।

গরমে এমন অর্নামেন্টস চয়েস করুন যা স্টাইলের সাথে সাথে ক্যারি করতেও সুবিধা হয়।

৫. ডিও ও বডি স্প্রে ব্যবহার করুন

গরমের সময় ঘামের দুর্গন্ধ দূর করতে এবং শরীর ফ্রেশ রাখতে অবশ্যই স্নানের পর ভালমানের ডিও ও বডি স্প্রে ব্যবহার করুন।

যেখানেই যান না কেন একটি ডিও বা রোল অন সাথে রাখুন। স্নানের জলে নিমপাতা মিশিয়ে নিতে পারেন অথবা নিমের গুড়া শরীরের যেসব স্থানে বেশী ঘাম হয় যেসব স্থানে দিয়ে ২০ মিনিট রেখে তারপর স্নান করতে পারেন।

এগুলো আপনাকে ঘামের সমস্যা, দুর্গন্ধ ও অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে রক্ষা করবে।

৬. পরিচ্ছন্ন থাকুন

গরমের সময় পরিচ্ছন্ন থাকাটা খুবই জরুরী। প্রতিদিন দুবার স্নান করুন।

সারাদিনে ২-৩ বার ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে ভাল মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। চুলে সপ্তাহে ২-৩ বার শ্যাম্পু করুন, সাথে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

জামা-কাপড় একদিন পরার পর ধুয়ে ফেলুন। একই পোশাক না ধুয়ে আবার না পরার চেষ্টা করুন।

৭. স্বাস্থ্য সচেতন থাকুন

গরমের সময়ে বাহ্যিকভাবে ফিট ও স্টাইলিশ হতে হলে খাদ্যাভাস ও অন্যান্য নিয়মে পরিবর্তন আনুন। ঠান্ডা খাবার খান, সাথে প্রচুর ফল ও সবজি খান।

ডিটক্স ওয়াটার, জুস, শরবত, বোরহানী,লাচ্ছি,ফালুদা খান। ভাজাপোড়া, তেল-মশলা জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। এতে শরীর ঠান্ডা থাকবে, ঘামও কম হবে।

ফলে বাহ্যিকভাবে ক্লান্ত ও অবসন্ন দেখাবে না। সবসময় স্টাইলিশ দেখানোর জন্য এ নিয়মগুলো মেনে চলুন।

উপসংহার

স্টাইলিশ থাকা মানে শুধু বাহ্যিক চাকচিক্য নয়, আপনার প্রতিদিনের রুটিন, অভ্যাস, খাদ্যাভাস, ফ্যাশন সেন্স সব মিলেই আপনার স্টাইলিশ ভাব ফুটে উঠবে।

গরমকাল মানেই সব ব্যাপারে আপনাকে স্টাইলের আগে আরামের ব্যাপারটা নিশ্চিত করতে হবে।

তাহলে স্টাইল ও হবে, সাথে আপনি গরমের সময় স্বাচ্ছদ্যবোধও করবেন। উপরিউক্ত টিপসগুলো গরমের সময় আপনাকে স্টাইলিশ থাকতে সাহায্য করবে আশা করি।

পোস্টটির বিষয়ে কোন তথ্য জানানোর হলে বা কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করুন। আমরা অবশ্যই যত দ্রুত সম্ভব উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো । আজকের মতো এখানেই শেষ করছি , দেখা হবে অন্য কোনো পোস্টে ।

Leave a Comment