আপনি কেনো ধনী হতে পারছেন না? কারণ কি? জেনে নিন

আমাদের পৃথীবির ৯০ ভাগ মানুষ প্রতিনিয়ত ভাবতে থাকে, ধনী হওয়ার কথা ও এ সংক্রান্ত আরও অনেক ভাবনা। যেমন ধরুন, কবে আমার বড় বাড়ি হবে, দামী গাড়িতে চড়বো, কবে মা বাবার সব দায়িত্ব নিজেই পালন করবো, ইত্যাদি সব ভাবনা।

শুধু গুটিকয়েক নয়, আমাদের সমাজের বেশির ভাগ মানুষই সবসময় এসব ভেবেই তাদের মূল্যবান সময় নষ্ট করে থাকে। আপনি হয়তো ভাবছেন, যে এগুলো তো সম্পূর্ণ আমার নিজের জীবনের স্বপ্নের সাথে মিলে যাচ্ছে, তাইনা? শুধু আপনার নয়, সমাজের অধিকাংশ মানুষের চিন্তাভাবনাই এরকম।

তবে, এমন স্বপ্ন, আশা সবার থাকলেও, হয়তো হাজারে ১ জন মানুষ তাদের এসব স্বপ্ন বা আশাগুলোকে বাস্তবে রুপ দিতে পারে। এখন আপনারা হয়তো ভাবছেন, কি কারণে এত কম সংখ্যক মানুষ তাদের ধনী হওয়ার স্বপ্ন পূরণে সক্ষম হয়। আমি বলছি, এগুলো আমাদের কিছু বাজে অভ্যাস এর কারণেই হয়ে থাকে।

আমরা কিছু চিন্তা ভাবনা, বা অভ্যাসের কারণেই জীবনে ধনী হতে পারিনা বা নিজেদের স্বপ্নপূরণ করতে ব্যর্থ হই। সেই অভ্যাসগুলো কি তা আজকের পোস্টে আপনাদের জানাবো। তো চলুন আর কথা না বাড়িয়ে মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

ধনী হতে ব্যর্থ হওয়ার মূল কারণাবলী:

 

১. সঞ্চয়ে বেশি উৎসাহী হওয়া

আমাদের সমাজের অধিকাংশ মানুষ, আয় করার চেয়ে, সঞ্চয় করতে বেশি সময় ব্যয় করে। মানুষ বাজারে গিয়ে, এক কেজি আলু বা শসা কিনতে দর কষাকষি করে এবং এভাবে ৩০ মিনিট বা ১ ঘন্টা ব্যয় করে, ২০/৩০/৫০ টাকা বাচায়।

এছাড়াও, মানুষ অনলাইনে বিভিন্ন পণ্য খোজাখুজি করে ঘন্টার পর ঘন্টা, হয়তো ৫০০ টাকার পণ্য ৪০০ টাকায় কেনার জন্য। কিন্তু তারা এমন অল্প টাকা বাচানোর জন্য বিশাল সময় নষ্ট করে থাকে। কিন্তু তারা ভুলে যায়, তারা যদি এই সময়টুকু তাদের আয়ের কাজে লাগায়, তাহলে হয়তো এর চেয়ে অনেক বেশি উপার্জন তারা করতে পারে।

এভাবে সঞ্চয়ে গুরুত্ব দিয়ে অনেকেই তাদের আয় কমিয়ে ফেলে আর ধনী হতে পারেনা। মনে রাখবেন, যদি এই অভ্যাস বজায় রাখেন তবে কোনোদিনও ধনী হতে পারবেননা।

 

২. কম আয়ে মন শান্ত রাখা

আপনারা যারা চাকরি করেন বা কোনো নির্দিষ্ট আয়ের কাজ করেন, তারা সবসময় মাসের নির্দিষ্ট সময়ে টাকা পান এবং সেই সঞ্চয় বা আয়ে সন্তুষ্ট থাকেন। কিন্তু এখানে আপনার আয় হয়ে থাকে সময়ানুযায়ী, অর্থাৎ আপনি যদি কোনদিন কাজ না করেন, তাহলে আপনার আয় বন্ধ থাকবে।

আর এভাবে আপনি কমফোর্টেবল জোনে থাকলে মধ্যবিত্ত সময় কাটাতে পারবেন ঠিকই তবে কখনো বড়লোক হতে পারবেন না। ধনী হওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে নিজে কিছু করতে হবে বা ব্যবসায়ী হতে হবে।

কারণ এখানে আপনার আয় হয় আপনার পারফরম্যান্স অনুযায়ী, সময় অনুযায়ী নয়। আপনি যতো ভালো পারফর্ম করবেন, পরিশ্রম করবেন, আপনি ততই বেশি আয় করতে পারবেন ও দ্রুত ধনী হতে পারবেন। মনে রাখবেন, এর জন্য আপনাকে কমফোর্টেবল জোনে সন্তুষ্ট থাকা চলবে না এবং আপনাকে নির্দিষ্ট আয়ের কোনো কাজের গন্ডিতেও থাকা যাবেনা।

 

৩. নিজের জীবনের সুরক্ষা ও পারিবারিক চিন্তাভাবনায় মগ্ন থাকা

আমরা সমাজের অধিকাংশ মানুষ সবসময় নিজেদের পারিবারিক সেফটি এবং নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত থাকি। নির্দিষ্ট পরিমাণ আয় বা সঞ্চয় হলেই আমরা ভাবি, যথেষ্ট হয়েছে, আর কোনো ঝুকি বা আয়ের আমার দরকার নেই। জীবনটা এভাবেই কেটে যাক।

আর এই কারণেই তারা কখনো ধনী হতে পারেনা। কারণ যখন আপনি নিজের গন্ডির ভিতর আয় ও সঞ্চয়ে সীমাবদ্ধ থাকবেন, তখন আপনি নির্দিষ্ট আয় ও খরচেই সীমাবদ্ধ হয়ে যাবেন ও কখনো ধনী হতে পারবেন না।

আপনাকে ধনী হতে হলে অবশ্যই ঝুকি নিতে হবে এবং নিজের গন্ডি ছেড়ে বেরিয়ে আসতে হবে। মনে রাখবেন, ঝুকি ছাড়া কখনোই বড় কোন সফলতা জীবনে আসবে না। আপনি এখানে ভারতের জিও কোম্পানীর কথা ভাবতে পারেন।

জিও কোম্পানী ২.৫ লাখ কোটি টাকা ব্যয় করেছিল নিজেদের দাড় করানোর জন্য। এটা একটা বিরাট ঝুকি। তারা দেউলিয়াও হতে পারতো কোনো ভুল করলে। তবে সেটা হয়নি, আজ তারা সাফল্যের শীর্ষ চূড়ায় গিয়েছে। সুতরাং মনে রাখবেন, ধনী হতে গেলে অবশ্যই ঝুকি নিতে হবে ও সেফটিতে সীমাবদ্ধ থাকা যাবেনা।

৪. বড়লোকী হাবভাব দেখানোর প্রচেষ্টা

আমাদের সমাজের অধিকাংশ মানুষের লক্ষ্য হচ্ছে, দামী জিনিসপত্র কেনা, ব্যবহার করা ও শো অফ করা। একজনের আয় হয়তো মাসিক ২০০০০ টাকা, কিন্তু তার ফোন হয়তো ৩০০০০ টাকা দামের। আবার একজন হয়তো ১ লাখ টাকার বাইক চালায়, কিন্তু স্বপ্ন দেখে কোটি টাকার বাড়ির।

এভাবেই, সবাই শুধু তাদের বিভিন্ন স্বপ্ন এবং শো অফের পিছনে ছোটে এবং এগুলোতে মূল্যবান সময় ব্যয় করে। যা তাদের কাজের থেকে ফোকাস সরিয়ে নেয় এবং ধনী হতে দেয়না। একবার ভেবে দেখুন, বিল গেটস, জেফ বেজোস কি কখনো ভেবেছেন, একটা দামী বাড়ি কিনবো বা দামী গাড়ি কিনবো? তারা সবসময় তাদের কাজে ফোকাস করেছেন।

তারা জানতেন, কাজে ফোকাস করে লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে গেলে, এসব বাড়ি গাড়ি তারা পরে যত খুশি কিনতে পারবেন। তাই আমিও আপনাদের বলছি, এসব উচ্চ চাহিদাকে দূরে সরিয়ে রেখে, আগে পরিশ্রম করুন এবং নিজের লক্ষ্যে পৌছান। তাহলে একসময় ঠিকই নিজের সব চাহিদা ও স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন।

 

উপসংহার

এই ছিলো আজকে ধনী না হতে পারার ৪ টি মূল কারণ নিয়ে আমাদের সংক্ষিপ্ত আলোচনা। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন কেনো আপনারা এখনো ধনী হতে পারছেন না এবং কিভাবে ধনী হতে পারবেন।


আশা করি আজকের পোস্ট আপনাদের ভালো লাগবে। সামনের পোস্টে আবার আপনাদের সামনে নিয়ে আসবো নতুন কোনো তথ্য।

ততক্ষণ অব্দি সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। সবাইকে শুভকামনা জানিয়ে, আজকের মতো শেষ করছি!

Leave a Comment