2022 মাটির থালা বাসন তৈরির ব্যবসা করবেন কিভাবে? | 2022 Pottery Business Idea in Bengali

Pottery Business Idea 2022 (মাটির থালা বাসন তৈরির ব্যবসা 2022): How to Start Pottery Business in India | Pottery Business Idea in Bengali | Pottery Business Plan 2022 in Bengali.

Pottery Business 2022 in Bengali: অনেক আগে যখন মানুষ এতটা উন্নত হয়নি, তখন কিন্তু রান্না করার সরঞ্জাম থেকে খাওয়া-দাওয়া সব কিছু মাটির তৈরি জিনিসপত্রের উপর নির্ভর করতে হতো মানুষের। কিন্তু আজকাল বেশিরভাগ লোক প্লাস্টিকের বানানো থালা বাসন এর ব্যবহার করা বেশি পছন্দ করেন। এর কারণে মাটির তৈরি থালা বাসনের ব্যবসা দিন দিন কমতে শুরু করেছে।

কিন্তু স্বাস্থ্যসম্মত দিক থেকে এখনো পর্যন্ত কিছু মানুষ মাটির থালাবাসনে রান্না করা এবং মাটির তৈরি থালাবাসনে খাওয়া-দাওয়া করতে পছন্দ করেন। এবং প্লাস্টিক থেকে অনেকটাই দূরত্ব বজায় রাখেন। কেননা প্লাস্টিক পরিবেশ দূষণের সাথে সাথে আমাদের শরীরে বিভিন্ন রকমের রোগের আগমন ঘটায়।

সেই কারণে পরিবেশকে দূষণের হাত থেকে বাঁচানোর পাশাপাশি নিজেদেরকে আরো বেশি সুস্থ ও স্বাস্থ্যসম্মত রাখার জন্য মাটির থালা বাসন তৈরীর ব্যবসাটাকে গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন।

How to Start a Pottery Business in Bengali
How to Start a Pottery Business in Bengali

আধুনিক যুগে দাঁড়িয়েও মাটির জিনিসপত্র এবং থালা বাসন বেশ ভালই ভূমিকা রাখে। ইদানিং অনেক মানুষের ঘরে মাটির থালা বাসন দেখতে পাওয়া যায় এবং সেগুলি তারা ব্যবহারও করে থাকেন।

মাটির থালা বাসন তৈরির ব্যবসা শুরু করবেন কিভাবে:

এই ব্যবসা অধিক লাভজনক, একটি ব্যবসা কিছু সহজ পদক্ষেপ মেনে আপনি যদি এই ব্যবসা করতে পারেন তাহলে অনেকটাই লাভবান হতে পারবেন আপনি।

বাজারে মাটির থালা বাসনের চাহিদা:

মাটির পত্র এমন একটা জিনিস, যার ব্যবহার আপনি যখন খুশি করতে পারেন। আর এই কারনেই বাজারে কিন্তু মাটির থালাবাসনের চাহিদা প্রচুর পরিমাণে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তৈরি হয়ে যাওয়া থালা-বাসন অথবা এখনো পর্যন্ত তৈরি হয়নি এমন থালা বাসন এর উপরে ক্রেতারা অগ্রিম ভাবে টাকা দিয়ে বুক করে রাখছেন। কেননা যে পরিমাণে পরিবেশ দূষণ হচ্ছে এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ থেকে নিজেকে বের করে আনার জন্য মাটির পাত্রে রান্না বান্না এবং মাটির থালা বাসনে খাওয়া-দাওয়া পছন্দ করছেন অনেকেই।

কিছু কিছু মানুষ এইসব মাটির পাত্রে রান্না করে থাকেন, আবার এই মাটির পাত্রে দই বসানোও হয়ে থাকে। যার ফলে খাবারের স্বাদ দ্বিগুণ পরিমাণে বেড়ে যায়। মাটির ভাঁড়ে চা খাওয়ার স্বাদটাই আলাদা, তাছাড়া মাটির গ্লাসে জল, মাটির পাত্রে খাবার খাওয়া সবকিছুই আলাদা মাত্রা যোগ করে খাবারের স্বাদে।

মাটির পাত্র বানানোর কাজ শুরু করবেন কিভাবে:

যদি আপনি মনে করেন যে, মাটির পাত্র বানানোর কাজ অথবা ব্যবসা শুরু করবেন, সেক্ষেত্রে কিন্তু আপনার মধ্যে মাটির পাত্র বানানোর জন্য যে প্রক্রিয়া, প্রশিক্ষণ এবং শিল্পকলা প্রয়োজন তা যেন পর্যাপ্ত পরিমাণ থাকে। কারণ হাতের কায়দায় মাটির পাত্র বানানো একটা শিল্পও বটে।

তার জন্য আপনি কোন মাটির পাত্র অথবা মাটির শোপিস বানানোর কোর্স করতে পারেন, তাছাড়া আপনি যদি মনে করেন যে কোন রকম প্রশিক্ষণ ছাড়াই অথবা কোর্স না করেই এ ব্যবসা করবেন সে ক্ষেত্রেও কিন্তু আপনি ব্যবসা করতে পারেন।

তার জন্য আপনার প্রয়োজন পড়বে যে ব্যাক্তি মাটির পাত্র বানাতে সক্ষম সেই ব্যক্তিকে আপনার এই ব্যবসায় কাজে লাগাতে হবে। যে ব্যক্তিটি খুব সুন্দর সুন্দর মাটির পাত্র আপনাকে বানিয়ে দিতে পারবে আর যা আপনি খুব সহজেই বিক্রি করতে পারবেন তাকে কিছুটা বেতন দেওয়ার মাধ্যমে।

মাটির পাত্র বানানোর ব্যবসাতে ইনভেস্টমেন্ট:

আপনারা নিশ্চয়ই জানেন যে, যে কোন ব্যবসা শুরু করতে গেলে প্রথমে কিছু পরিমাণ টাকা ইনভেস্ট করতেই হয় সেই ব্যবসাতে, কেননা ব্যবসার ক্ষেত্রে প্রথমে টাকা না খরচ করলে আপনি তা থেকে কোনরকম লাভ পাবেন না। এই ব্যবসাটি ছোট রূপে শুরু করতে গেলে আপনাকে প্রায় ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ইনভেস্টমেন্ট করতে হতে পারে।

যে টাকাটা দিয়ে আপনি মাটি এবং অন্যান্য সামগ্রী কিনতে পারবেন, তাছাড়া আপনি যদি মনে করেন বড় করে এই ব্যবসাটি শুরু করতে চান, সে ক্ষেত্রেও এর থেকে বেশি টাকা ইনভেস্ট করে ব্যবসাটাকে বড় আকার দিতে পারেন, ব্যবসাটি ছোট হবে কিংবা বড় হবে সেটা নির্ভর করবে আপনার ইনভেস্ট এর উপর।

মাটির পাত্র বাড়ানোর জন্য উপকরণ, সামগ্রী:

#১) মাটির পাত্র তৈরি করার জন্য আপনাকে প্রথমে চিকন মাটি কিনতে হবে, যে মাটিতে আপনি মাটির পাত্র বানাবেন।

#২) হাত দিয়ে অথবা ইলেকট্রিক চালিত চাকতির আপনার প্রয়োজন পড়বে, যার উপরে রেখে আপনি মাটি দিয়ে মাটির পাত্র বানাতে পারবেন, এই চাকতির সাহায্যে আপনার মাটির পাত্র তৈরি হবে।

#৩) মাটির পাত্রের কিরকম আকার এবং ডিজাইন করা হবে সেটার তো একটা পরিকল্পনা প্রয়োজন যার ফলে আপনি বিভিন্ন রকমের ডিজাইনের মাটির পাত্র তৈরি করতে পারবেন।

#৪) তারপর মাটির পাত্র তৈরি করে, তৈরি হয়ে যাওয়ার পর সে গুলোকে আগুনে পুড়িয়ে শক্ত করার কাজ করতে হয়। যে বিষয়টা এই ব্যবসার ক্ষেত্রে বেশ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

মাটির পাত্র বানানোর প্রক্রিয়া:

মাটির পাত্র বানানোর জন্য বিভিন্ন রকমের জিনিসপত্র প্রয়োজন হতে পারে। সে জিনিসপত্রগুলো কে আপনাকে নির্বাচন করতে হবে নিখুঁত ভাবে।

১) মাটি নির্বাচন:

আপনি হয়তো দেখবেন বাজারে বিভিন্ন রকমের আলাদা আলাদা রকমের মাটির পাত্র দেখতে পাওয়া যায়, এটা এই কারণে, কেননা এই পাত্রগুলো দেখতে অনেকটাই আকর্ষণীয় এবং গ্রাহক এর বেশি পছন্দ হতে পারে।

বিভিন্ন রকমের ডিজাইনের কারণে আর এই বিভিন্ন রকমের ডিজাইন ও আকার দেওয়ার জন্য কুমোর অর্থাৎ যিনি মাটির কাজ করেন, হাতের সাহায্যে চাকতিতে বিভিন্ন রকমের মাটির পাত্র তৈরি করেন। এবং চাকতির সাহায্যে মাটির পাত্রের বিভিন্ন রকমের আকার ও ডিজাইন করে থাকেন তিনি।

২) মাটির পাত্র গুলোকে শুকানো:

চাকতি ও হাতের সাহায্যে মাটির পাত্র বানিয়ে তো ফেললেন, এরপর আপনাকে যা করতে হবে সেটা হল সেই পাত্রগুলো কে শুকানো, যার জন্য আপনার কড়া রোদের প্রয়োজনীয়তা পড়বে, তার জন্য আপনাকে মাটির পাত্র গুলি তৈরি হয়ে যাওয়ার পর বাইরে কড়া রোদে ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে।

যেন ভালোভাবে মাটির পাত্র গুলি শুকিয়ে যায়, তারপর সেগুলো কে আগুনে পোড়ানোর জন্য নিয়ে যেতে হবে।

৩) মাটির পাত্র গুলোকে পোড়ানো:

মাটির পাত্র গুলি বানিয়ে নিলেন, তারপরে রোধে ভালো করে শুকিয়ে নিলেন, এর পরে যেটা আপনার অবশ্যই প্রয়োজনীয় সেটা হল, পাত্রকে আগুনে পোড়ানো।

কেননা এর পরেই কিন্তু পাত্র গুলোকে ব্যবহার করা যাবে। তার আগে কিন্তু ব্যবহার করা যাবে না। এই প্রক্রিয়াটা মাটির পাত্র তৈরি করার শেষ প্রক্রিয়াও বলতে পারেন। এর জন্য কয়লার আগুন এরমধ্যে পাত্র গুলোকে রেখে পোড়াতে হয়।

মাটির পাত্র কোথায় বিক্রি করতে পারবেন:

আজকাল তো বিভিন্ন রকম প্রদর্শনীতে অনেক রকমের জিনিসপত্র বিক্রি হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার মাটির পাত্র গুলির যেকোনো প্রদর্শনী মেলা কিংবা অনলাইনেও বিক্রি করতে পারেন। কেননা আজ কাল ব্যবসার জন্য বিভিন্ন রকমের প্ল্যাটফর্ম একেবারে আপনার জন্য খোলা।

online pottery business in bengali Pottery Business
Sell Pottery Items Online

কিন্তু যদি আপনি চান যে আপনার তৈরি করা মাটির পাত্র গুলি অনেক বেশি গ্রাহক খুব পছন্দ যেন করে, এবং তারপর পাত্র গুলির যেন কেনে, সে ক্ষেত্রে আপনি প্রদর্শনী অথবা মেলার মত বেস্ট প্ল্যাটফর্ম অথবা জায়গা আর কোথাও পাবেন না।

কেননা এইসব জায়গায় মানুষ বেশি দেখাশোনার মধ্যে দিয়ে জিনিসপত্র কিনে থাকেন। সেক্ষেত্রে আপনার বানানো মাটির পাত্র যদি হয় দৃষ্টিনন্দন এবং ক্রেতাদের আকর্ষণ করতে পারে সেক্ষেত্রে তো আর কথাই নেই। আপনার ব্যবসা একেবারে দৌড়াবে।

মাটির পাত্র তৈরি ব্যবসাতে লাভ:

প্রথমত বলা যায় এই ব্যবসাতে আপনি ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত মাসে ইনকাম করতে পারবেন। কেননা বর্তমান সময়ে মাটির তৈরি থালা-বাসন এবং রান্নার সরঞ্জাম, ঘর সাজানোর জিনিস সব কিছুর চাহিদা একেবারে তুঙ্গে। মানুষ এ গুলোকে খুব বেশি পছন্দ করতে শুরু করছেন।

তাছাড়া আপনি যদি চান যে, আপনার তৈরি মাটির পাত্র সকলের পছন্দ হোক এবং আপনার বিক্রিটাও অনেকটাই বেশি হোক, সে ক্ষেত্রে এই পাত্র তৈরি করার জন্য আপনার মধ্যে ভাল একটা শৈল্পিক ভাব থাকা প্রয়োজন এবং উন্নত মানের সামগ্রীরও প্রয়োজন আছে।

যার মাধ্যমে আপনি আকর্ষণীয় জিনিসপত্র তৈরি করতে পারেন। আর তার ফলেই কিন্তু আপনার ব্যবসা থেকে আপনি অনেক বেশি লাভ পেতে পারবেন তারপর ধীরে ধীরে আপনার ব্যবসাটাকে আরো বড় জায়গায় নিয়ে যাওয়ার জন্য তৈরি হতে পারেন, সে ক্ষেত্রে আপনার নিজস্ব একটা ব্রান্ডও তৈরি করে নিতে পারেন।

মাটির তৈরি পাত্রের মার্কেটিং:

আজকের যে কোন ব্যবসার সবচেয়ে ভালো জায়গা হল প্রদর্শনী, বিজ্ঞাপন দেওয়ার জায়গা হল সোশ্যাল মিডিয়া অর্থাৎ অনলাইনে আপনি আপনার মাটির থালা বাসন ও ঘর সাজানোর জিনিস এর মার্কেটিং করতে পারেন।

Online Pottery Business in Bengali
Online Pottery Business in Bengali

আপনার তৈরি মাটির জিনিস পত্রের ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করুন এবং যে ছবিটি পোস্ট করবেন সেটা যেন আকর্ষণীয় হয়। যাতে আপনার এই পোস্ট দেখে অনেক বেশি মানুষ আকর্ষিত হয়ে এই জিনিসপত্রগুলো কেনার জন্য আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

মাটির তৈরি পাত্রের ঝুঁকি:

মাটির তৈরি পাত্রের একটাই ঝুঁকি থাকে, সেটা হল খুব সহজেই হালকা আঘাতে এই পাত্রগুলো ভেঙে যেতে পারে। এই জিনিসপত্র গুলোকে খুব সাবধানে রাখতে হয়।

যেন কোনভাবে না ভেঙে যায় এবং কোথাও থেকে না পড়ে যায়। যার কারণে ওই পাত্র গুলি অনেকদিন সময় পর্যন্ত চলতে পারে।

কেননা মাটির পাত্র গুলি যতটাই আকর্ষণীয় এবং সুন্দর হয় ততটাই কিন্তু ভঙ্গুর অথবা ঠুনকো হয়, কারণ হাত থেকে পড়ে গেলে অথবা হালকা আঘাতে ভেঙ্গে যেতে পারে। এই অসুবিধা টা ছাড়া মাটির পাত্রের গুনাগুন  কিন্তু অনেক।

Leave a Comment