নিজের নামে পেট্রোল পাম্প ব্যাবসা শুরু করার পদ্ধতি | 2022 Petrol Pump Business Idea in Bengali

Petrol Pump Business Idea 2022 (পেট্রোল পাম্প ব্যবসা 2022): How to Start Petrol Pump Business in India? | Petrol Pump Business Idea in Bengali | Petrol Pump Business Plan in Bengali. জানুন পেট্রোল পাম্প ব্যবসা শুরু করার সম্পূর্ণ পদ্ধতি এবং লাভ ও ইনভেস্টমেন্ট

প্রতিটি মানুষের জীবনে অনেক কিছু স্বপ্ন থাকে। বিশেষ করে কেউ কোনো স্বপ্ন দেখে থাকতেই পারেন যে, নিজের কোনো বড় ব্যবসা হবে। তা থেকে ভালোমতো উপার্জন আসবে এবং যা দিয়ে জীবনে সম্পূর্ণ চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হবে। যদি আপনার স্বপ্ন থেকে থাকে যে, পেট্রোল পাম্পের মালিক হবেন তো নিশ্চয়ই এই ব্যবসার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ পুঁজি আপনি জোগাড় করে রাখবেন।

আমরা সবাই জানি যে, বাইক থেকে গাড়ি ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিটি মানুষ এখন গাড়ি কিনতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। তার সাথে পেট্রোল দিয়ে গাড়ি চালানো এবং এর চাহিদা প্রচুর মাত্রায় বড়ে যাচ্ছে। তাছাড়া এই সময় কোম্পানি দেশে প্রায় ৫০০০ পেট্রলপাম শুরু করতে চলেছে।

পেট্রোল পাম্প ব্যাবসা - Petrol Pump Business Idea
পেট্রোল পাম্প ব্যাবসা – Petrol Pump Business Idea

তো চলুন তাহলে জানা যাক কিভাবে আপনি আপনার নামে একটি পেট্রোল পাম্প খুলতে পারেন।

পেট্রোল পাম্প খোলার জন্য খরচ:

খেয়াল রাখতে হবে যে এই বিষয়ের উপর, পেট্রলপাম খোলার জন্য শুরুতে আপনার পুঁজি লাগতে পারে ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত। যেহেতু এটি একটি বেশি ইনকামের ব্যবসা সেহেতু এতে খরচ একটু বেশি। যেমন খরচ বেশি তেমন ইনকাম বেশি।

নতুন পেট্রোল পাম্প খোলার নিয়ম:

এই সময়ে দেশের তেল কোম্পানি গুলি যেমন ইন্ডিয়ান অয়েল, হিন্দুস্থান অয়েল, ভারত অয়েল, রিলায়েন্স, এশার, সেল, এক্সিফিউল ইত্যাদি কোম্পানি রিটেল, আউট লেট দেওয়ার জন্য আবেদন নিয়ে থাকে। আপনার এরিয়া এবং আবেদনের হিসাবে পেট্রোল পাম্পের আবেদন নেওয়া হয়ে থাকে।

বিভিন্ন তেল কম্পানিগুলি আগামীতে অনেক বেশি পেট্রল পাম্প খোলার যোজনা করেছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো সকল কোম্পানি বেশি করে পেট্রোল পাম্প খলার জন্য ব্যাবস্থা নিচ্ছে।

পেট্রোল পাম্প ডিলারশিপ এর জন্য আবেদনের যোগ্যতা:

যদি আপনি পেট্রোল পাম্পের ডিলারশিপ নিতে চান তাহলে সবার প্রথমে আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় যোগ্যতার উপর খেয়াল রাখতে হবে সেগুলি হল:-

১) পেট্রোল পাম্পের ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য আবেদন করীর কাছে ৮০০-১২০০ বর্গমিটার জায়গা অবশ্যই থাকতে হবে।

২) যদি আপনি আপনার পেট্রোল পাম্প হাইওয়ে এর পাশে খুলতে চান, তাহলে এর জন্য হাইওয়ের পাশে কম করে ১২০০-১৪০০ বর্গমিটার জায়গা অবশ্যই থাকতে হবে।

পেট্রোল পাম্প ডিলারশিপ এর প্রক্রিয়া:

এই ডিলারশিপ এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো এই প্রক্রিয়াটি পারদর্শী রাখা হয়েছে, অর্থাৎ ডিলারশিপ এ ভ্রষ্টাচার একেবারে নেই বললেই চলে। ডিলারশিপ এর জন্য কোম্পানি টেন্ডার প্রক্রিয়া একেবারেই ব্যবহার করেনি।

আবেদন করার পর কোম্পানির লোক দ্বারা আপনার জায়গাতে সবকিছু পর্যবেক্ষন করা হয়ে থাকে। যদি তাদের প্রয়োজনীয়তা অনুসারে আপনার জায়গাটি হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু এক মাসের মধ্যে ডিলারশিপ পেয়ে যেতে পারেন।

পেট্রলপাম্প ডিলারশিপ নেওয়ার সুবিধা:

যেকোনো কোম্পানি এটাই চাইবে যে, সেই কোম্পানির প্রোডাক্ট অন্য কোম্পানির তুলনায় বেশি পরিমাণে ব্যবহার করা হোক অর্থাৎ সমস্ত অয়েল কম্পানিগুলি নিজেদের ডিলারদের সমস্ত রকমের সহযোগিতা করে থাকে। যাতে সেই কোম্পানির গ্রাহকদের কোন রকম অসুবিধা যেন না হয়।

নিজের নামে পেট্রোল পাম্প ব্যাবসা শুরু করার পদ্ধতি
নিজের নামে পেট্রোল পাম্প ব্যাবসা শুরু করার পদ্ধতি

এই কম্পানিগুলি নিজের ডিলারদের যে যে সহযোগিতা করে থাকে সেগুলো হলো:-

১) অয়েল কোম্পানি কোন ডিলারকে আউটলেট সেটআপ করার জন্য নিজেদের ইঞ্জিনিয়ারিং এবং টেকনিক রূপে সমস্ত রকম সাহায্য করে থাকে।

২) সবচেয়ে ভালো বিষয় হলো এটা যে, আউটলেট এর ডিজাইনিং অর্থাৎ ব্র্যান্ডিং ও এশার নিজেই করে থাকে অর্থাৎ আপনার ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য এক টাকাও খরচা করতে হবে না (এটা সম্পূর্ণ কম্পানির ওপর নির্ভর করে বিভিন্ন কম্পানি বিভিন্ন ভাবে এই কাজ করে থাকে যা আপনি কম্পানির সাথে কথা বলে জানতে পারবেন)।

৩) আউটলেটে সেল বাড়ানোর জন্য কোম্পানির ডিলার কে নতুন নতুন টেকনিক দিয়ে থাকে। এর সাথে সাথে ডিলারের কর্মচারী গুলিকে সম্পূর্ণ ফ্রিতে ট্রেনিং দিয়ে থাকে। তার সাথে কোম্পানির ডিলার কে প্রমোশনস স্কিমও দেওয়া হয়।

পেট্রোল পাম্প ডিলারশিপ এর কিছু শর্ত নিয়ম আর খরচা:

কোম্পানি আপনার ৮০০ অথবা ১২০০ বর্গমিটার জায়গাকে ৩০ বছরের জন্য লিজ নিয়ে নেবে। ডিলারশিপ এর জন্য আপনি যে ইনভেস্টমেন্ট করছেন সেটা কোম্পানি কিন্তু নিজে থেকে ঠিক করবে, যা কিনা আপনার জায়গার উপরেও নির্ভর করবে।

পেট্রলপাম্প ডিলারশিপ এর জন্য আইনত দস্তাবেজ:

আপনার আউটলেট কে ভালোভাবে চালানোর জন্য পেট্রোল বিক্রি করার লাইসেন্স, সেলস ট্যাক্স, রেজিস্ট্রেশন ইত্যাদি করতে হবে। তাছাড়া এই সমস্ত কাজ করার জন্য কোম্পানি আপনাকে সম্পূর্ণরূপে সাহায্য করবে।

কম্পনাই আপনাকে জানিয়ে দেবে কি কি কাগজপত্রের বিশেষ প্রয়োজন আর কি কি লাগবে। যে কোন কম্পানি তাদের ব্যাবসা বাড়াতে চাই সেক্ষেত্রে তারাও সহযোগিতা করে থাকে।

পেট্রল পাম্প ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য আবেদন পত্র কোথায় থেকে নেবেন:

এর জন্য আবেদনের পত্র দিতে হবে। এই আবেদন পত্র কোম্পানির ওয়েবসাইট থেকে আপনি পেয়ে যাবেন। তাছাড়া আপনি চাইলে ওয়েবসাইটের উপরে অনলাইন ফর্মও জমা করতে পারবেন। এই দুটি প্রক্রিয়ার জন্য নিচে কিছু লিংক দেওয়া হল:

এখানে আমরা ভারতের বিশেষ কিছু পেট্রোলিয়াম কম্পানির উল্লেখ করেছি। বিভিন্ন কম্পানির রিটেলার/ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য এই লিংকগুলিতে ভিজিট করতে পারেন:-

1. Indian Oil Petrol Pump Dealership:

এই কোম্পানির সাথে ভালো মতো লোকেশনের সাথে প্রায় ৩০০-৪০০ টি পেট্রোল পাম্প এর চাহিদা রয়েছে। যে সমস্ত লোকের কাছে ভালোমতো লোকেশন রয়েছে তারা এই কোম্পানির ডিলারশিপ নিতে পারেন। তাছাড়া ২০০০ পেট্রলপাম্প এই কোম্পানি থেকে খোলা হবে।

আর এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Indian Oil Petrol Pump Dealership Application Click here

2. Reliance Oil Petrol Pump Dealership:

এই পেট্রোল পাম্পও কিন্তু পিছিয়ে নেই। ১২০০ পেট্রোল পাম্প খুলতে চলেছে। ২০০৮ সালের সরকারি তেল কোম্পানি দ্বারা যে সাবসিটি দেওয়া হয়েছিল তাতেই কোম্পানি নিজের প্রায় ১৪০০ পেট্রল পাম্প বন্ধ করেছিল।

তা ছাড়া ডিজেলের দাম ডি কন্ট্রোল হয়ে যাওয়ার কারণে রিলায়েন্স নিজেদের পেট্রলপাম্পের অর্থাৎ বন্ধ পেট্রোল পাম্পের কুড়ি শতাংশ পেট্রলপাম আবার শুরু করে দিয়েছে। সময়ের সাথে সাথে ধীরে ধীরে রিলায়েন্স নিজের সমস্ত পেট্রোল পাম্প শুরু করবে এবং এর ডিলারশিপ দেবে।

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Reliance Oil Petrol Pump Dealership Application Click here

3. Hindustan Petroleum Petrol Pump Dealership:

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Hindustan Petroleum Petrol Pump Dealership Application Click here

4. Bharat Petroleum Petrol Pump Dealership:

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Bharat Petroleum Petrol Pump Dealership Application Click here

5. Shell Petrol Pump Dealership:

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো রয়েল ডাচ্ ৭৭ পেট্রোল পাম্প আবার শুরু করতে চলেছে। এই কোম্পানি ভবিষ্যতে নিজের আউটলেট বানানোর যোজনা শুরু করে দিয়েছে।

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Shell Petrol Pump Dealership Application Click here

6. Essar Petrol Pump Dealership:

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Essar Petrol Pump Dealership Application Click here

7. Exifuel Petrol Pump Dealership:

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Exifuel Petrol Pump Dealership Application Click here

8. MEE Petrol Pump Dealership:

ভারতের অনেকগুলি শহরে নিজের পেট্রোল পাম্প শুরু করার পর সম্পূর্ণ ভারতে পেট্রোল পাম্প খোলার জন্য আবেদন নেওয়া হচ্ছে।

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

MEE Petrol Pump Dealership Application Click here

9. Nayara Energy Petrol Pump Dealership:

এই কোম্পানির ডিলারশিপ নেওয়ার জন্য বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন:

Nayara Energy Petrol Pump Dealership Application Click here

পেট্রোল পাম্পের ব্যবসা থেকে লাভ:

পেট্রোল পাম্পের ব্যবসা থেকে লাভের কথা আর নতুন করে বলার কিছু নেই। সবাই কম বেশি জানেন যে, যেমন ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকা ইনভেস্ট করে পেট্রোল পাম্প খোলা যেতে পারে, তেমনি পেট্রলপাম্প থেকে প্রতিমাসে আপনি কত লাখ টাকা উপার্জন করতে পারবেন, সেটা নিশ্চয়ই ধারণা করতে পারছেন।

আর তাই আপনার কাছে যথেষ্ট পরিমাণে পুঁজি থেকে থাকে তাহলে অনায়াসেই পেট্রোল পাম্প এর ডিলারশিপ নিয়ে প্রতি মাসে বেশ ভালো মতো উপার্জন করতে পারবেন।

Leave a Comment