2022 মোবাইলের ব্যাক কভার প্রিন্টিং বিজনেস শুরু করবেন কিভাবে | 2022 Mobile Back Cover Printing Business Idea in Bengali

Mobile Back Cover Printing Business Idea 2022 (মোবাইলের ব্যাক কভার প্রিন্টিং বিজনেস 2022): How to Start Mobile Back Cover Printing Business in India | Mobile Back Cover Printing Business Idea in Bengali | Mobile Back Cover Printing Business Plan 2022 in Bengali.

Mobile Back Cover Printing Business Idea in Bengali 2022: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে স্মার্টফোন নেই এমন মানুষ মেলা ভার, হাতেগোনা কজন মানুষ ছাড়া প্রায় সব মানুষের হাতে আজ স্মার্টফোন। তবে ইদানীং বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে মোবাইলের ব্যাক কভারে প্রিয়জনের ছবি ও সুন্দর সিনারি প্রিন্ট করে রাখার।

সেটা হতে পারে কোন সুন্দর সিনারির সাথে নিজের আপন জনের ছবি প্রিন্ট করা। দেখতেও যেমন বেশ সুন্দর লাগে তেমন আকর্ষণীয়ও বটে। এমনিতে মোবাইলের নতুন স্টাইলিশ লুক দেওয়ার জন্য বড় বড় মোবাইল কোম্পানি প্রতিনিয়ত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

তার সাথে সাথে মোবাইল কভারও একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। এই কভার মোবাইল টিকে যেমন সুরক্ষিত রাখে, তেমনি যদি একটু আকর্ষণীয় হয় তাহলে মানুষের নজর কাড়বে অনায়াসেই, কি বলেন!

আর এমন পরিস্থিতিতে মোবাইলের কভার ব্যবহার করেন না এমন মানুষ কিন্তু নেই। কারণ শুনতে একটু অবাক লাগলেও মোবাইলের যত্নে মোবাইলের এতোটুকু ক্ষতি কিন্তু কেউ হতে দিতে চান না। আর আপনি যদি এমন কোন ব্যবসার আইডিয়া খুঁজে থাকেন যেটা আপনার পছন্দের এবং আনন্দের সাথে করতে পারবেন।

Mobile Back Cover Printing Business in Bengali
Mobile Back Cover Printing Business in Bengali

আর তা থেকে ভালোমতো উপার্জন করতে পারবেন, তাহলে মোবাইল বিক্রির সাথে সাথে মোবাইলের কভারও বিক্রি যেমন হয় তেমনি মোবাইল কভার এর উপরে প্রিন্টিং করে আপনি ব্যবসা করতে পারেন। যেটা বেশ ভালো দাম দিয়ে মার্কেটে বিক্রি করা যায়।

এখন চলুন জানা যাক, যে আপনি যদি এই ব্যবসাটি শুরু করেন তাহলে কিভাবে মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং এর ব্যবসা শুরু করবেন।

মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং এর জন্য মেশিন এবং র ম্যাটেরিয়ালস:

এই প্রিন্টিং এর জন্য আপনার কিছু মেশিন এবং কম্পিউটার প্রয়োজন পড়বে। মেশিনের মধ্যে একটি সাবলিমেশন মেশিন, আর একটি সাব্লিমেশন প্রিন্টার, সাবলিমেশন পেপার, সাবলিমেশন পেপার মডেল এর জন্য ডাই এবং 99 সাব্লিমেশন সফটওয়্যার, প্রয়োজনীয় র মেটেরিয়াল ইত্যাদি প্রয়োজন পড়বে।

Sublimation machine (সাবলিমেশন মেশিন) 15,000 – 25,000 টাকা
Sublimation paper (সাবলিমেশন পেপার) 350 টাকা প্রতি 50 পিস
Printer (প্রিন্টার) 10,000 – 15,000 টাকা
Sublimation printing Ink (সাবলিমেশন মেশিন কালি) 10,00 – 15,00 টাকা

এগুলি কোথায় থেকে কিনবেন:

এই সমস্ত জিনিস গুলো আপনি নিচে দেওয়া লিঙ্ক এর মাধ্যমে ভিজিট করে কিনতে পারেন অনলাইনে।

Sublimation machine (সাবলিমেশন মেশিন) Click here
Sublimation paper (সাবলিমেশন পেপার) Click here
Sublimation machine with printer (প্রিন্টার সহ সাবলিমেশন মেশিন) Click here
Sublimation printing Ink (সাবলিমেশন মেশিন কালি) Click here

মোবাইল এর ব্যাক কভার প্রিন্টিং ব্যবসার জন্য ইনভেস্টমেন্ট:

প্রতিটি ব্যবসার মতো এই ব্যবসাতেও কিন্তু আপনাকে কিছুটা হলেও তো ইনভয়েস করতেই হবে, তাই না। যেমন ধরুন মেশিন কেনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন রকমের র মেটিরিয়ালস এর জন্য কিন্তু আপনার তো কিছু টাকা খরচ হবে।

এই ব্যবসাটি ৩০ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারেন। আর তা থেকে ভালো মত একটা উপার্জন করতে পারেন।

মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং করার জন্য সময় এর প্রয়োজনীয়তা:

মোবাইল কভার বানানোর জন্য যে সাব্লিমেশন মেশিন ব্যবহার করা হয়, সেই মেশিনে একবারে তিন থেকে চারটি কভার প্রিন্ট করার জন্য দেওয়া যেতে পারে।

সাদা মোবাইল কভার এর উপরে ৮ থেকে ১০ মিনিটের মধ্যে আপনি যে ডিজাইনের প্রিন্টিং করতে চাইছেন তা প্রিন্ট হয়ে যাবে, এইভাবে মোট ১৫ থেকে ২০ মিনিটের ভিতরে তিন থেকে চারটি কভার সম্পূর্ণরূপে একেবারে ব্যবহারযোগ্য হিসেবে আপনি তৈরি করতে পারবেন।

চলুন তাহলে জানা যাক, কিভাবে আপনি মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং করবেন:

মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং প্রক্রিয়া:

#১) মোবাইলের ব্যাক কভার বানানোর জন্য সবার প্রথমে কম্পিউটারের প্রয়োজন পড়বে। কম্পিউটারে 99 সাবলিমেশন সফটওয়্যার অবশ্যই থাকতে হবে। এই কম্পিউটারের সাথে একটি সাবলিমেশন প্রিন্টার আপনার প্রয়োজন পড়বে।

#২) এরপরে আপনার কম্পিউটার থেকে যে থিম এর ব্যাক কভার আপনি বানাবেন সেটিকে প্রিন্ট করে বার করে নিতে হবে। এই সফটওয়্যার এর সহযোগিতায় বের হওয়া প্রিন্ট এবং নির্বাচন করা থিম এর মিরর ইমেজ বার করতে হবে।

#৩) তারপরেই প্রিন্টের থিমকে এবার পলি কার্বন অর্থাৎ মোবাইলের কভার এর ওপর সঠিকভাবে বসিয়ে সাব্লিমেশন টেপ দিয়ে আটকে দিতে হবে। সাবলিমেশন টেপ হলো এক ধরনের বিশেষ টেপ যা কিনা ২০০ ডিগ্রি তাপমাত্রায়ও গলে যায় না।

#৪) এই সাদা পলি কার্বন মোবাইল পেপার এর ভিতর এর দিকে প্রোডাক্ট সম্পর্কিত বারকোড লাগিয়ে রাখতে হবে। এই বারকোড আর মডেল ডিসক্রিপশন ও এই সাব্লিমেশন টেপ দিয়ে আটকাতে পারবেন।

#৫) এরপরে কভারটি কে সাপ্লিমেশন মেশিনের ভিতরে দিতে হবে। মেশিনের তাপমাত্রা এবং সময় সেট করতে হবে। সাবলিমেশন মেশিন এর ভেতর ডাই এর ওপর বসানো পলি কার্বন কে ভালোভাবে রাব করতে হবে। রাব (ঘসা) করাটা কিন্তু বিশেষভাবে জরুরি, যাতে কভার এর সমস্ত জায়গাতে থিম ভালোভাবে বসে যেতে পারে।

#৬) এরপর মেশিন টিকে ঢেকে সেট করা টাইম চালিয়ে দিতে হবে এই টাইমিং ৮ মিনিটের হয়ে থাকে। এইভাবে মেশিনের তাপমাত্রা ২০০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এর আশেপাশে হতে হবে।

#৭) এবার ৮ মিনিট পর মেশিন থেকে কভার টিকে বের করে নিতে হবে। এতে লাগানো পেপার তুলে ফেলতে হবে। আর আপনি দেখতে পাবেন যে সাদা পলি কার্বন মোবাইল কভার এর উপরে থিম ভালোভাবে বসে গিয়েছে। এইভাবে আপনি মোবাইল কভার প্রিন্ট করতে পারবেন।

মোবাইল ব্যাক কভার এর প্যাকেজিং করবেন কিভাবে:

যখন সম্পূর্ণরূপে মোবাইল কভারটি তৈরি হয়ে যাবে তখন কভারটি কে নিজের ব্র্যান্ড এর প্যাকেটের সাথে আপনি প্যাকিং করতে পারেন। এগুলো বাইরের কোন দোকানের জন্য প্যাক করতে পারেন আবার অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট এরকম ধরনের ই-কমার্স ওয়েবসাইটের জন্য তৈরি করতে পারেন এবং সরাসরি অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন।

মোবাইল ব্যাক কভার প্যাক করার জন্য সবার প্রথমে আপনাকে ব্রান্ডের প্যাকেজ তৈরি করতে হবে। এই প্যাকেজ আপনি হোলসেল অথবা রিটেল এর জন্য ব্যবহার করতে পারেন।

যে মোবাইল কভারটি যে মোবাইল মডেল এর সাথে ম্যাচ করবে সেই অনুযায়ী তার সমস্ত রকমের তথ্য স্টিকার এর মাধ্যমে প্যাকেটের মধ্যে আপনাকে মেনশন করতে হবে। যাতে সহজেই বোঝা যায় কোন কভারটি কোন মোবাইলের জন্য তৈরি।

তাহলে গ্রাহক কিন্তু খুব সহজেই তার নিজস্ব ফোনের জন্য ব্যাক কভার নির্বাচন করতে পারবেন। তাছাড়া যেখানে আপনি এগুলি হোলসেল দিয়ে থাকেন অথবা রিটেল, সেক্ষেত্রেও কিন্তু যারা বিক্রি করবেন তাদেরও সুবিধা হবে এই স্টিকার এর মাধ্যমে।

মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং বিজনেসের মার্কেটিং:

এই ব্যবসার মার্কেটিং এর জন্য অনলাইন অথবা অফলাইন দুই রকম ভাবেই আপনি মার্কেটিং করতে পারবেন। অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট যেমন ধরুন ফ্লিপকার্ট, অ্যামাজন, স্নাপডিল, এগুলির উপরে আপনার প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারবেন।

এইসব ওয়েবসাইট এর সাহায্যে মোবাইল কভার বিক্রি করার জন্য কম সময়ে লাগে এবং লাভ পেতে পারেন অধিক পরিমাণে। তাছাড়া অফলাইনে আপনার মার্কেট ধরতে কিছুটা হলেও সময় লাগতে পারে। এছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়া এখন মার্কেটিংয়ের জন্য বেশ ভালো বড় জায়গা।

মোবাইল ব্যাক কভার প্রিন্টিং ব্যবসার লাভ:

মোবাইলের এই ব্যাক কভার এখন প্রচুর পরিমাণে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে এবং ভবিষ্যতে এর চাহিদা আরো বেশি পরিমাণে বাড়বে। সেই কারণে আপনি ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকার মধ্যে যদি ব্যবসাটি শুরু করে থাকেন, তাহলে প্রতি মাসে কম করে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

আর যদি ভালোমতো কাজ চালিয়ে যেতে পারেন আর আপনি মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে আপনার তৈরি করা প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারেন, তাহলে প্রতি মাসে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

ব্যাক কভার প্রিন্টিং করার প্রসেস তো জানা হয়ে গেল, আশাকরি আপনাদের ভাল লেগেছে। তবে যদি এরকম কোন ব্যবসার কথা ভেবে থাকেন, অল্প টাকা ইনভেস্ট করে ব্যবসাটি করতে পারেন, মার্কেটে এর চাহিদা আপনি একটু রিসার্জ করলেই বুঝতে পারবেন।

Leave a Comment