লক্ষ্মী পূজা 2023 তারিখ ও সময় | Lakshmi Puja 2023 Date & Muhurat

লক্ষ্মী পূজা 2023 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের লক্ষ্মী পূজা 2023? লক্ষ্মী পূজার শুভ সময় কখন? জানুন 2023 লক্ষ্মী পূজার মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে লক্ষ্মী পূজা? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও লক্ষ্মী পূজার তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

লক্ষ্মী পূজা তারিখ ও সময় | Lakshmi Puja Date & Muhurat
লক্ষ্মী পূজা 2023 তারিখ ও সময় | Lakshmi Puja 2023 Date & Muhurat

লক্ষ্মী পূজা 2023 (Lakshmi Puja 2023): প্রতিটি ঘরে ঘরে বৃহস্পতিবার আসলেই লক্ষ্মী দেবীর পূজায় মেতে ওঠেন হিন্দু পরিবার। সকাল থেকে এই দিন সপ্তাহের মধ্যে বিশেষ দিন হিসেবে পরিচিত হয়। লক্ষ্মী বার অথবা লক্ষ্মী পূজার দিন হিসাবে। পুরোহিত ডেকে পূজা না করলেও নিজেরাই ঘরেতে এমন লক্ষ্মী পূজা করা যেতেই পারে।

এই বছর লক্ষ্মী পূজা 2023 কবে?

Lakshmi Puja
28 October 2023
(Saturday)

Purnima Muhurat Start
4:10 AM on 28 October 2023
Purnima Muhurat End
1:50 AM on 29 October 2023

লক্ষ্মী পূজার বাংলায় তারিখ

লক্ষ্মী পূজা
28 অক্টোবর 2023
(শনিবার)

পূর্ণিমার মুহুর্ত শুরু
28 অক্টোবর 2023 তারিখে সকাল 4:10 টা
পূর্ণিমা মুহুর্ত শেষ
29 অক্টোবর 2023 তারিখে সকাল 1:50 টা

 

লক্ষ্মী দেবী কে ঘিরে বাংলার জনসমাজের বিভিন্ন জনপ্রিয় গল্প প্রচলিত রয়েছে। এই গল্প গুলি পাঁচালীর আকারে লক্ষ্মী পূজার দিন পাঠ করা হয়ে থাকে। আর এই বিষয়টিকে লক্ষ্মীর পাঁচালী বলা হয়। লক্ষ্মীর ব্রত কথা গুলির মধ্যে বৃহস্পতিবারের ব্রত কথা সব থেকে জনপ্রিয়। এছাড়াও বারো মাসের পাঁচালীতেও লক্ষীকে নিয়ে অনেক লৌকিক গল্পের উল্লেখ পাওয়া যায়।

মা লক্ষ্মীর গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য:

বিশেষ করে মা লক্ষ্মীর চারটে হাত, সেই চারটে হাতের ক্ষেত্রে ধর্ম, কর্ম, অর্থ ও মোক্ষ, হিন্দু শাস্ত্রে এই চার হাতের তাৎপর্য ব্যাখ্যা করা হয়েছে এভাবে। যারা মনে করেন মা লক্ষ্মী শুধুমাত্র ধন-সম্পত্তির দেবী তারা সম্ভবত দেবীর এই ব্যাখা সম্পর্কে অতটা জানেন না।

সমুদ্র মন্থন থেকে মা লক্ষ্মীর উদ্ভব হয়েছিল, কিন্তু সবার আগে জানা প্রয়োজন তিনি আসলে কে ? কিভাবে আবির্ভূত হলেন তিনি ? এই নিয়ে বিভিন্ন মতামত রয়েছেই, কখনো বলা হয় তিনি হলেন ঋষি ভ্রিগুর সন্তান এবং সমুদ্র মন্থনে তার পুনরজন্ম হয়।

আবার অন্যদিকে জানা যায় যে, তিনি সমুদ্র দেব বরুনের কন্যা। মা লক্ষ্মীর আগে আবির্ভূত হয়েছিলেন দেবী সরস্বতী। একটি পৌরাণিক গল্প বলা হয়েছে ব্রহ্মার সাত সন্তান, সপ্ত ঋষির মধ্যে ছয় জনই দেবী সরস্বতীর আরাধনা করে দৈব জ্ঞান লাভ করেছিলেন।

তবে যাই হোক না কেন, প্রতিটি ঘরে ঘরে নিয়ম মেনে যদি লক্ষী দেবীর আরাধনা করা যায়, তাহলে সংসারে সুখ, শান্তি, সমৃদ্ধি, ধন-সম্পদ বৃদ্ধি ও আধ্যাত্মিক সমৃদ্ধি বিপুল পরিমাণে হতে থাকবে। মা লক্ষ্মী একবার যার উপর সন্তুষ্ট হবেন সেই ব্যক্তি ধন সম্পদ এবং আরো অন্যান্য ঐশ্বর্যে পরিপূর্ণ হতে থাকবেন। সংসারে থাকবে না কোন অভাব, সদা সর্বদাই শান্তি বজায় থাকবে ঘরে ঘরে।

দেবী লক্ষ্মী খুবই অল্পতেই সন্তুষ্ট হন, কিন্তু তিনি বড়ই চঞ্চলা, তাকে ধরে রাখতে গেলে নম্রতার সাথে ধরে রাখতে হবে। কোনরকম চেঁচামেচি, ঝগড়া, ঝামেলা, মা লক্ষ্মী পছন্দ করেন না। তাই সেই কারণে সংসারে সুখ, শান্তি বজায় রাখতে এবং ঘরেতেই লক্ষ্মীকে বেঁধে রাখার জন্য আপনাকে খুবই নমনীয় হতে হবে, আর সমস্ত নিয়ম মেনে মা লক্ষ্মী ব্রত পালন করতে হবে।

Leave a Comment