গায়ত্রী জয়ন্তী 2023: ইতিহাস ও তাৎপর্য | Gayatri Jayanti 2023: History and Significance

গায়ত্রী জয়ন্তী 2022 (Gayatri Jayanti 2022 Date Time and Significance) 2022 গায়ত্রী জয়ন্তী ইতিহাস এবং জানুন গায়ত্রী জয়ন্তী কেন পালন করা হয়? গায়ত্রী জয়ন্তী তাৎপর্য কি? ভারতীয়দের জন্য গায়ত্রী জয়ন্তী গুরুত্ব কতটা? জানুন সবকিছু এখানে।

গায়ত্রী জয়ন্তী, যা কিনা পৌরাণিক কাহিনী অনুযায়ী জ্যৈষ্ঠ মাসের শুক্ল পক্ষে একাদশ তিথিতে পালন করা হয়। কাহিনী অনুসারে এই একাদশ তিথিতে গায়ত্রী প্রকট হয়েছিলেন। প্রতিবছর জৈষ্ঠ মাসের শুক্ল পক্ষের একাদশ তিথিতে গায়ত্রী জয়ন্তীর পবিত্র উৎসব পালন করা হয়।

গায়ত্রী জয়ন্তী ইতিহাস ও তাৎপর্য - Gayatri Jayanti History and Significance
গায়ত্রী জয়ন্তী ইতিহাস ও তাৎপর্য – Gayatri Jayanti History and Significance

এই একাদশ তিথি নির্জলা একাদশী নামেও পরিচিত। সমস্ত একাদশীর মধ্যে এই নির্জলা একাদশী কে শ্রেষ্ঠ একাদশী বলে মনে করা হয়। গায়ত্রী জয়ন্তীর দিন গায়ত্রী মাতার পূজা করা খুবই শুভ বলে বিবেচিত।

গায়ত্রী মাতা কে?

গায়ত্রী হলেন বেদ মাতা অর্থাৎ বেদের মাতা। তিনি চারটি বেদের উৎপত্তি ঘটিয়েছিলেন। গায়ত্রী মন্ত্রে চারটি বেদের সারমর্ম লুকিয়ে রয়েছে। ব্রহ্মা-বিষ্ণু এবং মহেশ্বর তার আরাধনা করেন।

গায়ত্রী দেবীকে সমস্ত ধরনের জ্ঞানের দেবী বলে মনে করা হয়। সেই কারণে গায়ত্রী পূজা করলে বুদ্ধি আরো বেশি তীক্ষ্ণ হয়ে ওঠে।

গায়ত্রীর উৎপত্তি:

পৌরাণিক কাহিনী অনুসারে জানা যায় যে, ব্রহ্মা যখন সৃষ্টির রচনায় ব্যস্ত ছিলেন, তখন তার সামনে গায়ত্রী মন্ত্র প্রকট হয়। তিনিই সর্বপ্রথম গায়ত্রী মাতা কে আহবান জানিয়েছিলেন। নিজের মুখ থেকে গায়ত্রী মন্ত্র ব্যাখ্যা করেন এবং এই ভাবেই গায়ত্রী প্রকট হয়েছিলেন।

তাছাড়া গায়ত্রীর মাধ্যমে কিন্তু চারটি বেদের অর্থাৎ বেদ শাস্ত্রের জন্ম হয়েছে। উল্লেখ্য যে এদিন গায়ত্রী মন্ত্র জপ করলে অনেক গুলি সুফল লাভ করতে পারবেন ভক্তরা। তাছাড়া বলা হয় যে, নির্জলা একাদশী হল একমাত্র একাদশী যা পালন করলে ২৪ টা একাদশীর সমান পুন্য ফলের প্রাপ্তি ঘটে।

গায়ত্রী পূজার পদ্ধতি অথবা নিয়ম রীতি:

  • এই দিন খুবই সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে ঘরবাড়ি পরিষ্কার করে স্নান সেরে নিতে হবে।
  • স্নান সেরে নেওয়ার পর বাড়ির মন্দির পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে সাজিয়ে সেখানে প্রদীপ জ্বালাতে হবে।
  • গঙ্গা জল দিয়ে সকল দেবতার অভিষেক করুন।
  • মা গায়ত্রীর ধ্যান করুন, গায়ত্রী মাকে ফুল নিবেদন করুন, তারপর গায়ত্রী মন্ত্র জপ করুন।
  • তারপর মাকে বিভিন্ন রকমের ভোগ নিবেদন করুন। তবে মনে রাখবেন যে, শুধুমাত্র সাত্বিক জিনিসই ঈশ্বরের কাছে নিবেদন করতে হবে।

গায়ত্রী জয়ন্তীর তাৎপর্য:

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে এই দিনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে সবাই মেনে থাকেন। মা গায়ত্রীর আরাধনা করলে মনের সকল ইচ্ছা পূরণ হয় বলে জানা যায়। এছাড়া গায়ত্রী হলেন বেদের মা। গায়ত্রী পূজা করলে বেদ অধ্যায়নের সমান পূন্য ফল পাওয়া যায়।

শাস্ত্র অনুসারে, হিন্দু বিধান অনুসারে সকাল, দুপুর ও সন্ধ্যায় গায়ত্রী ধ্যান করতে হয় এবং এই মন্ত্র ধ্যান বা পাপ এর থেকে মুক্তিপ্রাপ্ত হয় বলে এর নাম গায়ত্রী মন্ত্র। আচার্যের কাছে এই মন্ত্রে দীক্ষিত হলে তার পুনর্জন্ম হয় ও তিনি দ্বিজ নামে অভিহিত হন।

এছাড়া বিশ্বাস করা হয় যে, গায়ত্রী মন্ত্র জপ করলে ঈশ্বর প্রাপ্তি ঘটে, গায়ত্রীর ধ্যানে আছেন, তিনি সূর্য, মঙ্গল এর মধ্যস্থানে অবস্থানকারী হিসেবে রয়েছেন।

সংসারের সুখ, শান্তি, লাভের জন্য প্রতিদিন গায়ত্রী মন্ত্র জপ করার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে গুরুদেব দের দ্বারা। পৌরাণিক কাহিনী অনুযায়ী এই মন্ত্র জপ করলে বুদ্ধি তীক্ষ্ণ হয়। চাকরি ও ব্যবসায় খুবই লাভ পাওয়া যায়। সারাদিন এই মন্ত্র জপ করতে না পারলেও, ১০৮ বার এই মন্ত্র জপ করা অবশ্যই বাঞ্ছনীয়। তবে গায়ত্রী মন্ত্র জপ করার ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম পালন করা অবশ্যই উচিত, তা না হলে পূর্ণ ফল লাভ করা সম্ভব নয়।

গায়ত্রী মন্ত্র জপ করার নিয়ম:

তো চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক, গায়ত্রী মন্ত্র জপ করার নিয়ম গুলি সম্পর্কে:

  • শুধুমাত্র সকালবেলাতেই নয়, বরং সকাল বেলা ছাড়াও দুপুর ও সন্ধ্যার সময় ও গায়ত্রী মন্ত্র জপ করতে পারেন।
  • সূর্য উদয় থেকে গায়ত্রী মন্ত্র জপ করা শুরু করা উচিত, সূর্যাস্তের পর গায়ত্রী মায়ের আশীর্বাদ নিয়ে এই মন্ত্র জপ করা বন্ধ করুন।
  • এছাড়া পবিত্র অবস্থায় গায়ত্রী মন্ত্র জপ করা উচিত, সেই কারণে সকালে উঠে আগে স্নান সেরে পরিষ্কার কাপড় পরার পরই গায়ত্রী মন্ত্র জপ করবেন।
  • মেঝেতে বসে এই গায়ত্রী মন্ত্র জপ করবেন না, মেঝেতে যদি বসতেই হয়, তাহলে কোন আসন বিছিয়ে নিতে পারেন।
  • সকাল বেলায় যদি গায়ত্রী মন্ত্র জপ করেন তাহলে পূর্ব দিকে মুখ করে জপ করবেন এবং সন্ধ্যাবেলায় পশ্চিম দিকে মুখ করে এই মন্ত্র জপ করা উচিত, অর্থাৎ সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের সাথে সম্পর্কিত।

কিভাবে জপ করবেন গায়ত্রী মন্ত্র?

যেকোনো পূজা অর্চনার এবং ব্রত পালন করার জন্য কোন না কোন নিয়ম আপনাকে মেনে চলতেই হবে। তাই যদি আপনি গায়ত্রী মন্ত্র জপ করতে চান তাহলে কিভাবে জব করবেন, চলুন জানা যাক:- 

  • যখনই গায়ত্রী মন্ত্র জপ করবেন, তখনই সব সময়ের জন্য রুদ্রাক্ষের মালা ব্যবহার করবেন, রুদ্রাক্ষের মালাতে জপ করবেন।
  • কাউকে শুনিয়ে, জোরে জোরে এই মন্ত্র জপ করা উচিত নয়, আপনি আপনার ধ্যানে, মনে মনে এই মন্ত্র উচ্চারণ করুন।
  • গায়ত্রী মন্ত্র জপ করার সময় শুরু ও শেষে শ্রী” উচ্চারণ করাটা অবশ্যই উচিত।

গায়ত্রী জয়ন্তীর মাহাত্ম্য:

হিন্দু ধর্মে এই দিনকে খুবই গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যেহেতু এটি নির্জলা একাদশী হিসেবে পরিচিত। সেই কারণে ২৪ টা একাদশীর সমান পূন্য লাভ করা যায়। গায়ত্রী পূজা করলে মানুষের সমস্ত মনস্কামনা পূর্ণ হওয়ার সম্ভাবনা অনেক গুণ বেড়ে যায়।

মা গায়ত্রী কে যেহেতু বেদের জননী বলা হয়, তাই মা গায়ত্রীর পুজো করলে বেদ অধ্যয়নের সমান ফলপ্রাপ্তি হয়ে থাকে। দীর্ঘ দিনের মনস্কামনা পূর্ণ হয়, এই ব্রত পালন করার মাধ্যমে। তাই সকলেই গায়ত্রী জয়ন্তীতে গায়ত্রী মন্ত্র জপ করা এবং ব্রত পালন করার জন্য উৎসাহ দেখিয়ে থাকেন।

Leave a Comment