অনিদ্রার সমস্যা দূর করার কিছু কার্যকরী উপায়

0
(0)

অনিদ্রার সমস্যা খুবই সাধারণ একটি সমস্যা, অনিদ্রার  সমস্যায় পড়েনি এমন মানুষ পাওয়া যাবেনা। কিন্তু অনিদ্রা স্বল্পস্থায়ী নাকি দীর্ঘস্থায়ী তার উপর নির্ভর করে এর সমাধান ও প্রতিকার।

অনিদ্রার সমস্যা দেখা দেয় বিভিন্ন কারণে, অনেক সময় খাওয়ার অনিয়ম, ঘুমের সময়ের পরিবর্তন, জায়গার পরিবর্তন, দুঃশ্চিন্তা, কাজের প্রেসার ইত্যাদি কারণে অনিদ্রার সমস্যা দেখা দিতে পারে। সমস্যা যেহেতু বিভিন্ন কারণে হয়, এই কারণগুলোর সমাধান করলেই অনিদ্রার সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

তবে দীর্ঘস্থায়ী সমস্যা হলে এর সমাধান করাও সময়সাপেক্ষ হবে। সমস্যা স্বল্পমেয়াদি হোক বা দীর্ঘমেয়াদি,  এটা দূর করতে চিকিৎসকের পরামর্শের পাশাপাশি নিজের অনিয়ম, এবং আনুষঙ্গিক অভ্যাস পরিবর্তন করুন।

সুপ্রিয় পাঠক আমাদের আয়োজন সাজানো হয়েছে অনিদ্রা দূর করার কিছু কার্যকর উপায় নিয়ে। আশা করি পোস্টটি আপনাদের সমস্যা সমাধানে সাহায্য করবে। চলুন দেরী না করে উপায়গুলো জেনে নেওয়া যাক।

অনিদ্রা দূর করার কিছু কার্যকর উপায় জেনে নিন

 

১. আরামদায়ক পরিবেশ সৃষ্টি

অনিদ্রার সমস্যা দূর করতে চাইলে প্রথমেই আরামদায়ক পরিবেশ দরকার। অনেকেই কোথাও বেড়াতে গেলে নতুন পরিবেশে ঘুমাতে পারেন না।

আবার বালিশ বা আলোর সমস্যা, অতিরিক্ত ঠান্ডা বা গরমে অনেকের ঘুমের সমস্যা দেখা দেয়। পরিবেশগত সমস্যাগুলো দূর করতে পারলেই ঘুমের সমস্যা দুর হয়ে যাবে।

২. সঠিক সময়ে খাদ্যগ্রহন করুন

খাবারের অনিয়ম থেকেই হজমের সমস্যা দেখা দেয়। আপনি যখন ঘুমাতে আসেন, তখন যদি খাবারের অনিয়ম করেন, গুরুপাক, ভারী খাবার খান, আর এরপর মোটেও হাটাহাটি না করেই ঘুমাতে আসেন তাহলে হজমের সমস্যার কারণেই সারারাত আপনি ঘুমাতে পারবেন না। রাতে দুঃস্বপ্ন দেখবেন।

এরজন্য খাবারের মেনুতে হালকা, এবং স্বাস্থ্যকর খাবার রাখুন। রাতে খুব ভারী খাবার এড়িয়ে চলুন, এবং খাওয়ার পর কিছুক্ষন হাটাহাটি করুন। রাতে ঘুমানোর আগে ঠান্ডা দুধ খেতে পারেন। এতে করে ঘুম ভাল হবে।

৩. অতিরিক্ত দুঃশ্চিন্তা পরিহার করুন

মানসিক অস্থিরতা ঘুম না আসার অন্যতম কারণ। আপনি যদি কাজের প্রেসার, সম্পর্কের জটিলতা, জীবনে পাওয়া না পাওয়ার হিসাব মেলানো নিয়ে ব্যস্ত থাকেন তাহলে কখনোই রাতে শান্তিতে ঘুমাতে পারবেন না। ঘুমের মধ্যে বারবার জেগে যাবেন, দুঃস্বপ্ন দেখবেন। তাই ঘুমানোর আগে দুঃশ্চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলুন।

আমরা কেউই জানিনা আগামীকাল কি হতে যাচ্ছে আমাদের সাথে, আমাদের ভাগ্যে কি আছে। আজ আমরা যা দুর্ভাগ্যজনক বলে মনে করছি কাল তাই আমাদের কাছে ভাল বলে মনে হতে পারে।

অতিরিক্ত চিন্তা শরীর ও মনের ক্ষতিই করে কেবল। তাই ঘুমানোর আগে চিন্তা পরিহার করুন।

৪. শারীরিক পরিশ্রম করুন

যারা শারীরিক পরিশ্রম কম করে, তাদের ঘুম আসতে সমস্যা হয়। কারণ তারা ঘুমানোর মত ক্লান্ত থাকে না, এজন্য অনিদ্রা তাদের একটি দীর্ঘস্থায়ী সমস্যায় পরিণত হয়।

এজন্য প্রতিদিন নিয়মিত শরীরচর্চা বা শারীরিক পরিশ্রমের কাজ করুন। এটা শরীরে বাড়তি মেদ, চর্বি জমা থেকে আপনাকে রক্ষা করবে, শারীরিক পরিশ্রমের ফলে আপনি ক্লান্ত থাকবেন এবং ঘুমও ঠিকমত হবে।

৫. চিকিৎসকের পরামর্শ নিন

অনিদ্রার সমস্যা যদি দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকে, এবং কোনভাবেই ভাল না হয় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। অল্পমাত্রায় ঔষধ সেবন করুন। তবে এরসাথে অনিয়মগুলোও দূর করার চেষ্টা করুন। তাহলেই আপনি অনিদ্রা থেকে মুক্তি পাবেন।

আর যদি শুধুমাত্র ঔষধ সেবন করেন কিন্তু অভ্যাস পরিবর্তন না করেন তাহলে সমস্যার সমাধান হবেনা।

৬. ঘুমে বিঘ্ন ঘটায় এমন জিনিস দূরে রাখুন

অনেকেরই টিভি দেখতে দেখতে বা চ্যাটিং করতে করতে ঘুমানোর অভ্যাস আছে। এতে করে টিভির সাউন্ডে, অথবা মোবাইলের নোটিফিকেশনে বারবার ঘুমের বিঘ্ন ঘটে। ঘুমের মধ্যে বারবার মনে হয় মেসেজ এসেছে। এভাবেই ঘুম নষ্ট হয়।

ঘুমের সময় হাতের কাছে মোবাইল, রিমোট, এগুলো রাখবেন না। বই রাখতে পারেন। বই পড়লে ঘুম ভাল হয়।

উপসংহার

অনিদ্রা একটি কষ্টদায়ক সমস্যা। একটি সুস্থ মানুষের দৈনিক ৮ ঘন্টা ঘুম প্রয়োজন হয়। কিন্তু সে যদি ঘুমাতে না পারে তার স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা হ্রাস পায়। সে সবসময় অস্থিরতায় ভোগে, কোন কাজেই মনোযোগ দিতে পারেনা। এজন্য অনিদ্রার সমস্যা দূর করা খুবই জরুরী।

উপরিউক্ত উপায়গুলো অনুসরণ করে সহজেই অনিদ্রার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারবেন। আর রুটিনমাফিক জীবন আপনাকে সব সমস্যা থেকেই মুক্তি দেবে।

আশা করি পোস্টটি অনিদ্রা থেকে মুক্তি পেতে আপনাকে সাহায্য করবে। এ বিষয়ে কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন। আমরা অবশ্যই তথ্য জানিয়ে আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব। আজকের মত এখানেই শেষ করছি। ধন্যবাদ সবাইকে।

আপনাদের এই তথ্য কেমন লেগেছে?

এই পোস্টে মতামত দিতে একটি স্টারে ক্লিক করুন!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

যেহেতু আপনি এই পোস্টটি দরকারী বলে মনে করেছেন ...

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের অনুসরণ করুন!

আমরা দুঃখিত যে এই পোস্টটি আপনার জন্য দরকারী ছিল না!

চলুন আমাদের এই পোস্ট উন্নত করা যাক!

আমাদের বলুন কিভাবে আমরা এই পোস্ট উন্নত করতে পারি?

Leave a Comment