জমির খাজনা কিভাবে অনলাইনে দেয়া যায়? How to Pay Property Tax Online?

আমাদের মাঝে অনেকেরই বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া বা নিজের ক্রয় করা জমি আছে। এই সকল জমি আমরা অনেক সময় সঠিকভাবে দেখাশুনা করতে পারিনা। সেই সাথে অনেক কাজের ব্যস্ততায় আমরা জমির খাজনা দিতে ভুলে যাই।


শুধুমাত্র সময়ের অভাবেই আমাদের জমির খাজনা পরিশোধ বছরের পর বাকী থাকে। এই খাজনা পরিশোধ করা বাকি থাকার কারনে অনেক সময় আমাদের নানা সমস্যার মুখোমুখী হয়ে থাকি। তাই আমাদের সবারই নিয়মিতভাবে জমির খাজনা পরিশোধ করতে হবে। 

 

আপনাদের সবার জন্য সুখবর হলো যে, এখন আর আপনার সরকারী অফিসে সরাসরি গিয়ে জমির খাজনা দিতে হবে না। আপনি চাইলে ঘরে বসে বা আপনার কর্মস্থলে বসেই জমির খাজনা পরিশোধ করতে পারবেন।


এতে করে আপনার দীর্ঘদীনের জমির খাজনা বকেয়া হবে না, সেই সাথে জমি সংক্রান্ত যে কোন জটিলতায় খাজনা নিয়ে সমস্যায় পড়তে হবে না। এজন্য আমাদের সবারই জমির খাজনা কিভাবে অনলাইনে দিতে হয় তা জেনে রাখা উচিত। তাহলে আপনি ভবিষ্যতে অনলাইনে জমির খাজনা দিয়ে ঝামেলায় পড়তে হবে না। 

 

আমাদের বাংলাভূমি সাইটে আপনাদের জন্য নিয়মিতভাবে জমি বিষয়ক নানা খুঁটিনাটি বিষয় আলোচনা করে থাকি। এতে করে আপনার জমি বিষয়ক অনেক কিছু জানতে পারেন। যা আপনাদের প্রাত্যাহিক জীবনের জমি বিষয়ক বিভিন্ন সমস্যা মোকাবেলায় সহায়তা করে থাকে।


এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আপনাদের সাথে অনলাইনে কিভাবে জমি খাজনা দেয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা করবো। এতে করে আপনারা খুব সহজেই অনলাইনে জমির খাজনা পরিশোধ করে ঝামেলামুক্ত হতে পারবেন। আসুন দেখে নিই, কিভাবে অনলাইনে জমির খাজনা পরিশোধ করা যায়।

 

সাধারনত আলাদা আলাদা স্থানে জমির খাজনার পরিমান আলাদা হয়ে থাকে। জমির খাজনা সিটি কর্পোরেশনে এক প্রকার, পৌরসভায় এক প্রকার, গ্রামে এক প্রকার হয়ে থাকে। তাই জমির খাজনা দেয়ার আগেই আপনাকে আপনার এলাকার জমিতে খাজনা কত হবে তা জেনে নিতে হবে। সময়মত জমির খাজনা পরিশোধ না করলে আপনাকে জরিমানাসহ খাজনা পরিশোধ করতে হবে।


তাই আর দেখি না করে আপনি অনলাইনে আপনার জমির খাজনা পরিশোধ করে ফেলুন। নিচে আমরা আপনাদের জন্য ধাপে ধাপে কিভাবে অনলাইনে খাজনা দেয়া যায় তার বর্ণনা করছি। 

 

কি কি ধাপে অনলাইনে জমির খাজনা পরিশোধ করা যায়? 

নিচে ধাপে ধাপে আপনাদের জন্য অনলাইনে জমির খাজনা পরিশোধের প্রক্রিয়া আলোচনা করছি।

ধাপ ১–  আপনার নির্দিষ্ট এলাকার পৌরসভার বা সিটি কর্পোরেশনের ওয়েবসাইটের ঠিকানায় প্রবেশ করুন।

ধাপ ২– জমির ট্যাক্স অপশনে ক্লিক করুন।


ধাপ ৩
– জমির সকল তথ্য (জমি ঠিকানা, আপনার নাম, আপনার ইমেইল আইডি, ফোন নাম্বার ইত্যাদি) পুরন করুন। 


ধাপ ৪
– সকল তথ্য ভেরিফাই করুন।


ধাপ ৫
– “Get Tax Amount” এ ক্লিক করুন।


ধাপ ৬
– খাজনার মোট পরিমান দেখার পর আপনি কোন প্রক্রিয়ার টাকা পরিশোধ করতে চান তা নির্ধারন করুন (Debit Card, Credit Card, Net Banking etc.) 


ধাপ ৭- 
খাজনা পরিশোধের সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে চালান সংগ্রহ করুন।


ধাপ ৮
– ভবিষ্যতের জন্য চালান সংরক্ষন করুন। 

অনলাইনে খাজনা দিতে কি কাগজপত্র দরকার হয়ে থাকে? 

আপনাদের জন্য খুবই ভালো খবর যে, অনলাইনে জমির খাজনা পরিশোধের জন্য আপনাকে কোন কাগজপত্র জমা দিতে হবে না। আপনি অনলাইনে আপনার ঠিকানা, আইডি নাম্বার, জমির সকল তথ্য জমা দিয়ে টাকা জমা দিলেই জমির খাজনা পরিশোধ হয়ে যাবে। এতে করে খুব কম সময়েই আপনার জমির খাজনা পরিশোধ সম্পন্য হবে।

 

তাই এই লেখা হতে আমরা জানতে পারি, কিভাবে অনলাইনে সহজেই জমির খাজনা দেয়া যায়। তাই এ নিয়ে আমাদের মাঝে আর কোন প্রশ্ন থাকলো না। এতে করে আমরা সবাই জমির খাজনা দেয়ার বিষয়ে ভালো করে বুঝতে পারবো। 

 

আমাদের সাইটের পরবর্তী লেখায় আপনাদের জন্য এই বিষয়ের উপর আরো বিস্তারিত লেখা থাকবে। তাই আমাদের পেজে নিয়মিত চোখ রাখুন। এই লেখাটি অনেকের কাজে লাগতে পারে তাই লেখাটি যতটুকু সম্ভব শেয়ার করুন, যাতে করে অনেকে এই লেখা থেকে শিক্ষা নিয়ে জমি সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারবেন।  

1 thought on “জমির খাজনা কিভাবে অনলাইনে দেয়া যায়? How to Pay Property Tax Online?”

  1. details বলুন যাতে সকলে বুঝতে পারে।

    Reply

Leave a Comment