জমির খাজনা যথা সময়ে দিলে কি সুবিধা বা সমস্যা হবে?

জমির খাজনা দেয়ার ব্যপারে আমাদের উদাসীনতা নতুন হয়। দৈনন্দিন জীবনের অনেক কাজই আমরা করে থাকি। নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিল, জলের বিল ঠিক সময়ে দিয়ে থাকি। কিন্তু অনেক সময়ই আমাদের জমির খাজনাটি সঠিক সময়ে দেয়া হয় না। অথচ জমির খাজনা না দিলে সম্পত্তি নিয়ে নানা জটিলতার মুখামুখী হতে হয়। 

আমাদের সবারই জানা উচিত, জমির খাজনা না দিলে কি সমস্যা হতে পারে, সেই সাথে জমির খাজনা দিতে দেরি করলে কি কি সমস্যা হতে পারে। আমাদের জমির খাজনা বিষয়ে এসব জানা থাকলে আর খাজনা না দেয়ার জটিলতায় পড়তে হবে না। তাই আমাদের জানতে হবে জমির খাজনা না দিলে কি কি সমস্যা হতে পারে।

আমাদের বাংলাভূমি সাইটে নিয়মিতভাবে আপনাদের সাথে জমি বিষয়ক নানা সমস্যা, সুবিধা, উত্তরাধিকারসহ নানা বিষয়ে আলোচনা করে থাকি। এতে করে আপনাদের মাঝে জমি বিষয়ক নানা আইন নিয়ে সচেতনতা তৈরি হয়েছে। এই সচেতনতার ফলে আপনার ভবিষ্যতে আর প্রতারক চক্রের ধোঁকায় পড়বেন না। 

কেউ অন্যায়ভাবে আপনাকে ঠকাতে পারবে না। এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আপনাদের সাথে জমির খাজনা না দিলে কি কি সমস্যা হতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করবো। এতে করে আপনারা সহজেই জমির খাজনা বিষয়ক কিছু বিষয় জানতে পারবেন। সেই সাথে জমি খাজনা দেবার জটিলতা হতে রক্ষা পাবেন।

আসুন দেখে নিনি জমির খাজনা সময়মত না দিলে কি কি সমস্যা ও সময়মত দিলে কি কি সুবিধা পাওয়া যেতে পারে।

 

১৫% Tax ছাড় সুবিধা নিন

শুধু বিলম্ব হলে জরিমানা গুনতে হবে তা নয়। আপনি জমির খাজনা আগে দিলে আপনার জন্য পুরস্কার হিসেবে খাজনা মওকুপের সুযোগ আছে। আপনি যদি বছরের প্রথম ভাগেই একটা নির্দিষ্ট পরিমান খাজনা দিয়ে দিতে পারেন, তাহলে আপনার জন্য ভারতীয় আইনে পুরস্কারের ব্যবস্থা আছে।


আপনি প্রথম প্রান্তিকে জমির খাজনা দিলে মোট খাজনার ১৫% টাকা মওকুপ পাবেন। তাই আমাদের সবার আগে আগে জমির Tax পরিশোধ করে দিতে হবে, এতে করে আমরা মোট খাজনার ১৫% টাকা ছাড় পাবো। 

 

আয়কর ছাড় পাওয়া যাবে

শুধু মাত্র ১৫% ছাড়ই নয়, জমির খাজনা দেয়ার অনেক সুবিধা পাওয়া যায়। আপনি জমির খাজনা দিয়ে বছর শেষে আয়কর ও কম দিতে পারবেন।


ভারতীয় আয়কর আইন অনুযায়ী কোন ব্যক্তি আয়কর দেয়ার সময় ঐ বছরে তার দেয়া জমির খাজনার একটি অংশ আয়কর ছাড় পেতে পারে। এভাবেই জমির খাজনা দিয়ে আর্থিক সুবিধা পাওয়া যায়। 

 

জমির খাজনা দেয়ার সুবিধা

জমির খাজনা দেয়ার অনেক সুবিধা রয়েছে। জমির খাজনা নিয়ে সরকার অনেক উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করতে পারে। এই খাজনা থেকে আয় থেকে সরকার আপনার এলাকায় অনেক উন্নয়ন করতে পারে।


এলাকায় রাস্তাঘাট করা, জল, বিদ্যুতের উন্নয়নে ব্যবহার করা হয়। এতে করে জমির খাজনার অর্থ হতে পুনরায় আমরা সুবিধা পেয়ে থাকি। এজন্য আমাদের সবারই সঠিক সময়ে জমির খাজনা দেয়া নিয়ে আগ্রহী হতে হবে। 

খাজনা দিতে দেরি করলে জরিমানা দিতে হবে

আপনি যদি আপনার জমির খাজনা সময়মত পরিশোধ না করে থাকেন তবে আপনাদের শাস্তি হিসেবে জরিমানা গুনতে হবে। এই জরিমানার পরিমান আপনার মোট বকেয়া Tax এর উপর নির্ভর করবে। নির্দিষ্ট সময়ের মাঝে Tax দিতে না পারলে মোট বকেয়ার ২০% টাকা জরিমানা হিসেবে দিতে হবে।

 


এতে করে আপনার মোট খাজনার পরিমান বেড়ে যাবে। আপনার বিলম্বের জন্য আপনাকে বাড়তি টাকা গুনতে হবে। তাই আমাদের চেষ্টা করতে হবে জমির খাজনা যাতে করে বকেয়া না হয়। সঠিক সময়ে জমির Tax দেয়ার চেষ্টা করব। 

Leave a Comment