2022 Ananta Merit Scholarship পাওয়ার যোগ্যতা ও আবেদন পক্রিয়া

0
(0)

Ananta Merit Scholarship সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্রছাত্রীকে শিক্ষা লাভে সহায়তা করার জন্য আর্থিক সহায়তা দিয়ে থাকে।

ছাত্রছাত্রীরা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেনীতে পাস করার পর এই Scholarship এর জন্য আবেদন করতে পারে, যাতে করে তার উচ্চ শিক্ষার পর সুগম হয়।

Anant Merit Scholarship Eligibility and Application
Anant Merit Scholarship Eligibility and Application

২০১১ সালে ২৫২ জন ছাত্রছাত্রীকে (১২১ জন ছাত্রী, ১৩১ জন ছাত্র) বৃত্তি প্রদান করে এই Scholarship যাত্রা শুরু করে।

উচ্চ মাধ্যমিকে ৭০% এর বেশি নাম্বার পাওয়া ছাত্রছাত্রীদের এই Scholarship প্রদান করা হয়। ২০১২ সালে এই Scholarship ৫০০০ জন ছাত্রছাত্রীকে দেয়া হয়।

পশ্চিমবঙ্গের যাদাবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, প্রেসিডেন্সী ইউনিভার্সিটি সহ আরো অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদের এই বৃত্তি দেয়া হয়ে থাকে।

এই Scholarship এর লক্ষ্য এই বছরের মাঝে ১ লক্ষ ছাত্রছাত্রীকে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান করা।

Ananta Merit Scholarship-এর গুরুত্বপূর্ণ তথ্যঃ

বিষয়বিবরণ
স্কলারশীপের নামAnanta Merit Scholarship
স্কলারশীপ কর্তৃপক্ষAnanta Education Initiative
স্কলারশীপের উপযুক্ত কোর্সমাধ্যমিক অথবা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করা ছাত্রছাত্রী।
আবেদনের প্রক্রিয়াঅনলাইন এবং অফলাইন উভয়
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটanantaeducation.org

Ananta Merit Scholarship এর যোগ্যতাঃ

এই Scholarship এর আবেদনকারীকে নিম্নবর্ণিত যোগ্যতা থাকতে হবে।

১) আবেদনকারীকে মাধ্যমিক অথবা ১২ উচ্চ মাধ্যমিকে ৭০% নাম্বার পেয়ে পাস করতে হবে।

২) আবেদনকারীর পরিবারের মাসিক আয় ৫০০০ টাকার বেশি নয়।

৩) মোট বৃত্তির কমপক্ষে ৫০% বৃত্তি মেধাবী ছাত্রীদের দিতে হবে।

৪) শারীরিক প্রতিবন্ধী ছাত্রছাত্রীরা এই Scholarship এর অগ্রাধিকার পাবে।

৫) আবেদনকারীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের হতে হবে।

আবেদনের প্রক্রিয়া সমুহঃ

১) Ananta Merit Scholarship এর অফিসিয়াল সাইটে anantaeducation.org  প্রবেশ করুন।

২) রেজিষ্ট্রেশন Scholarship এ ক্লিক করুন।

৩) সকল তথ্য প্রদান করুন।

৪) সকল তথ্য দেয়া সম্পন্ন হলে আবার চেক করুন।

৫) সব তথ্য সঠিক থাকলে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।

৬) ভবিষ্যতে সংরক্ষনের জন্য একটি A4 সাইজের কাগজে প্রিন্ট করে রাখুন।

কি কি কাগজপত্র দরকার হয়?

এই Scholarship এর জন্য আবেদন করতে নিম্নবর্ণিত কাগজপত্র দরকার হয়।

১) BPL কার্ডের সত্যায়িত কপি অথবা পঞ্চায়েত প্রধানের সাক্ষরিত আয়ের সনদ।

২) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক এর সনদপত্র ও মার্কশীটের সত্যায়িত কপি।

৩) রেশন কার্ডের সত্যায়িত কপি।

৫) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক এর প্রবেশপত্রের সত্যায়িত কপি।

৬) শারীরিক প্রতিবন্ধী সনদপত্র (যদি থাকে)

৭) আধার কার্ডের সত্যায়িত কপি।

৮) সদ্যতোলা ৩ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি

এই Scholarship-এ কি সুবিধা পাওয়া যায়?

১) এই Scholarship এ সাধারনত মাসিক ৫০০০ টাকা হতে ৬০০০ টাকা প্রদান করা হয়।

২) ছাত্রছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরণ করা হয়।

৩) কিছু কিছু ছাত্রছাত্রীকে ল্যাপটপ প্রদান করা হয়।

Ananta Merit Scholarship চয়নের প্রক্রিয়াঃ

১) ছাত্রছাত্রীরা আবেদন করে।

২) আবেদনপত্র হতে Ananta Merit Scholarship এর কর্মকর্তাগন বাছাই করে থাকে।

৩) বাছাইকৃত আবেদনকারীকে ফোনে ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকা হয়।

৪) ইন্টারভিউ সম্পন্ন হয়।

৫) নির্বাচিত ছাত্রছাত্রীদের ব্যাংকিং তথ্য নেয়া হয়। সকল নির্বাচিত ছাত্রছাত্রীকে আলাদা আলাদা নিজের ব্যাংক একাউন্ট তথ্য জমা দিতে হয়।

৬) নির্বাচিত ছাত্রছাত্রীদের মাঝে স্কলারশীপের টাকা প্রদান করা হয়।

আজ আমরা Ananta Merit Scholarship এর বিস্তারিত জানতে পারলাম। এই স্কলারশীপের ফলে সমাজের পিছিয়ে পড়া অনেক দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্রছাত্রী তাদের শিক্ষা জীবন চালিয়ে যেতে পারে এবং উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হবার সু্যোগ পায়।

পরবরতীতে আপনাদের জন্য আরো বিস্তারিত তথ্য নিয়ে আলোচনা করবো । আপনাদের কোন বিষয়ে প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্টের করে জানান।

আমরা আপনার প্রশ্নের জবাব দেয়ার চেষ্টা করবো। আরো অনেক স্কলারশীপ নিয়ে জানতে চোখ রাখুন আমাদের সাইটে।

আপনাদের এই তথ্য কেমন লেগেছে?

এই পোস্টে মতামত দিতে একটি স্টারে ক্লিক করুন!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

যেহেতু আপনি এই পোস্টটি দরকারী বলে মনে করেছেন ...

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের অনুসরণ করুন!

আমরা দুঃখিত যে এই পোস্টটি আপনার জন্য দরকারী ছিল না!

চলুন আমাদের এই পোস্ট উন্নত করা যাক!

আমাদের বলুন কিভাবে আমরা এই পোস্ট উন্নত করতে পারি?

Leave a Comment