অক্ষয় তৃতীয়া 2024 তারিখ ও সময় | Akshaya Tritiya 2024 Date & Muhurat

অক্ষয় তৃতীয়া 2024 তিথি ও সময় ভারতীয় সময় অনুসারে। কবে পড়েছে এবছরের অক্ষয় তৃতীয়া 2024? অক্ষয় তৃতীয়ার শুভ সময় কখন? জানুন 2024 অক্ষয় তৃতীয়ার মুহূর্ত ও কেনাকাটার শুভ মুহূর্ত এবং তাৎপর্য। এই বছরের কবে অক্ষয় তৃতীয়া? জেনে নিন কেনাকাটার পাশাপাশি উৎসবের শুভ সময় ও মুহূর্ত। এছাড়াও অক্ষয় তৃতীয়ার তাৎপর্য, পূজা বিধি এবং এই সময় কি কাজ করা উচিৎ ও কি না করা উচিৎ জানুন সবকিছু।

অক্ষয় তৃতীয়া তারিখ ও সময় | Akshaya Tritiya Date & Muhurat
অক্ষয় তৃতীয়া 2024 তারিখ ও সময় | Akshaya Tritiya 2024 Date & Muhurat

অক্ষয় তৃতীয়া 2024 (Akshaya Tritiya 2024): প্রচলিত বিশ্বাস অনুসারে এই দিনে সোনা, সম্পত্তি, যেমন ধরুন জমি, বাড়ি, গাড়ি, ইত্যাদি কিনলে ভবিষ্যতে সম্পদ আসে বলে মনে করা হয়। অক্ষয় তৃতীয়া এমন একটি উৎসব যা কিনা সমস্ত বিশ্বের হিন্দু এবং জৈন ধর্মালম্বীরা পালন করে থাকেন।

এই বছর অক্ষয় তৃতীয়া 2024 কবে?

Akshaya Tritiya Puja
10 May 2024
Friday

Tritiya Muhurat Start
4:10 AM on 10 May 2024
Tritiya Muhurat End
3:00 AM on 11 May 2024

অক্ষয় তৃতীয়ার বাংলায় তারিখ

অক্ষয় তৃতীয়া পূজা
১০ মে ২০২৪
রবিবার

তৃতীয়া মুহূর্ত শুরু
১০ মে ২০২৪ ভোর ৪ঃ১০ টায়
তৃতীয়া মুহূর্ত শেষ
১১ মে ২০২৪ রাত্রি ৩ঃ০০ টায়

 

এই দিনটিকে সবচেয়ে শুভ অনুষ্ঠান বলে মনে করা হয়। হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী অক্ষয় তৃতীয়া বৈশাখ মাসের শুক্লপক্ষের তৃতীয় তিথিতে অর্থাৎ চন্দ্র দিনে পড়ে। আর গ্রেগোরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসারে এই অক্ষয় তৃতীয়া এপ্রিল এবং মে মাসের কাছাকাছি কোন একটা সময় পড়ে।

2024 অক্ষয় তৃতীয়া শুভেচ্ছা বার্তা ও স্ট্যাটাস

অক্ষয় তৃতীয়ার তাৎপর্য 2024: 

অক্ষয় তৃতীয়া বাঙালিদের জীবনে কতখানি পরিবর্তন ঘটিয়েছে সেটা এই দিনে শুভকাজ করার মধ্য দিয়ে বোঝা যায় কেননা বিশ্বাস অনুসারে অক্ষয় তৃতীয়ার দিন যদি ভালোভাবে ভালো কাজের সিদ্ধান্ত নেওয়া যায়, তাহলে সেটা অক্ষয় হয়ে থাকে। এই অক্ষয় তৃতীয়ার দিন স্নানের পর ব্রাহ্মণকে কোন কিছু দান করলে সেটা অক্ষয় পূন্য অর্জন করা যায় বলে মনে করা হয়।

সেই ধারণা থেকে অনেক কৃপণ মানুষও একেবারে মুক্ত হস্তে দান ধ্যান করতেন। যদিও নাস্তিকদের মতে এটা ব্রাহ্মণ্যবাদ, পাপ পুণ্যের লোভ দেখিয়ে সাধারণের থেকে দানের সামগ্রী আদায় করার কৌশল ব্রাহ্মণদের।

সমস্ত রকম শুভ কাজ করার জন্য বাঙালিরা এই অক্ষয় তৃতীয়ার দিনটিকে বেছে আসছেন অনেকদিন আগে থেকে। তাছাড়া পয়লা বৈশাখের পাশাপাশি বাঙালির একাংশ হালখাতার অনুষ্ঠান কিন্তু এই অক্ষয় তৃতীয়ার দিনেই করে থাকেন।

তাছাড়া শুভ দিন এবং শুভ কাজ এই দুটি মিলিয়ে বর্তমানে সোনা কেনার রেওয়াজ এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে তা চোখে পড়ার মতো। এই অক্ষয় তৃতীয়ার দিন সোনার ব্যবসায়ীদের অনেক রকম ছাড় রাখতে হয় সোনার উপরে। কেননা এই দিন প্রচুর মানুষ সোনা কিনে থাকেন।

যেহেতু অক্ষয় তৃতীয়া হিন্দু এবং জৈন ধর্মের একটি বিশেষ উৎসব, সেক্ষেত্রে জৈন ধর্মে অক্ষয় তৃতীয়ার দিন ভগবানের ঋষভ দেবকে সম্মানিত করা হয়, প্রথম তীর্থঙ্কর যিনি কিনা আখের রস খেয়ে তার এক বছরের উপবাস সম্পন্ন করেছিলেন। এই দিনে যে সমস্ত মানুষ সারা বছরব্যাপী বিকল্প উপবাসের দিন বর্ষি টক অনুশীলন করে তারা আখের রস পান করে তাদের তপস্যা শেষ করে।

হিন্দু ধর্মের মানুষ এবং জৈন ধর্মের মানুষ সৌভাগ্যের আশায় সোনা কিনে থাকেন। আবেগ এবং আনন্দের সাথে এই অক্ষয় তৃতীয়ার দিনটি খুবই সুন্দরভাবে উদযাপন করেন। এই দিনটি এতটাই শুভ বলে মনে করা হয় যে, এই দিনে ক্রেতা, বিক্রেতা সকলেই একটি সফল লেনদেনের জন্য প্রস্তুত থাকেন।

অক্ষয় তৃতীয়া ঘরে ঘরে বিশেষভাবে পালন করা হয়, এর ফলে পূজা পার্বণ, ফল, ফুল, মিষ্টি, ঈশ্বরকে অর্পণ করার মধ্যে দিয়ে এটি একটি সুন্দর উৎসব। এই দিনটির জন্য অনেকে সারা বছর অপেক্ষা করে থাকেন কেননা অনেকেই অনেক শুভ কাজ এই দিনটিতেই করার জন্য অপেক্ষা করেন।

Leave a Comment